• সকাল ৭:১১ মিনিট শনিবার
  • ২৩শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : গ্রীষ্মকাল
  • ৬ই জুন, ২০২০ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত নেই দুধঘাটা ও পাঁচানী সড়কে বৃষ্টি হলেই বন্যা ! মুক্তিযোদ্ধা মনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে উপজেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের শোক বীর মুক্তিযোদ্ধা মনোয়ার হোসেনকে রাষ্টীয় মর্যাদায় শেষ বিদায় জানালেন ইউএনও সাইদুল ইসলাম বৈরী আবহাওয়ায়ও লক ডাউন পরিবারে পৌছে যাচ্ছে এমপি খোকার খাবার সোনারগাঁয়ে ২দিনে করোনা আক্রান্ত সংখ্যা গড়ে সাড়ে ৩৮% সোনারগাঁয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ সদস্য নিহত সোনারগাঁয়ে একদিনে সর্বোচ্চ ৬৩ জনের মধ্যে ২৮ জনের দেহে করোনা সনাক্ত সোনারগাঁয়ে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১৫ জনের মৃত্যু, মৃত্যুর কারণ গোপন করছে পরিবার মৃত ব্যক্তির দেহে কতক্ষণ সক্রিয় থাকে করোনা ভাইরাস প্রধানমন্ত্রীর উপহার অসহায়দের পৌছে দিলেন চেয়ারম্যান ইঞ্জি: মাসুম সোনারগাঁয়ে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামুলক নয়তো জরিমানা সোনারগাঁয়ে ৭৫ জনের মধ্যে ২৫ জনের দেহে করোনা সনাক্ত, মোট সনাক্ত ২৩৮ জান্নাতি ও জাহান্নামিদের মাঝে কথোপকথন!.. তুহিন মাহমুদ করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিদের দাফনের ব্যবস্থা করলেন এমপি খোকার টিম বারদীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে ২ ব্যক্তির মৃত্যু লোকনাথ ব্রহ্মচারীর ১৩০ তিরোধান উৎসব স্থগিত সোনারগাঁয়ে করোনার উপসর্গ নিয়ে মেয়ের পর মায়ের মৃত্যু প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে সোনারগাঁয়ে সোনারগাঁয়ে জিয়াউর রহমানের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও ত্রাণ বিতরণ
করোনা যুদ্ধে অবিরাম ছুটে চলছেন সোনারগাঁয়ের ইউএনও এসিল্যান্ড

করোনা যুদ্ধে অবিরাম ছুটে চলছেন সোনারগাঁয়ের ইউএনও এসিল্যান্ড

Logo

নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: ৮ মার্চ বাংলাদেশে শুরু হওয়া কোভিড-১৯ ভাইরাসের হটস্পট খ্যাত নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে অবিরাম ছুটে চলেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড)। দেশের এমন পরিস্থিতিতে জনগণের পাশে থেকে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নেন তারা অগ্রণী ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন।

করোনার শতভাগ ঝুঁঁকি থাকা সত্বেও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল মামুন করোনা যুদ্ধে মানুষের সেবায় অবিরাম কাজ করে যাচ্ছেন। রাত দিন এক করে সেবার ব্রত নিয়ে উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে পৃথক পৃথকভাবে নিরলস ছুটে চলছেন তারা।

শুরুতেই তারা লকডাউনে প্রবাসীসহ সাধারণ জনগণকে ঘরে রাখা, ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করা, কোয়ারেন্টাইন ও লকডাউন অমান্যকারীদের ঘরে ফেরানোর কাজ করেন।

এরপর তারা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, জনাকীর্ণ স্থানসমূহে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত, করোনা আক্রান্ত বাড়ি কিংবা করোনা আক্রান্ত মৃত ব্যক্তিদের বাড়ি ও এলাকা লকডাউন করা, মুক্তিযোদ্ধাদের রাষ্ট্রীয় সম্মাননা প্রদান, শিল্প-কারখানা ও রাস্তা-ঘাটে শ্রমিক আন্দোলন নিরসনে মালিক ও শ্রমিকদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে সুষ্ঠু সমাধান করা, মসজিদ-মন্দির সমূহে ধর্ম মন্ত্রণালয়ন্তের নির্দেশনা বাস্তবায়নে নিশ্চিত করে আসছেন। এমনকি তারা অসুস্থ রোগীর সেবায় নিজেদের গাড়ি দিয়ে হাসপাতালে পৌঁছে দেয়ার কাজটিও করেছেন। এছাড়া করোনায় আক্রান্ত স্বেচ্ছাসেবীদের বাড়ি গিয়ে তাদের পরিবার ও তাকে শান্তনা দেয়ার কাজটি করেছেন তারা।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী শুরু থেকেই অদ্যাবধি এসব কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করে সোনারগাঁবাসীদের মাঝে আস্থার প্রতীকে পরিণত হয়েছেন ইউএনও ও এসিল্যান্ড। পুলিশ, সেনাবাহিনী ও আনসার এর সহযোগিতায় সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এসব কাজ অবিরাম ও নিবিড়ভাবে করে চলেছেন তারা।

পোশাক কারখানায় স্বাস্থ্যবিধি তদারকি
মোবাইল কোর্টের অংশ হিসেবে উপজেলার কাঁচপুর, মেঘনা ও চৈতী কম্পোজিটসহ বিভিন্ন তৈরি পোশাক শিল্প কারখানা পরিদর্শন করা হয়। পরিদর্শনকালে এসব প্রতিষ্ঠানে সরকারি নির্ধারিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হয়। তাতে সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মানার চেষ্টা লক্ষ্য করা যায়।

বাসায় নামাজ পড়তে উদ্বুদ্ধকরণ
উপজেলার বিভিন্ন মসজিদে এশা ও তারাবির নামাজ কালেও মুসুল্লিদের উপস্থিতির দিকে নজর রাখা হয়। উপস্থিত মুসুল্লিগণকে করোনাকালীন বাসায় নামাজ পড়তে উদ্বুদ্ধ করা হয় এবং কোন তারাবির জামাতে ১২ জনের অধিক লোক হলে তাদেরকে বুঝিয়ে বাসায় ফেরত পাঠানো হয়।

দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা
এবারের রমজান মাসে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে এমন দাবি সাধারণ মানুষের। প্রশাসনের নিয়মিত কঠোর নজরদারির কারণে নিত্যপণ্যের মূল্য না বাড়ায় সাধারণে স্বস্তি বিরাজ করছে। উপজেলার সবচেয়ে বড় কাঁচাবাজার মোগরাপাড়া চৌরাস্তা, কাঁচপুর, উদ্ধবগঞ্জ বাজার, সাদিপুর কাঁচাবাজার, পানাম আদমপুর বাজার, মেঘনা শিল্পাঞ্চল কাঁচাবাজারে বাজারে মূল্য তালিকা না থাকা, দ্রব্যের অতিরিক্ত দাম রাখা, নির্ধারিত সময়ের পরও দোকানপাট খোলা রাখা প্রভৃতির জন্য মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে লক্ষাধিক টাকা অর্থদন্ড করা হয়। এছাড়া সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে এই বাজারগুলোকে বিস্তৃত ও বড় জায়গায় হস্থান্তর করতে ব্যবস্থা করেন।

৩৩৩ এর মাধ্যমে ত্রাণ সহায়তা
এ ছাড়া সরকারি সেবার অংশ হিসেবে ৩৩৩ এর মাধ্যমে প্রাপ্ত কলের ভিত্তিতে আবেদনকারীদের কাছে দিবা-রাত্রি ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেয়ার কাজও করে আসছেন তারা।

লকডাউন বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট
জেলা প্রশাসক কৃর্তক ঘোষিত লক ডাউন বাস্তবায়ন করতে উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ন এলাকাগুলোতে মনিটরিং করা। অপ্রয়োজনে বাহিরে ঘুরাফেলার কারণে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা। মার্কেট ও বিপনী বিতানগুলোতে দোকানপাট সরকারী নির্দেশ অমান্য করে খোলা রাখার অপরাধে প্রতিদিনই সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছেন।

লক ডাউন পরিবারের খাবার নিশ্চিতকরন
উপজেলার বিভিন্ন স্থানে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের পরিবারের খাবার সরবরাহ, আক্রান্ত ব্যক্তি ও পরিবারকে শান্তনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে হাসপাতাল পাঠানো ও করোনায় আক্রান্ত স্বেচ্ছাসেবী ও তার পরিবারকে সান্তনা দিতে তাদের বাড়িতে গিয়ে জম্মদিন পালন ও করোনায় মৃত একটি পরিবারের শিশুদের ভরনপোষনের দায়িত্ব নেয়াসহ বিভিন্ন প্রদক্ষেপ গ্রহন করেন।

সরকারী ত্রান মনিটরিং
করোনার প্রাদুর্ভাবে অসহায় মানুষকে খাদ্য সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে সরকারী ত্রান ইউনিয়ন ও পৌরসভার পর্যায়ে বিতরন ও তা সাধারণ জনগন পাচ্ছে কিনা তা স্বেচ্ছাসেবকের মাধ্যমে মনিটরিং করার দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) আল মামুন জানান, সরকারের নির্দেশে বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস থেকে সোনারগাঁবাসীকে রক্ষা করতে কাজ করে যাচ্ছি। স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনে চলার অভ্যাস করলে শুধু করোনা ভাইরাস নয়, আর সব ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া থেকেও আমরা বেঁচে থাকতে পারব। আর তাই স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি আমাদের এবং আমাদের পরিবারের জন্যে মেনে চলতে হবে। কেননা আক্রান্ত ব্যক্তি উপসর্গহীন অবস্থায়ও আরেকজনকে আক্রান্ত করতে পারে। তিনি আরো জানান, আমরা আমাদের সামর্থ্য অনুয়ারী জনগনকে ঘরে রাখার চেষ্টা করছি। করোনা ভাইরাস আল্লাহর হুকুমেই আমাদের মাঝে এসেছে আবার আল্লাহর হুকুমেই করোনা ভাইরাস থেকে আমাদের বেঁচে থাকতে হবে, সে জন্যে ঘরে থাকতে হবে ঘরে থেকেই ইবাদত করতে হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম জানান, আমরা সরকারে নির্দেশে করোনা শুর হওয়ার পর থেকে বাজার মনিটরিং, জনগনকে করোনার সর্ম্পকে সচেতনা, তাদের সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান, সরকারী ত্রান বিতরন, সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করন ও লকডাউন মেনে জীবন জীবিকা নিশ্চিত করনের লক্ষে কাজ করেছি। সোনারগাঁয়ের প্রতিটি মানুষের সহযোগিতায় আমরা করোনাকে জয় করতে চাই সেজন্য অতিতের মতো ভবিষ্যতেও আমরা সবার সহযোগিতা চাই।

Logo
এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution