• রাত ১০:১২ মিনিট সোমবার
  • ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : গ্রীষ্মকাল
  • ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁ থানার ওসি রফিকুল ইসলামকে অবসরে পাঠাল সরকার ইফতারীর আগে মুক্তিযোদ্ধার ছেলেকে কুপিয়ে জখম করলো হাবু ডাকাত জাপা সভাপতি ও চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ’কে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ উপজেলার জাতীয়পার্টির সভাপতি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ আটক সোনারগাঁয়ে আরো ১৫ জনের দেহে করোনা সনাক্ত ৫ম বারেও করোনা পজেটিভ, সোনারগাঁবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন মান্নান মামুনুল ইস্যুতে আটক কাউন্সিলর তপন ২ দিনের রিমান্ডে ফেলা যাওয়া টাকা ও টুপির মালিককে খুঁজছে ফার্মেসী মালিক সোনারগাঁয়ে ভেজাল খাদ্য তৈরির দায়ে গ্রেফতার ১ রোজা রেখে চুল ও নখ কাটা যাবে? না.গঞ্জের সেই সিংহামের হাতে বন্দি হলেন মামুনুল রোযাও কমছেনা তরমুজ ও আনারসের দাম সোনারগাঁও পৌরসভার কাউন্সিলর তপন গ্রেফতার লক ডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশ সোনারগাঁয়ে করোনা আক্রান্ত ১৪, মৃত্যু ১ সুস্থ ৪০ সোনারগাঁয়ে করোনা আক্রান্ত ১৪, মৃত্যু ১ সুস্থ ৪০ চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহাগ রনি’র উদ্যোগে মাস্ক ও ইফতারি বিতরন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযুদ্ধা ওবায়দুল হকের দাফন সোনারগাঁয়ে একদিনে করোনায় মৃত্যু ৩, আক্রান্ত ১১ সনমান্দিতে দুই ডাকাত আটক
সোনারগাঁয়ে মিন্টু হত্যা মামলার দুই আসামীকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ

সোনারগাঁয়ে মিন্টু হত্যা মামলার দুই আসামীকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

সোনারগাঁ উপজেলার ছোট সাদিপুর গ্রামে কলেজ ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়ায় ছাত্রীর মামাতো ভাই সুলতান মিন্টু হত্যার ঘটনায় গত বুধবার রাতে দুই আসামীকে গ্রেফতার করে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতের প্রেরণ করেছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়ে মামলার প্রধান আসামী জাকির হোসেনের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে তাদের দুজনকে গ্রেফতার করা হয়।

সোনারগাঁ থানার ওসি (তদন্ত) জসিমউদ্দিন জানান, চলতি বছরের ১২ জানুয়ারী উপজেলার ছোট সাদিপুর গ্রামে কলেজ ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়ায় ছাত্রীর ভাই সুলতান মিন্টু। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে একই এলাকার বন্দেরা গ্রামের রফিকের ছেলে ও মামলার প্রধান আসামী জাকির হোসেন ও সারোয়ার হোসেনের ছেলে আলো মিয়াসহ কয়েকজন বখাটে মিন্টু মিয়াকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। আহত মিন্টু মিয়া তিনদিন চিকিৎসার পর হাসপাতালে মারা যায়। এ ঘটনার ৩ দিন পর সুলতান মিন্টুর বাবা সুরুজ প্রধান বাদি হয়ে বন্দেরা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে জাকির হোসেনকে প্রধান আসামী করে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে ৮/১০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কক্সবাজার জেলা পুলিশ অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার পশ্চিম গোমতলী গ্রামের নদীর মাঝে শামপান নৌকায় ঘুমন্ত অবস্থায় প্রধান আসামী জাকির ও আলো মিয়াকে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে অনেকদিন পালিয়ে থাকার পর গত বুধবার রাতে সাদিপুর গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে সাইফুল ইসলাম ও একই গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে সাজু কে গ্রেফতার করে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution