• রাত ১২:৩৮ মিনিট শনিবার
  • ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শরৎকাল
  • ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
জিকে শামীম নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে নাই জি কে শামীমের বিতর্কিত কর্মকান্ডে ছিলেন সোনারগাঁয়ের একাধিক ব্যক্তি সিনহা গার্মেন্টে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষ: ৪ শতাধিক শ্রমিকের বিরুদ্ধে মামলা পলাশকে গুলি করে হত্যার হুমকী দিয়েছিল জি.কে শামীম! হত্যা মামলার আসামীরা জামিনে এসে বাদির ঘর পুড়িয়ে দিল বিপুল টাকাসহ যুবলীগ নেতা জি কে শামীম আটক সোনারগাঁয়ের ছেলে জি কে শামীম যুবদল থেকে যু্বলীগে, চলেন ৬জন দেহরক্ষী নিয়ে হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে পরিবর্তন আনুন খাদ্যভ্যাসে সোনারগাঁ রয়েল প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের উদ্বোধন শনিবার সিনহা গার্মেন্ট শ্রমিকদের সমাবেশ বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি ও সুস্থতা কামনায় দোয়া সোনারগাঁ রয়েল স্পেশালাইজড হসপিটারে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মৃত্যু সোনারগাঁয়ে ২শত ৭০পিস বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী জাহিদুল আটক ডাকাতি মামলায় নয়ন বন্ড ২ দিনের রিমান্ডে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে সোনারগাঁয়ে যত্রতত্র স্পিড ব্রেকার, ঘটছে দূঘর্টনা ৫ টাকায় কিডনি ক্লিন! জেনে নিন ঘরোয়া উপায় আল্লামা আহমদ শফি’র আগমন উপলক্ষে কয়েক হাজার মুসল্লি’র সমাগম বারদীতে লিয়াকত হোসেন খোকাকে ফু দিয়ে দোয়া করলেন আল্লামা আহমদ শফি খালেদা জিয়া এখন আফসোস করতেছেন..আল্লামা আহমদ শফি মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে স্বজনদের অবস্থান
ইমাম হত্যা ভিন্নখানে প্রভাবিত করতে চিরকুটে যা লিখেন ঘাতক ওহিদুজ্জামান

ইমাম হত্যা ভিন্নখানে প্রভাবিত করতে চিরকুটে যা লিখেন ঘাতক ওহিদুজ্জামান

নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম: সোনারগাঁ উপজেলার মল্লিকপাড়া জামে মসজিদের ইমাম দিদারুল ইসলামকে জবাই করে হত্যার ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করতে মৃত ইমামের পাশে একটি চিরকুট লিখে ফেলে যান ঘাতক ওয়াহিদুজ্জামান। ঘাতক ওয়াহিদুজ্জামান ইমামকে হত্যার আগে অনেক চিন্তা করে এ চিরকুটটি লিখার সিদ্ধান্ত নেন। তিনি হত্যা পরিকল্পনা করার পর চিন্তা করেন দেশে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষকে হত্যা করছে। যা পুলিশ অনেক হত্যার কিনারা করতে পারে না। সে রকম ইমাম দিদারুলকে হত্যা করে একটি জঙ্গি সংঘটনের নাম লিখে চিরকুটটি লাশের পাশে ফেলে গেলে পুলিশ তাকে ধরতে পারবে না।

সোনারগাঁ থানার উপ-পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ জানান, গত বুধবার (২১ আগস্ট) রাতে মল্লিকপাড়া মসজিদের ইমাম দিদারুল ইসলাম নামের এক ইমামকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের পাশে একটি চিরকুট দেখতে পাই। চিরকুটটি হাতে নিয়ে দেখি সেটাতে লেখা রয়েছে, প্রিয় এলাকাবাসী ও প্রশাসন ভাইরা A মসজিদের ইমাম হিজবুর তাওহিদের সদস্য, যে আমাদের দল থেকে নগদ অর্থ অস্ত্র ও তথ্য নিয়া পালিয়ে আসছে তাই তাকে আমরা মেরে ফেলেছি। R ১ জনকে নতুন পেয়ে ধরে নিয়াছি তাকে ছাড়াতে হলে ০১৯৪৪-৩৩৪০৬৭ এবং বিকাশ করুন, ২,০০০০০ টাকা। তা না হলে ৫ দিনের মধ্যে মসজিদের দোকানের সামনে তার লাশ পাওয়া যাবে- ইতি হিজবুল তাওহিদ। এ চিরকুটটি পাওয়ার পর আমাদের সন্দেহ বেড়ে যায়। গ্রামের লোক বলেছে হুজুর এখানে একা ছিল কিন্তু চিরকুটে লেখা ২জন তাহলে এর আগে গতকাল কেউ হয়তো এখানে ছিল। সেই সুত্র ধরে ও নিহত ইমামের বাড়ির ভাই ও আত্মীয় স্বজনদের কাছ থেকে টাকা নেয়ার বিষয়টি আমলে নিয়ে কাজ শুরু করি এবং হত্যাকান্ড ঘটার ৬ দিনের মাথায় গতকাল রাতে খুলনা থেকে ঘাতক ওয়াহিদুজ্জামানকে আটক করি। আটক করার পর জিজ্ঞেসাবাদে ওয়াহিদুজ্জামান হত্যার কথা স্বীকার করে।

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution