দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহন যোগ্য নয়।

  • সকাল ১১:১৯ মিনিট শুক্রবার
  • ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : গ্রীষ্মকাল
  • ২৪শে মে, ২০১৯ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে মটর সাইকেলের ধাক্কায় শিশু নিহত আগামীকাল থেকে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নে স্মার্টকার্ড বিতরণ শুরু মেঘনায় নদী ভরাটের অভিযোগে আমান গ্রুপের ২ কর্মকর্তা আটক সোনারগাঁয়ে বখাটেদের উত্যক্ত্যে মাদ্রাসায় যেতে পারছেনা এক ছাত্রী সোনারগাঁয়ে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আলম আটক সোনারগাঁয়ে কাঠমিস্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করেছে ইউপি চেয়ারম্যান সোনারগাঁয়ে স্কুল পড়ুয়া ছাত্রীর আত্মহত্যা মেঘনা গ্রুপের জেটি ও ইউনিক গ্রুপের বালু অপসারণ করেছে বিআইডব্লিউটিএ সোনারগাঁয়ে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক সোনারগাঁও পৌরসভায় পুুকুরে বিষ ঢেলে ২ লাখ টাকার মাছ নিধন আল মোস্তফার সাথে কপাল পুড়লো ক্ষুদ্র অবৈধ স্থাপনাকারী ব্যবসায়ীদের সোনারগাঁয়ে এসআই ফরিদকে গাড়ীচাপা দিয়ে হত্যার প্রধান আসামী আটক সোনারগাঁয়ে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী কাসেম আটক স্মার্টকার্ড সংগ্রহ করলেন চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম সোনারগাঁয়ে আল মোস্তফার গ্রুপের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বিআইডব্লিউটিএ সোনারগাঁয়ে নদী তীরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান হুয়াওয়ে ডিভাইসে অ্যান্ড্রয়েড বন্ধ কাঁচপুর, মেঘনা ও গোমতি সেতুর নির্মাণ ব্যয় বাঁচিয়ে ৭৩৮ কোটি টাকা ফেরত দিল জাপান বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নে স্মার্টকার্ড বিতরন শুরু ২৪ মে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিলেন পুলিশ কনস্টেবল!
সিম কার্ডের মতো এবার হ্যান্ডসেটও নিবন্ধন করতে হবে

সিম কার্ডের মতো এবার হ্যান্ডসেটও নিবন্ধন করতে হবে

নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম: মোবাইলের সিম কার্ডের মত হ্যান্ডসেটও নিবন্ধনের আওতায় আনার কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিটিআরসি)।

মোবাইল ফোন কেন্দ্রিক অপরাধ কমাতে এবং হ্যান্ডসেট চুরি, অবৈধ আমদানি ও নকল হ্যান্ডসেট বিক্রিও বন্ধে এমন উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। খবর বিবিসি বাংলার

জানা গেছে, বাংলাদেশে যে হ্যান্ডসেটগুলো বৈধভাবে আমদানি হচ্ছে এবং স্থানীয়ভাবে যে মোবাইলগুলো অ্যাসেমব্লিং করা হচ্ছে বা উৎপাদিত হচ্ছে সেগুলোর ১৫ ডিজিটের স্বতন্ত্র আইএমইআই নম্বর নিয়ে একটি বৈধ ফোনের ডাটাবেজ তৈরি করা হবে। এতে মানুষ যখন মোবাইল ফোন কিনতে যাবেন তখন তারা সেই সেটটির আইএমইআই নম্বর দিয়ে জানতে পারবেন যে তাদের সেটটি বৈধ নাকি অবৈধ।

এছাড়া বিটিআরসি তাদের ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্ট্রার (ইআইআর) খসড়া নির্দেশনা- ইআইআর তৈরি করবে। যার আওতায় দেশের প্রতিটি সক্রিয় সেটকে নিবন্ধনের আওতায় আনা হবে।

এরই মধ্যে বিশ্বের বড় বড় কোম্পানির ইআইআর যাচাই করে বাংলাদেশের জন্য প্রযোজ্য ২৪ পাতার একটি প্রতিবেদন তৈরি করেছে বিটিআরসি। প্রতিবেদনটি যাচাইয়ের জন্য মোবাইল অপারেটরগুলোর কাছে পাঠানো হয়েছে।

সেখানে যদি কোন সংশোধনের প্রয়োজন তাহলে সেটা সম্পন্ন করে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য প্রতিবেদনটি বিটিআরসির কমিশনে পাঠানো হবে। খসড়া নির্দেশনাটিকে চূড়ান্ত হলে প্রত্যেক অপারেটরকে তাদের নেটওয়ার্কের আওতায় থাকা প্রতিটি সক্রিয় হ্যান্ড-সেটের ডাটাবেজ তৈরির সময় বেঁধে দেয়া হবে।

প্রথম পর্যায়ে গ্রাহকদের হ্যান্ডসেট নিবন্ধনের জন্য কোথাও যেতে হবেনা। নিজেদের নিবন্ধিত সিমটি সেটে সক্রিয় করলেই সেটটি ওই নামে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিবন্ধন হয়ে যাবে।

ওই সেটে যদি দ্বিতীয় সিম ব্যবহার করতে হয় তাহলে সেটাও অবশ্যই একই নামে নিবন্ধিত সিম হতে হবে। এছাড়া কারও যদি একাধিক সেট থাকে তাহলে তিনি দ্বিতীয় সেটটিতে যে নামের সিমটি সক্রিয় করবেন, সেই নামেই সেটটি নিবন্ধিত হয়ে যাবে। তখন ওই সেটে অন্য নামের কোন সিম চলবেনা। অর্থাৎ একটি সেট একজনের নামেই নিবন্ধিত হবে। এভাবে একেকটি অপারেটরের আলাদা ডাটাবেজ সম্পন্ন হবে।সুত্র জাগো নিউজ

এএ

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution