• রাত ৩:১১ মিনিট রবিবার
  • ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শীতকাল
  • ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁও পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে কর্মীসভা মুজিবুরের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে মানববন্ধনে অংশ গ্রহন সজিবের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক ছাত্রদল কর্মী নিয়ে মানববন্ধনে যোগদান জেলা বিএনপির মানববন্ধনে মান্নানের নির্দেশে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীর অংশগ্রহন এম্পায়ার স্টিল ইন্ডাস্ট্রিজ এর উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার’র ছোট ভাইয়ের ইন্তেকাল সোনারগাঁয়ে নতুন করে ৪ জনের দেহে করোনা সনাক্ত বাদ আছর মহিউদ্দিনের জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন মজহমপুর একাদশ বিজয়ী হৃদয়ে-৯৮ ব্যাচের শীত বস্ত্র বিতরণ ঢাকা এ বছর পাচ্ছে না শৈত্যপ্রবাহের দেখা হঠাৎ থমকে গেছে সোনারগাঁও পৌরসভা কাঁচপুরে এক জনের দেহে করোনা সনাক্ত, মোট সনাক্ত ৭৯৮ নেতাদের নালিশের পর এড: সামসুল ইসলামকে এমপি মির্জা আজমের ফোন এ এক দুঃখী বালিকার অশ্রুঝরা গল্প পাঁচ হেলিকপ্টার বহনে সক্ষম বিশাল যুদ্ধজাহাজ সামনে আনল ইরান সোনারগাঁয়ে তাহুরা ইমতিয়াজ ফাউন্ডেশনের শীত বস্ত্র বিতরণ কাঁচপুরে শীতলক্ষা নদী থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার সোনারগাঁয়ে বালতির পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু সোনারগাঁয়ে আরো ১ জনের দেহে করোনা সনাক্ত, মোট সনাক্ত ৭৯৩
বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টাকারী পলাশ ছিল মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ও ৬০-৭০লাখ টাকা ঋণগ্রস্থ

বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টাকারী পলাশ ছিল মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ও ৬০-৭০লাখ টাকা ঋণগ্রস্থ

Logo


নিউজ সোনারগা*২৪ডটকম:

বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাই চেষ্টা মামলার তদন্তে এবার মিলেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। এ ঘটনায় নিহত নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার পলাশ আহমেদ ওরফে মাহাদির মনে শুধু স্ত্রী হারানোর বিরহ নয়, বিভিন্ন লোকের কাছে ৬০-৭০ লাখ টাকা ঋনগ্রস্থ ছিল সাথে ছিল সেই খোয়ানোর বেদনা। সব মিলিয়ে মানসিকভাবে বিপর্যন্ত পলাশ এ অবস্থা থেকে বের হয়ে আসতে চেয়েছিলেন। তাই বিমান ছিনতাইয়ের মতো অদ্ভুত পরিকল্পনা করেন পলাশ।

তদন্ত করতে গিয়ে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছেন মামলার তদন্তকারী সংস্থা চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট।

সংস্থাটির উপ-কমিশনার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, ‘এ মামলার বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বলার মতো সময় হয়নি। তবে মামলা তদন্তে নানা ধরনের তথ্য হাতে আসছে। তথ্যগুলো যাছাই-বাছাই করা হচ্ছে।’

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক রাজেস বলেন, মামলায় অনেক কিছুই তো উঠে আসছে। আমরা সবকিছু তদন্ত করে দেখছি। ঘটনার আগে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন পলাশ। তিনি কী কী সংকটের মধ্যে তখন ছিলেন তা আমাদের তদন্তে উঠে এসেছে। এসব তথ্য আমরা তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করব।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানিয়েছে, লন্ডনে পাঠানোর নাম করে বিভিন্নজনের কাছ থেকে ৬০-৭০ লাখ টাকা নিয়েছেন পলাশ। তবে তাদের কাউকে লন্ডনে পাঠাতে সক্ষম হননি তিনি। যা ভুক্তভোগীরা তদন্তে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন। ওই টাকা পলাশের কাছ থেকে নানা কৌশলে চিত্রনায়িকা শিমলা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে জেনেছে তদন্ত কর্মকর্তারা। প্রভাবশালী নানা মহলে শিমলার যাতায়াতের কারণে ওই টাকা উদ্ধার করাও সম্ভব ছিল না পলাশের পক্ষে।

একদিকে ৬০-৭০ লাখ টাকা হারানো, অন্যদিকে শিমলাকে হারিয়ে দিশাহারা হয়ে পড়েছিলেন পলাশ। এসব দুঃখ, ক্ষোভ কারও কাছে প্রকাশও করতে পারছিলেন না তিনি। এমনকি পাচ্ছিলেন না উপযুক্ত প্রতিকারও। এমন অবস্থায় নাটকীয় কিছু একটা করে এ সংকটের সমাধান চেয়েছিলেন পলাশ। যার পরিপ্রেক্ষিতে তার বিমান ছিনতাইয়ের ব্যর্থ চেষ্টা।

মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ঘটনার কয়েক মাস আগে পাওনাদারদের কাছ থেকে আত্মগোপনে থাকতে নিজের ভাড়া বাসা ছেড়ে দেন পলাশ। নিজের বাসা ছেড়ে দেওয়ার পর শিমলার বাসা এবং বিভিন্ন হোটেলে রাতযাপন করতেন পলাশ।’

তিনি বলেন, ‘বিমান ছিনতাই চেষ্টা ঘটনার পর পলাশের কয়েকজন পাওনাদারের খোঁজ পেয়েছে তদন্ত দল। এ পর্যন্ত পাওয়া হিসাব মতে ট্রায় ৭০ লাখ টাকা দেনা ছিল পলাশের। দেনার এ পরিমাণ আরও বাড়তে পারে।’ তদন্ত কর্মকর্তারা অন্তত ১৬ জনের জবানবন্দী সংগ্রহ করেছেন। তবে তদন্তের ব্যাপারে সহযোগিতা করতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন না পলাশের সাবেক স্ত্রী শিমলা। এরই মধ্যে তার সঙ্গে যোগাযোগের জন্য একাধিকবার চেষ্টা করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি বিকালে ঢাকা থেকে উড্ডয়নের পর বিমানের ফ্লাইট ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন পলাশ আহমেদ। বিমানটি চট্টগ্রাম হয়ে দুবাই যাওয়ার কথা ছিল। বিমানটি ছিনতাইয়ের প্রচেষ্টার পর শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। পরে প্যারা কমান্ডো অভিযান চালিয়ে জিম্মিদশা থেকে বিমানটি মুক্ত করা হয়। অভিযানেই নিহত হন ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাই চেষ্টাকারী পলাশ আহমেদ।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution