• রাত ৮:৪২ মিনিট বুধবার
  • ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : হেমন্তকাল
  • ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতার মৃত্যুতে যুবদল নেতা আশরাফ ভুইয়ার শোক সোনারগাঁও পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে ! বিএনপি নেতা আবু সিদ্দিকের মৃত্যুতে মান্নানের শোক থানা বিএনপি’র স্বেচ্ছাসেবক নেতা আবু সিদ্দিক মোল্লার ইন্তেকাল যুবদলের প্রতিষ্টা বার্ষিকীতে খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া সোনারগাঁয়ে ১১ জনের নমুনায় ৪ জনের দেহে করোনা সনাক্ত সোনারগাঁয়ে মহাসড়কে দূর্ঘটনায় মহিলা নিহত সোনারগাঁয়ের মেঘনা নদী থেকে ৩ হাজার মিটার জাল জব্দ মেয়র প্রার্থী ডালিয়া লিয়াকত এর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সোনারগাঁয়ে সোয়াইব হত্যার মামলার রায় ৯ নভেম্বর প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাতিল চেয়ে সরকারকে লিগ্যাল নোটিশ মেয়র নির্বাচিত হলে মসজিদের পাশাপাশি মন্দির উন্নয়নে কাজ করবো.. নাসরিন ঝরা সোনারগাঁয়ে নতুন করে ২ জনের দেহে করোনা সনাক্ত মেয়র প্রার্থী ছগীর আহম্মেদের পূজা মন্ডব পরিদর্শন ও আর্থিক সহায়তা প্রদান জাতীয়পার্টির নেতাকে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার সোনারগাঁয়ে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট এর উদ্যোগে বস্ত্র বিতরণ সাদিপুরে বিভিন্ন পূজা মন্ডপে চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ মোল্লার অনুদান ডালিয়া লিয়াকতের পূজা মন্ডব পরিদর্শন ও আর্থিক সহায়তা প্রদান সোনারগাঁয়ে ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে ইউএনও’র উপর হামলা সোনারগাঁয়ের হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে পুলিশের উপহার
চলেই গেল মুক্তামণি

চলেই গেল মুক্তামণি

Logo


বিরল রোগে আক্রান্ত সাতক্ষীরার সেই মুক্তামণি আর নেই। বুধবার সকাল ৮টার দিকে সদর উপজেলার কামারবায়সা গ্রামের নিজ বাড়িতেই মৃত্যু হয় ১২ বছর বয়সী মুক্তামণির।

মুক্তামণির বাবা ইব্রাহিম গাজী জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত কয়েকদিন থেকেই মুক্তামণির শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তার হাত আগের থেকে অনেক ফুলে গিয়েছিল। ঢাকা মেডিকেল থেকে করে দেয়া ব্যান্ডেজ খুলে পরিষ্কার করার সময় হাত থেকে বেরিয়ে আসছিল বড় বড় পোকা। হাতটি কয়েকগুণ ফুলে যাওয়ায় দুই-এক ঘণ্টা ছাড়া সারাদিনই শুয়ে থাকতে হতো তাকে। দুর্গন্ধ বেড়েছিল অনেক বেশি। রোগের বিস্তার ধীরে ধীরে বুক, পেট আর পায়েও ছড়িয়ে পড়ছিল। তার সুস্থতার ভরসা রাখতে পারছিলেন না চিকিৎসকরাও। চিকিৎসকের নির্দেশমতো বন্ধ ছিল সব ধরনের ওষুধ সেবন।

২০১৭ সালের ২২ ডিসেম্বর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে আসা হয় মুক্তামণিকে। প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়ার পর তাকে সিঙ্গাপুরে নেয়ারও উদ্যোগ নেয়া হয়। তবে সেখানকার চিকিৎসকরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মুক্তামণির হাত দেখে আঁতকে ওঠেন। একইসঙ্গে হাত অপারেশনের জন্য অপারগতা প্রকাশ করেন। এরপর ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা দেশেই অপারেশন করার সিদ্ধান্ত নেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর কয়েক দফা অপারেশনও করেন। তবে হাতের কোনো পরিবর্তন আনতে পারেননি।

অবশেষে দীর্ঘ ৬ মাস চিকিৎসা সেবার পর এক মাসের ছুটিতে বাড়িতে আসে মুক্তামণি। তবে পরবর্তীতে মুক্তামণি আর ঢাকায় যেতে অনিচ্ছা প্রকাশ করে। একইসঙ্গে মুক্তামণির অবস্থার পরিবর্তন না হওয়ায় ঢাকায় যেতে নিরুৎসাহী হয়ে পড়ে তার পরিবারও।

সর্বশেষ ১৯ মে মুক্তামণির সঙ্গে কথা হয় জাগো নিউজের সাতক্ষীরা প্রতিনিধির। তখন সে বলে, ‌‘আমি আর সুস্থ হব না। ডাক্তার স্যাররা অনেক চেষ্টা করেছেন। কিন্তু আমাকে সুস্থ করতে পারেননি। জানি না কতদিন এভাবে বেঁচে থাকব আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।’ সুত্র জাগো নিউজ


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution