• ভোর ৫:৩৭ মিনিট বুধবার
  • ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : হেমন্তকাল
  • ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
মরিচ পানীতেই দুই মিনিটে দূর হবে গলা ব্যথা বা খুসখুস! সোনারগাঁয়ে শেষ হলো দুই দিন ব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মানবাধিকার দিবস পালন টিসিবির উদ্যোগে ৪৫ টাকা দরে পিয়াজ বিক্রি থানায় জিডি করলেই আসবে ফোন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ইলিয়াস আটক নারায়ণগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ সভাপতি মোস্তাক আহম্মেদ জয়িতা পুরস্কার পেলেন সমাজকর্মী আলেয়া আক্তার আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে আসতে পারেন এএইচএম মাসুদ দুলাল! ডিসেম্বর থেকেই ঢাকা-সিকিম বাস চলাচল শুরু লিয়াকত হোসেন খোকাকে মোশারফ হোসেনের শুভেচ্ছা রোকেয়া দিবসে জয়িতাদের সংবর্ধনা দূর্ণীতি রোধে সোনারগাঁয়ে র‌্যালি ও আলোচনা সভা ছেলের মৃত্যুর শোক আর হত্যাকারীদের যন্ত্রনায় পৃথিবী ছেড়ে চলে গেলেন মা বৈদ্যেরবাজারে ২য় মানবতার দেয়াল উদ্ধোধন সোনারগাঁয়ে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচিত হলেন লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি সোনারগাঁয়ে অজ্ঞাত গাড়ীর ধাক্কায় পিকআপ ভ্যান চালক নিহত সোনারগাঁয়ে পরিবার কল্যান সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উদ্ধোধন মাদক ব্যবসায়ীদের হামলার ঘটনায় মামলা, আসামীদের ছবি ভাইরাল
সোনারগাঁয়ে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, হাসপাতালে ভাংচুর

সোনারগাঁয়ে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, হাসপাতালে ভাংচুর

নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকমঃ  সোনারগাঁ উপজেলায় ভুল চিকিৎসায় অমান্তিকা নামের এক প্রসুতির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার স্বজনরা। এ ঘটনায় নিহতের স্বজনারা উত্তেজিত হয়ে হাসপাতাল ভাংচুর করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় হাসপাতালের কর্তব্যরত লোকজন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে।


নিহত অমান্তিকার স্বামী পিন্টু মিয়া জানান, গত শুক্রবার বিকালে তার স্ত্রী অমান্তিকার প্রসব ব্যাথা উঠলে মোগরাপাড়া চৌরাস্তার সোনারগাঁ শপিং কমপ্লেক্সের ৩য় তলায় সোনারগাঁ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালে কর্তব্যরত গাইনি ডাক্তার নুরজাহান তাকে সিজার করতে হবে জানান। তখন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ১৩ হাজার টাকায় অমান্তিকাকে সিজার করার চুক্তি করেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে অমান্তিকাকে সিজার করেন এবং একটি কন্যা সন্তানের জম্ম দেন। এরপর ডাক্তার নুরজাহার তাড়াহুড়ো করে আরেকটি অপারেশন আছে বলে সাথে থাকা নার্সকে সেলাই করার জন্য নির্দেশ দিয়ে তিনি হাসপাতাল ত্যাগ করেন।


এদিকে, সেলাইয়ের পর রাত যত বাড়তে থাকে অমান্তিকার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তার পেট ব্যাথাসহ কয়েকবার বমি করেন। পরে হাসপাতালের নার্সরা অমান্তিকা শারীরিক অবস্থার কথা ডাঃ নুরজাহানকে জানালে তিনি শনিবার সকালে অমান্তিকাকে নারায়ণগঞ্জ কেয়ার হাসপাতালে নিতে বলেন। সেখানে নিয়ে গেলে অমান্তিকাকে ২ দফা অপারেশন করেন নুরজাহান। অপারেশন শেষে অমান্তিকার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হলে রোগীর স্বজদের জানানো হয় রোগীর কিডনিতে সমস্যা আছে তাকে দ্রুত ঢাকা আজগর আলী হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন। শনিবার রাতেই স্বজনরা রোগীকে আজগর আলী হাসপাতালে নিয়ে গেলে সোমবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।


অমান্তিকা মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মেইন গেইটে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যায়। সোমবার সকালে অমান্তিকার স্বজনরা সোনারগাঁ জেনারেল হাসপাতালের সামনে এম্বুলেন্স রেখে তার মৃত্যুর বিচার চেয়ে হাসপাতালে ভাংচুর করে। খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
অমান্তিকা (১৮) উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বড়সাদিপুর গ্রামের সোহেল মিয়ার মেয়ে ও পিন্টু মিয়ার স্ত্রী।


এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ডাঃ নুরজাহানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে।


এ ব্যাপারে হাসপাতালের মালিক মানসুরা বেগমের ভাই সৈয়দ শরিফউদ্দিন কাদেরী জানান, আমার বোন বর্তমানে আমেরিকা রয়েছেন। হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর ঘটনায় আমরা জড়িত নই। এ ব্যাপারে সম্পুর্ন দায় সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের। মালিকপক্ষ হিসেবে এ ব্যাপারে আমাদের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। রোগীর আত্মীয়-স্বজন আমাদের হাসপাতালে ভাংচুর করায় থানায় আমরা একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।
সোনারগাঁ থানার ওসি (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন জানান, হাপাতালে ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ দেয়নি। তবে, ভাংচুরের ঘটনায় হাসপাতালের মালিকপক্ষ থেকে সৈয়দ শরিফউদ্দিন কাদেরী বাদি হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution