• দুপুর ১২:৩৯ মিনিট মঙ্গলবার
  • ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শীতকাল
  • ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
স্কুল-কলেজ খোলার সিদ্ধান্ত ৪ ফেব্রুয়ারি পরিস্থিতি দেখে: শিক্ষামন্ত্রী মোশারফ হোসেন অসুস্থ, দোয়া চাইলেন সোহাগ রনি ত্যাগীদের পাশাপাশি সুবিধাবাদি সংস্কারপন্থীরাও জেলা কমিটিতে আহবায়ক পরিবারের তিন সদস্যের রুহের মাগফেরাতের কামনায় ছাত্রলীগের শোকসভা সোনারগাঁয়ে টানা তিনদিন পর ২ করোনা রোগী সনাক্ত আড়াইহাজার ফুটবল টুর্নামেন্টে সোনারগাঁ জামপুর জয়ী সাংবাদিক কন্যাকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ, বাবার গায়ে ফুটন্ত পানি সোনারগাঁয়ে ব্যক্তি উদ্যোগে ড্রেন পরিস্কারের উদ্যোগ সোনারগাঁয়ে ৮৮৩টি মোবাইল ফোনসহ আটক-১০ সোনারগাঁয়ে ৭ টি গৃহহীন পরিবার পেল নতুন ঘর সোনারগাঁয়ে ১৫ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক সোনারগাঁয়ে আজও কোন করোনা রোগী সনাক্ত তান্ডবের বিতর্কিত দৃশ্য ছেঁটে ক্ষমা চাইল অ্যামাজন, তবুও নতুন মামলা সোনারগাঁয়ে আজও কারো দেহে করোনা সনাক্ত হয়নি সোনারগাঁয়ে সাংবাদিকের বাড়িতে চুরি সোনারগাঁয়ে ১৪ কেজি গাঁজাসহ দুই মোটর আরোহী আটক আওয়ামী পরিবারের ৩ সদস্যের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া জামপুরে এমপি খোকার কম্বল বিতরন এমপি সেলিম ওসমানের সুস্থতা কামনায় দোয়া সোনারগাঁও পৌরসভা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে কম্বল বিতরন
বাবার ছবি নিয়ে মাকে খুঁজতে মেয়ের ৩২ বছর পার

বাবার ছবি নিয়ে মাকে খুঁজতে মেয়ের ৩২ বছর পার

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: বাবার ছবি হাতে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় মাকে খুঁজতে পার করছেন ৩২ বছর বয়সের মেয়ে টুম্মা। তারপরও খুঁজে পাননি হারানো মাকে। মায়ের মুখটি জীবনে না দেখার কারণে বাবার ছবি নিয়ে বাবার ছবি নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ছুটি গিয়েছেন টুম্মা। সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে ছবি পোষ্ট করেও মায়ের সন্ধান চেয়েছেন তারপর মিলেনি মায়ের সন্তান। জীবনে একটি বার একটি মুর্হুতের জন্য তার মাকে কাছে পাবার ব্যাকুলতায় ছুটে চলেছেন এখনও তিনি।

মাকে খুঁজে বেড়ানো মেয়ে টুম্মা জানান, তার বাড়ী মুন্সিগঞ্জ জেলার আড়িয়ল গ্রামের টুংঙ্গিবাড়ি থানার বিক্রমপুর এলাকায় তার বাবার বাড়িতে বড় হয়েছেন। যখন তার বুঝার বয়স হয়েছে তখন থেকে তিনি তার বাবা ও পরিবারের কাছ থেকে শুনেছেন তার মা রেনু বেগম জম্মের পর পরই মারা গেছেন। এরপর তার বাবা আরেকটি বিয়ে করে নতুন সংসার করেছেন। তিনি বাবার সাথে থাকলেও তার দাদীর কাছেই মুলত: বড় হয়েছেন। যখন তিনি স্কুল কলেজে গিয়েছেন তখনই শুনেছেন তার নাম রেনু বেগম মারা যাননি তার মা-বাবার বিচ্ছেদের কারণে তার মা বাবাকে ছেড়ে আরেকটা বিয়ে করে সংসার করছে। তিনি যখন জেনেছেন তার মা বেঁচে আছেন। তখন থেকে মাকে পাবার জন্য ব্যাকুল হয়ে দিন পার করছেন। এরপর তার বিয়ে হয়ে যায় বন্দর উপজেলার মালিবাগ এলাকায়। বিয়ের পর তার একটি পুত্র সন্তান জম্ম হওয়ার পরই তিনি বুঝেছেন মা এবং মায়ের ভালবাসা কি জিনিস। সেই থেকেই মাকে পেতে তিনি ছুটে গেছেন বিভিন্ন জায়গায়। তবে বাবার কাছে শুনেছেন তার মায়ের বাড়ি ফরিদপুর জেলায়। চাচার কছে জেনেছেন তার মায়ের বাড়ী ফরিদপুর জেলার মোকলেজপুর গ্রামে। সেখানেও তিনি গিয়েছেন এবং বিভিন্ন মাধ্যমে যোগাযোগ করেছেন সেখানেও পাননি। এরপর তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বাবার ছবি পোষ্ট করে মাকে তার কাছে ব্যাকুল হয়েছেন।

তিনি আরো জানান, তার মাকে কোন দিন দেখেনি এবং তার মাও তাকে দেখেনি তাই বাবার ছবি পোষ্ট করে মাকে খোঁজ করার চেষ্টা করছেন। এসময় তিনি অনুরোধ করেন যদি তার মা বেঁচে থাকেন তাহলে তার ০১৮৬৩-৯৬২৮৭৭ ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution