• বিকাল ৪:৩২ মিনিট রবিবার
  • ২২শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ৫ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
বন্দরে করোনা রোগীকে দেখতে যাওয়া সোনারগাঁয়ে ২ মহিলা আইসোলেটে সোনারগাঁয়ে জ্বর- সর্দি কার্শিতে এক বৃদ্ধার মৃত্যু, করোনা আতঙ্কে কাছে যাচ্ছে না কেউ পিরোজপুর ইউপির ৩ গ্রামের অসহায়দের মাঝে চেয়ারম্যান মাসুমের ত্রাণ বিতরন উপজেলার ৮ হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করবেন ইঞ্জিনিয়ার মাসুম ভাইস চেয়ারম্যান বাবু ওমরের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ সাদিপুর ইউনিয়নে প্রতিবন্ধী ও দুস্থ- অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ সোনারগাঁয়ে ত্রাণ বিতরণের ছবি ফেসবুকে পোষ্ট করে সমালোচনার মুখে ডাক্তার বিরু মোগরাপাড়া বিদ্যায়তনের ২০০৪ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ত্রান বিতরণ এখনো করোনামুক্ত রয়েছে যে ১৮ রাষ্ট্র ২৫০ প্রতিবন্ধী ও ৭০ জন হিজরার মাঝে নগদ অর্থ ও ত্রান সামগ্রী প্রদান চেয়ারম্যান ইঞ্জিঃ মাসুমের সোনারগাঁয়ে মঙ্গলেরগাঁও কান্দাপাড়া এলাকায় সৌদি প্রবাসী ব্যবসায়ীর উদ্যোগে ত্রান বিতরন সোনারগাঁয়ে দুস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় বারদীতে তরুচ্ছায়া সংগঠনের নানা উদ্যোগ উপজেলা আওয়ামীলীগে আহবায়ক কমিটির উদ্যোগে জামপুরে অসহায়দের মাঝে ত্রান বিতরণ করোনায় মধ্যবিত্তের কান্না… রবিউল হুসাইন সোনারগাঁও পৌরসভা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বাংলাদেশে আরও ৫ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন বন্দরে করোনায় এক নারীর মৃত্যু ঘরে থাকবেন আপনারা খাবার পৌছে দিব আমরা. চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুম
মসজিদে ঢুকে পেটায় ইয়ানবী ও তার বাহিনী, পুলিশ বলেছে ছোটখাটো ঘটনা

মসজিদে ঢুকে পেটায় ইয়ানবী ও তার বাহিনী, পুলিশ বলেছে ছোটখাটো ঘটনা

নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: ইয়ানবী বাহিনীর হাত থেকে বাঁচতে আশ্রয় নেয় উপজেলার পিরোজপুর ইঊনিয়নের চান্দেরচক গ্রামবাসী কিন্তু ইয়ানবী ও তার বাহনী মসজিদের ভেতর গিয়ে পিটায় গ্রামবাসীকে। তার বাহিনীর হাতে প্রায় ১০জন নারী পুরুষ আহত হয়। এ ঘটনায় ফারুক নামের এক ব্যক্তি সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হলেও পুলিশ এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। তবে, পুলিশ বলেছে এটি ছোটখাটো একটি ঘটনা।

জানাগেছে, গত শনিবার বিকেলে সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের চান্দের চক গ্রামে ঘুড়ি খেলার আয়োজন করে গ্রামের যুবকরা। বিকালে গ্রামবাসী দু’পক্ষ বাদ্যবাজনাসহ উৎসব মুখর পরিবেশে খেলা শুরু করে। খেলার একপর্যায়ে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে চান্দের চক গ্রামের যুবক ও নয়াগাঁও গ্রামের যুবকদের মধ্যে তর্কবিতর্ক ও হাতাহাতি শুরু হয়। খবর পেয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ী ঠিকাদার আলাউদ্দিনের ছেলে ইয়ানবীর ও শহিদুল্লাহর ছেলে শাহজাহানের নেতৃত্ব ৩০/৪০ জনের একটি দল লাঠিসোঠা, টেটা বল্লম, দা-ছুড়িসহ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে চান্দের চক গ্রামে হামলা চালিয়ে ধনু মিয়া, আয়নাল, রূপালী, ফারুক, ঝর্না, নিলুফা, মুজিবুর, শাহালমসহ গ্রামের প্রায় ১০জনকে পিটিয়ে আহত করে।

আহতদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ঘুড়ি খেলা নিয়ে সংঘর্ষের সময় ইয়ানবীর হাত থেকে বাঁচতে চান্দেরচক মসজিদে আশ্রয় নেয় গ্রামবাসী। কিন্তু সেখানেও শেষ রক্ষা হয়নি। ইয়ানবীর নেতৃত্বে ৩০/৪০ জন সন্ত্রাসী মসজিদে প্রবেশ করে মসজিদে থাকা নারী পুরুষদের উপর এলোপাতালী ভাবে পিটানো ও কুপানো শুরু করে। এতে মসজিদে থাকা প্রায় ১০জন নারী পুরুষ আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে সোনারগাঁ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে মারাত্মক আহত দু’জনকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে ইয়ানবী গর্বের সাথে নিউজ সোনারগাঁ’কে জানান, সবাই বলে আমার নেতৃত্বে নাকি হামলা হয়েছে। আমি আর কি বলব।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ দেইনি। ছোটখাটো তাই পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি।

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution