• রাত ১২:২০ মিনিট বৃহস্পতিবার
  • ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ৪ঠা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে নিখোঁজের ৩০ঘন্টা পর ঝোপ থেকে বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার মৎস্যজীবী দলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সোনারগাঁয়ে দোয়া মাহফিল ভাইকে সরিয়ে বারদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন চুম্মা বাবুল সোনারগাঁয়ে ভূমিদস্যুদের কান্ড: কৃষিবিদকে হত্যার চেষ্টায় থানায় অভিযোগ জিতলো রয়েল চেলেঞ্জার সনমান্দী, স্বস্তিতে চেয়ারম্যান জিন্নাহ সোনারগাঁয়ে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চ ভাষনের প্রস্তুতি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত জামপুর ইউনিয়নে জাতীয়পার্টির প্রার্থী ঘোষনা দিলেন এমপি খোকা সোনারগাঁয়ে হত্যার ৩ মাস পর বিল্লাল হোসেনের মাথা উদ্ধার সোনারগাঁও জাদুঘরের মাসব্যাপী লোকজ মেলা উদ্ধোধন সোনারগাঁয়ে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসা অধ্যক্ষ গ্রেফতার পুলিশের এএসআই’য়ের বিরুদ্ধে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ উপজেলা মৎসজীবী লীগের কমিটি গঠন আগামীকাল সোমবার থেকে শুরু মাসব্যাপী সোনারগাঁও লোকজ মেলা সোনারগাঁ বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুর্নামেন্টে বারদী বুলস ক্লাব বিজয়ী ঢাকার ছাত্রদলের সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জে সোনারগাঁয়ের জনি আহত মোরগের ‘ছুরিকাঘাতে’ মালিকের মৃত্যু নাসিরকে নিয়ে এবার ঢালিউড নায়িকার ফেসবুক স্ট্যাটাস ভাইরাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার ঘোষণা স্বল্পদৈর্ঘ্য থ্রিলারে স্পর্শিয়া টিকা নিলেন প্রায় ৩০ লাখ মানুষ
সোনারগাঁয়ে স্কুল ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

সোনারগাঁয়ে স্কুল ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: সোনারগাঁ উপজেলার ছোট অর্জুন্দী গ্রামে পলাশ (১৩) নামে এক স্কুল ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গত রোববার নিজ বাড়ীতে সে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পরদিন সোমবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহটি নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।

নিহত পলাশ উপজেলার মোগড়াপারা উপজেলার ছোট অর্জুন্দী এলাকার মৃত. শাহিনের ছেলে ও মোগড়াপারা এইচ জিজি এস স্মৃতি বিদ্যায়তনের ৮ম শ্রেনীর ছাত্র।

নিহত স্কুল ছাত্র পলাশ আত্মহত্যা করেছে না তাকে গলায় ফাঁস দিয়ে মেরে ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে তা রহস্যজনক। কিন্তু এলাকাবাসী ও সহপাঠীরা বলছে ভিন্ন কথা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক এলাকাবাসী ও অন্যান্য সহপাঠীরা বলছে, পলাশ আত্মহত্যা করতে পারে না, অন্য কোন ঘটনাও ঘটে থাকতে পারে, যা ময়না তদন্তের মাধ্যমে বের হয়ে আসবে। পলাশের মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পলাশের সহপাঠিদেরসূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন বিকেলে স্কুল ছাত্র পলাশ প্রাইভেট পড়া শেষ করে মোগড়াপারা হাই স্কুলের মাঠে তার সহপাঠীদের সাথে খেলাধুলা করছিলো। এর কিছুক্ষন পর সে পানি পান করার কথা বলে তার বাড়ীতে চলে যায়। এরপর সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে ঘরের দরজা বন্ধ করে বোরকা পরিহিত অবস্থায় গলায় তার মা পারুলের একটি ওড়না গলায় পেঁচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্বহত্যা করে। এদিকে তার মা তাকে এদিকে সেদিকে খুঁজে না পেয়ে ঘরে গিয়ে দেখেন পলাশ ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। এর কিছুপর তার ডাক চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন এসে পলাশকে উদ্ধার করে দ্রুত প্রথমে মোগড়াপারা চৌরাস্তা এলাকায় স্থানীয় রয়েল ক্লিনিকে নিয়ে যায় ও পরে সেখান থেকে মা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষনা করেন। সন্ধ্যার পর খবর পেয়ে পুলিশ পলাশের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় এবং পরদিন সোমবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রউফ জানান, নিহতের লাশের ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই জানা যাবে মৃত্যুর রহস্য।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution