• সকাল ১১:২৬ মিনিট বুধবার
  • ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : হেমন্তকাল
  • ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে ১২ জনের নমুনায় ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত, মোট সনাক্ত ৬৮৭ এমপি খোকাকে নিয়ে কুরুচিপুর্ণ বক্তব্য প্রদানকারী জাহাঙ্গীরকে অব্যাহতি এমপি’র বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির প্রতিবাদ সভা সোনারগাঁয়ে ঈদগাহর জমি দখলের পায়তারা, বিক্ষোভ মিছিল সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগকে শোকজ ! কলাপাতা রেষ্টুরেন্টের নতুন সংযোজন জন্মদিনের কেক সোনারগাঁয়ে ৮ জনের নমুনায় ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত আমি বিএনপি করি স্যার জানে ফোনালাপে অধ্যক্ষ সুলতান মিয়া আমি নারী তাই মেয়র নির্বাচিত হলে নারী উন্নয়নর কাজ করবো.. ঝরা বির্তক পিছু ছাড়ছে না নাম ফলকের তড়িঘড়ি করে লাগানো হলো সোনারগাঁও জি আর ইনিষ্টিটিউশনের নাম ফলক এ বছর হচ্ছে না সোনারগাঁও পৌরসভা নির্বাচন শ্রমিকলীগ সভাপতি মন্টুর আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া সোনারগাঁয়ে গোরস্থানের জমি দখলের পায়তারার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সোনারগাঁয়ে দুটি দোকানে আগুন, ৪০ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই জমি লিখে না দেয়ায় আলাউদ্দিন বাহিনীর তান্ডব, বাড়িঘর ভাংচুর আহত ৬ পৌর মেয়র পদপ্রার্থী ছগীর আহম্মেদ করোনায় আক্রান্ত প্রতিবাদ মূখর সোনারগাঁয়ের রাজনীতি সোনারগাঁয়ে আরো ১ জনের দেহে করোনা সনাক্ত, মোট সনাক্ত ৬৭৬ সোনারগাঁয়ে ছাত্রদলের দোয়া মাহফিল
সোনারগাঁয়ে ৪ জনকে পিটিয়ে আহত করার ঘটনার মূল হোতা কিরন আটক

সোনারগাঁয়ে ৪ জনকে পিটিয়ে আহত করার ঘটনার মূল হোতা কিরন আটক

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে জামপুর ইউনিয়নের জামপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই পরিবারের চারজনকে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় প্রধান আসামী কিরনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার বিকেলে উপজেলার জামপুর গ্রাম থেকে মাদক ব্যবসায়ী কিরনকে গ্রেফতার করা হয়। এদিকে কিরনকে আটকের পর সে বাদী পক্ষের সবাইকে তাদের বাড়ীঘর আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়ার ও তাদেরকে প্রাণনাশের হুমকী দেয় বলে জানিয়েছে বাদীর পরিবার। এ ঘটনায় বাদীর পরিবার আশংকাজনক অবস্থায় রয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের জামপুর গ্রামের কমলা বেগমের সঙ্গে একই গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী কিরনের দীর্ঘ দিন ধরে পূর্ব শত্রুতার বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে শুক্রবার রাতে মাদক ব্যবসায়ী কিরনের নেতৃত্বে মেহেদি, শাহজামালসহ ৮-১০ জনের একটি বাহিনী দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কমলার বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাকে ও তার ভাই আনোয়ার হোসেনকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। পরে তাদের চিৎকার শুনে তার স্বামী আম্বর আলী ও আরেক ভাই ইকবাল হোসেন এগিয়ে আসলে তাদেরকেও পিটিয়ে করে। এ ঘটনায় আহত কমলা বেগম বাদি হয়ে শনিবার সকালে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর গতকাল রোববার বিকেলে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনার প্রধান আসামী কিরনকে তার বাড়ীর সামনে থেকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় ঘটনার অপর আসামীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোরশেদ আলম পিপিএম জানান, পুলিশ কিরণ নামে এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে। বাকিদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution