• রাত ১২:৩৭ মিনিট সোমবার
  • ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : হেমন্তকাল
  • ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
মেম্বার ফেল করা হুমায়ুন কবির এবার ইউপি চেয়ারম্যান ব্যালটে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’ লেখা সিল! জামপুরে নৌকার প্রার্থী হুমায়ুন কবির জয়ী ব্যালটে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’ লেখা সিল! শম্ভুপুরা, সাদিপুর ও নোয়াগাঁয়ে যারা চেয়ারম্যান হলেন সনমান্দিতে একটি কেন্দ্রের ভোট স্থাগিত সোনারগাঁয়ে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহন শেষে চলছে গননা সোনারগাঁয়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হলো ইউপি নির্বাচন সোনারগাঁয়ে ১২ জনের নমুনায় ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত উপজেলার প্রতিটি ইউপিতে শান্তিপূর্ন ভোট গ্রহন শান্তিপূর্ন ভাবে চলছে পিরোজপুর ইউপিতে ভোট গ্রহন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের বাড়িতে হামলা এই নির্বাচন যেন বর্তমান ও সাবেক এমপি’র লড়াই সাংবাদিকদের পর্যবেক্ষক কার্ড রাজনীতিবিদের হাতে রাত পোহালে ৮টি ইউপিতে ভোট যুদ্ধ, নিরাপত্তা নিয়ে শংকা আগামীকাল সোনারগাঁয়ের ৩৮৯ জন প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারন সোনারগাঁয়ে নারীসহ ২ মাদক কারবারী গ্রেপ্তার ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী জয়ের ট্রাম্পকার্ড বিএনপি নৌকা জেতাতে মাঠ ছাড়ছেন না কালাম আজ মধ্যে রাতে শেষ হচ্ছে নির্বাচনী প্রচারনা
সাকিব ভক্তদের জন্য দুঃসংবাদ

সাকিব ভক্তদের জন্য দুঃসংবাদ

Logo


বিশ্বরেকর্ড হয়েছিল টস করতে নামার সময়েই। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে টস করতে নেমেই সর্বকনিষ্ঠ টেস্ট অধিনায়কের রেকর্ডে নাম লিখিয়েছিলেন আফগান অধিনায়ক রশিদ খান। এবার ম্যাচের দুই ইনিংসের মধ্যেই সাকিব আল হাসানের সঙ্গে একটি রেকর্ড ভাগাভাগি করলেন আফগান লেগস্পিনার।

প্রথাগতভাবে লেগস্পিনার হলেও, ব্যাটটাও মন্দ করেন না রশিদ। যার প্রমাণ দিয়েছেন প্রথম ইনিংসেই। ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে আফগানদের করা ৭১ রানের মধ্যে ৫১ রান একাই করেন রশিদ। যা ছিলো তার টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি। এরপর বল হাতে নেমেই অসাধারণ এক রেকর্ড গড়েছেন রশিদ।

দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে ফিফটির পর, বাংলাদেশের ইনিংসের ৮ উইকেটের মধ্যে ৪টিই নেন রশিদ। এক উইকেটের জন্য অপেক্ষা করতে হয় তৃতীয় দিন সকাল পর্যন্ত। তবে সে অপেক্ষাটি দীর্ঘায়িত করেননি রশিদ। দিনের চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলেই বাংলাদেশের শেষ ব্যাটসম্যান নাইম হাসানকে বন্দী করেন লেগ বিফোরের ফাঁদে।

আর এতেই বিশ্বের চতুর্থ ক্রিকেটার হিসেবে অধিনায়কত্বের অভিষেক ম্যাচেই হাফসেঞ্চুরি ও পাঁচ উইকেট নেয়ার রেকর্ড হয়ে যায় রশিদের। তার আগে এ কীর্তি দেখিয়েছেন ইংল্যান্ডের স্ট্যানলি জ্যাকসন (অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে, ১৯০৫), পাকিস্তানের ইমরান খান (ইংল্যান্ডের বিপক্ষে, ১৯৮২) ও বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান (ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, ২০০৯)।

স্ট্যানলি নিজের অধিনায়কত্বের অভিষেক ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়ার পর, দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেছিলেন ৮২ রানের ইনিংস। তার এ রেকর্ডের ৭৭ বছর পর ১৯৮২ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেট নিয়েছিলেন ইমরান। পরে দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেন ৬৫ রানের ইনিংস। এ দুজনের রেকর্ডই হয়েছে গত শতাব্দীতে।

চলতি শতাব্দীতে এ কীর্তি গড়া প্রথম ক্রিকেটার হলেন সাকিব। ২০০৯ সালে গ্রেনাডায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়ার পর খেলেন ম্যাচজয়ী অপরাজিত ৯৬ রানের ইনিংস। তার এ ঘটনার ১০ বছর পর চতুর্থ ক্রিকেটার হিসেবে রেকর্ডটি গড়লেন রশিদ।

তবে রশিদের রেকর্ডে অনন্য ব্যাপারটি হলো আগের তিনজনের কেউই ম্যাচের দুই দলের প্রথম ইনিংসের মধ্যে রেকর্ডটি গড়তে পারেননি। কিন্তু সর্বকনিষ্ঠ অধিনায়কের রেকর্ডগড়া রশিদ, ম্যাচের প্রথম দুই ইনিংসেই ফিফটির পর নিয়েছেন ৫ উইকেটও।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution