• রাত ১০:৫৪ মিনিট শুক্রবার
  • ১লা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শীতকাল
  • ১৫ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
মজহমপুর একাদশ বিজয়ী হৃদয়ে-৯৮ ব্যাচের শীত বস্ত্র বিতরণ ঢাকা এ বছর পাচ্ছে না শৈত্যপ্রবাহের দেখা হঠাৎ থমকে গেছে সোনারগাঁও পৌরসভা কাঁচপুরে এক জনের দেহে করোনা সনাক্ত, মোট সনাক্ত ৭৯৮ নেতাদের নালিশের পর এড: সামসুল ইসলামকে এমপি মির্জা আজমের ফোন এ এক দুঃখী বালিকার অশ্রুঝরা গল্প পাঁচ হেলিকপ্টার বহনে সক্ষম বিশাল যুদ্ধজাহাজ সামনে আনল ইরান সোনারগাঁয়ে তাহুরা ইমতিয়াজ ফাউন্ডেশনের শীত বস্ত্র বিতরণ কাঁচপুরে শীতলক্ষা নদী থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার সোনারগাঁয়ে বালতির পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু সোনারগাঁয়ে আরো ১ জনের দেহে করোনা সনাক্ত, মোট সনাক্ত ৭৯৩ বাকি তিন ম্যাচ ওমানে করার প্রস্তাব, রাজি নয় বাংলাদেশ মেকআপ উঠে লিপস্টিক মুছে গেলেও যা করেন দীপিকা পানাম নগরীতে ফেনসিডিলসহ আসিফ নামের এক ভাড়াটিয়া আটক সোনারগাঁয়ে আরো ২ জনের দেহে করোনা সানাক্ত, মোট সনাক্ত ৭৯৬ সাংবাদিকদের তিন দিন প্রশিক্ষণ শেষে সনদ বিতরণ সোনারগাঁ থানা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল পৌরসভা ও বৈদ্যেরবাজার এলাকায় ২ জনের দেহে করোনা সনাক্ত উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার জমি জোর করে বালু ভরাটের চেষ্টা
বান্ধবীকে ধর্ষণ করায় ধর্ষক বাবার শাস্তি চাইলেন কিশোরী

বান্ধবীকে ধর্ষণ করায় ধর্ষক বাবার শাস্তি চাইলেন কিশোরী

Logo


বান্ধবীকে ধর্ষন করায় ধর্ষক পিতার বিচার চাইলেন ধর্ষিতার বান্ধবী। বাবার নির্যাতনের শিকার ওই বান্ধবীর পাশে দাঁড়িয়েছেন ওই কিশোরীর মা-ও। নির্যাতিতা এবং ওই কিশোরীর বয়ানের ভিত্তিতেই আপাতত শ্রীঘরে পেশায় ব্যবসায়ী গুরুগ্রামের ওই ব্যক্তি। গত শুক্রবার তাঁকে গ্রেফতার করেছে গুরুগ্রাম পুলিশ। শুক্রবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের গুরুগ্রামের বেলাইরে।

ওই কিশোরী বেলাইরের একটি ফ্ল্যাটে বাবা-মার সঙ্গে থাকেন। নির্যাতিতা তাঁর ছেলেবেলার বন্ধু। তৃতীয় শ্রেণি থেকেই ওই কিশোরীর বাড়িতে যাতায়াত তাঁর। এমনকী, ঘটনায় অভিযুক্ত ওই কিশোরীর বাবাকেও নির্যাতিতা আঙ্কল সম্বোধন করতেন। নির্যাতিতার বয়স বর্তমানে ১৮ বছর। আইনের ছাত্রী তিনি।

পুলিশের কাছে নির্যাতিতা জানান, বৃহস্পতিবার তিনি বেলাইরে ছোটবেলার বন্ধুর বাড়িতে যান। তখন বন্ধুর মা বাড়িতে ছিলেন না। আঙ্কলই তাঁদের সঙ্গে নিয়ে স্থানীয় একটি সাইবার হাবে নিয়ে যান। সেখানে জোর করে তাঁদের দু’জনকেই মদ্যপান করান তিনি। তারপর গভীর রাতে বাড়ি ফিরে বন্ধুর ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন নির্যাতিতা। ভোর রাতে আঙ্কল তাঁদের ঘরে ঢোকেন। তাঁকে হাত ধরে পাশের ঘরে নিয়ে যান এবং ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ নির্যাতিতার। নির্যাতিতা জানান, মদ্যপানের ঘোর তখনও কাটেনি তাঁর। তাই সে ভাবে প্রতিরোধও করতে পারেননি।

এর পর বন্ধুকে ঘুম থেকে তুলে সবটা জানান তিনি। বাবার এরকম কীর্তি শুনে প্রথমে বেশ ভেঙে পড়েছিলেন ওই কিশোরী। কিছুক্ষন পরে ওই কিশোরীর নির্যাতিতাতে নিয়ে ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে পড়েন। নির্যাতিতার বাড়িতে যান এবং নির্যাতিতার মাকে সবটা জানান। তারপর সেখান থেকে থানায় গিয়ে অভিযোগ জানান নির্যাতিতা। বাবার বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে বয়ান দেন ওই কিশোরীও। ওই দিনই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নির্যাতিতার বাবা একজন ব্যবসায়ী। ব্যবসা সূত্রে তিনি রাজস্থানে রয়েছেন। এই খবর শোনার পর তিনিও বাড়ির উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। দোষীর উপযুক্ত শাস্তির জন্য তিনি বড় আইনজীবীকে নিযুক্ত করতে চান এই মামলায়।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution