• রাত ৪:২৭ মিনিট রবিবার
  • ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বর্ষাকাল
  • ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সুনামগঞ্জে ৩ হাজার বন্যার্ত পরিবারের মাঝে সোনারগাঁ থানা বিএনপির ত্রাণ বিতরন কায়সার-মাসুমের তত্ত্ববধানে বিশাল মোটর শোভাযাত্রা ও বিজয় র‌্যালি বাকবিতন্ডার পর বিজয় র‌্যালিতে হাস্যজ্জল দুই নেতা সোনারগাঁয়ে ৭০ বছরের বৃদ্ধাকে ১৭ বার জুতা পেটা! নেতাদের বাকবিতন্ডায় অস্থিরতা উপজেলা আওয়ামীলীগে নদী দূষণ ঠেকাতে গোসল করে অভিনব প্রতিবাদ সোনারগাঁয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের ভাইকে কুপিয়ে জখম সোনারগাঁয়ে যুবলীগ নেতার উপর হামলা ॥ আহত-৩ আওয়ামীলীগের ৭৩ বছর পর সোনারগাঁয়ে রাজাকারদের স্বীকৃতি দিচ্ছে চিত্রাঙ্গন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দীপ এর আলোচনা সভা ঈদের পর হতে পারে এসএসসি পরীক্ষা, পেছাবে এইচএসসি ও টানা ২য় দিনে কাঁচপুরে সওজের উচ্ছেদ অভিযান নোয়াগাঁও ভুমি কর্মকর্তার যোগ সাজসে সরকারী গাছ কেটে দোকান নির্মানেরর অভিযোগ সোনারগাঁও পৌরসভায় কীটনাশক পানে নারীর মৃত্যু কাঁচপুরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ স্বপ্ন পদ্মা সেতু পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বর্ণের চেইন ও ফলমুল অনৈতিক কাজে বাঁধা: সোনারগাঁয়ে পিতাকে পিটিয়ে আহত ডাকাত সর্দারের হাত-পা ভেঙ্গে পায়ের রগ কেটে দিলো এলাকাবাসী
লেখক হাজী মহসিনকে হেয় করার চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

লেখক হাজী মহসিনকে হেয় করার চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

সোনারগাঁ উপজেলার তরুন লেখক হাজী মোহাম্মদ মহসিনকে সামাজিক ভাবে হেয় করতে উঠে পড়ে লেগেছে সমাজের কিছু সমাজচ্যুত লোকজন। এ ঘটনায় হাজী মোহাম্মদ মহসিন বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।

ডায়েরীতে হাজী মোহাম্মদ মহসিন উল্লেখ করেন, তিনি যুগান্তরসহ বিভিন্ন পত্রিকায় লেখালেখি করেন। গত ২৯ জুন বিকাল ৫টার দিকে মজহমপুর স্কুল ছাত্র পরিষদ নামের একটি ফেইসবুক আইডি থেকে কে বা কাহারা তার বিরুদ্ধে মানহানীর কর বিভিন্ন অশ্লালীন কুরুচিপূর্ন কথা লিখে পোষ্ট করেন। এতে করে সামাজে তার মানহানি ঘটেছে।যা মিথ্যা বানোয়াট বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। এ ঘটনায় হাজী মোহাম্মদ মহসিন সোনারগাঁ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।

ফেইসবুকে যা লেখা হয়েছে তা হুবহুব তুলে ধরা হলো:

সোনারগাঁওয়ের উদ্ভবগঞ্জ এলাকার হাজী মোহাসিন নামের এক ঔষধের দোকানদার নিজেকে যুগান্তর পত্রিকার চিঠিপত্র কলামে প্রকৃতি বিষয়ক লেখক ও গবেষক দাবী করেছেন। তিনি প্রকৃতি বিষয়ে লেখালেখি করেন ভালো কথা। তিনি কি বিষয়ে গবেষণা করেন এ বিষয়ে কারো জানা থাকলে জানাবেন। আসলে তিনি গুগল থেকে লেখা নিয়ে এদিক সেদিক করে লেখে পত্রিকায় পাঠান। এটি আবার পত্রিকায় ঘটা করে ছাপিয়ে নিজেকে বড় লেখক দাবী করেন। তিনি আসলে কাট কপি লেখক। কাট কপি লেখক হয়ে তিনি নিজেকে কিভাবে গবেষক দাবী করেন। আমার জানা মতে সোনারগাঁয়ে তেমন গবেষক পাওয়া যায়নি। তিনি আবার কোন গবেষক।

হাজী মোহাম্মদ মহাসিনের লেখা দুটি ফিচার নিম্মে দেওয়া হলো:


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution