• বিকাল ৪:১৮ মিনিট সোমবার
  • ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শরৎকাল
  • ১৯শে আগস্ট, ২০১৯ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ের মেয়ে মুন্নিকে দেশে ফিরিয়ে আনতে বাবার আকুতি সোনারগাঁয়ে আলোঘর পাঠাগারে শোক দিবসের আলোচনা সোনারগাঁয়ে বিশ্ব মৌমাছি উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা পৌরসভায় ছিটানো ঔষধে মরছে না মশা দায় স্বীকার মেয়রের, নতুন ঔষধ কেনার আশ্বাস ইটভাটার মালিকের অবৈধ বিদ্যুৎতে প্রাণ গেল পাহারাদারের ডেঙ্গুজ্বর কাদের সবচেয়ে বেশি হয়? জেনে নিন করণীয় জাদুঘরে বৃক্ষরোপন ও পোনা মাছ অবমুক্তকরন ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে অলিপুরা ব্রিজে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড় আওয়ামীলীগে বিভক্তিতে হাইব্রিট নেতারা মাসিক বেতনে নেতাকর্মী টানছে. কালাম বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন সোনারগাঁ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরামের বন্দরে দুই সাপের লড়াই ঠেকাতে প্রাণ গেল স্যানিটারি মিস্ত্রীর যে কারণে ১৫ আগস্ট খালেদার জন্মদিন পালনে বিরত বিএনপি ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুমের উদ্যোগে মিলাদ মাহফিল ও কাঙ্গালী ভোজ উপজেলা আহবায়ক কমিটির শ্রদ্ধা নিবেদন মোশারফ হোসেন চেয়ারম্যানের উদ্যোগে মিলাদ মাহফিল ও কাঙ্গালী ভোজ জনপ্রতিনিধি ঐক্য ফোরামের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে শ্রদ্ধা নিবেদন কালো টাকার মালিক ও ব্যাংক লুটতরাজরা আওয়ামীলীগ নিয়ন্ত্রন করতে চায়. মাহফুজুর রহমান কালাম লিয়াকত হোসেন খোকার উদ্যোগে শোক দিবসে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন জাতির পিতার ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ শেখ মুজিবুর রহমানের নামে কোরবানী দিলেন মাহফুজুর রহমান কালাম
স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিলেন পুলিশ কনস্টেবল!

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিলেন পুলিশ কনস্টেবল!

মাদারীপুর পৌরসভার টিবি ক্লিনিক সড়কে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে মোক্তার হোসেন নামে এক পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে। নির্যাতিত ওই ছাত্রীকে রোববার রাতে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, মাদারীপুর পুলিশ লাইনের পুলিশ সদস্য মোক্তার হোসেন দীর্ঘদিন থেকে শহরের টিবি ক্লিনিক সড়কে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করেন। কয়েকদিন আগে মোক্তারের গর্ভবতী স্ত্রী গ্রামের বাড়ি চলে যান। এই সুযোগে রোববার রাতে প্রতিবেশী এক স্কুলছাত্রীকে ঘরে ডেকে নেন তিনি। পরে দরজা বন্ধ করে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয়রা বাইরে থেকে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেন। পরে পুলিশ সদস্য মোক্তার হোসেন স্কুলছাত্রীকে ঘরের পেছনের ভেন্টিলেটর দিয়ে বাইরে ফেলে দেন। এতে ওই ছাত্রীর গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

নির্যাতিত ওই ছাত্রী বলে, মোক্তার হোসেন আমাকে তার ঘরে ডেকে নিয়ে দরজা বন্ধ করে আমার সঙ্গে খারাপ কাজ করেছে। পরে স্থানীয়রা টের পেয়ে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দিলে আমাকে তিনি ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দেন। এতে আমার পা ভেঙে গেছে। এর আগে তিনি আমাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মোক্তার হোসেনের কয়েকজন প্রতিবেশী জানান, দীর্ঘক্ষণ ঘরের মধ্যে ওই মেয়েকে নিয়ে থাকায় আমাদের সন্দেহ হয়। পরে আমরা বাইরে থেকে ঘরের দরজা বন্ধ করে দিলে তিনি মেয়েটিকে ভেন্টিলেটর দিয়ে বাইরে ফেলে দেন।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মফিজুল ইসলাম লেলিন জানান, মেয়েটির পায়ের হার ভেঙে গেছে। তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তার সেরে উঠতে কমপক্ষে ৩ মাস সময় লাগবে।

অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য মোক্তার হোসেন বলেন, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। শুধু শুধু স্থানীয়রা ঘরের বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দিয়েছিল। ওই মেয়ের সঙ্গে আমার কিছু হয়নি।

বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে আপনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করলে আপনি পুলিশ সুপার বা ওসির সাহায্য নেননি কেন? এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি কোন উত্তর দিতে পারেননি।

মাদারীপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. বদরুল আলম মোল্লা বলেন, আমি সদর হাসপাতালে গিয়ে মেয়েটির সঙ্গে দেখা করে এসেছি। মেয়েটির পরিবারের সদস্যদের সকল আইনগত সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দিয়ে এসেছি। যে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মৌখিকভাবে অভিযোগ করা হয়েছে তার বিরুদ্ধেও আমরা গুরুত্বসহকারে তদন্ত করছি। তদন্তে দোষ প্রামাণ হলে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution