• রাত ৮:২৩ মিনিট সোমবার
  • ১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শীতকাল
  • ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
গণহারে টিকা না দেয়ার অভিযোগ স্বাস্থ্য কর্মী ফাতেমার বিরুদ্ধে অর্ধেক জনবল নিয়ে চলছে সোনারগাঁয়ের সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সোনারগাঁয়ে একদিকে করোনা সনাক্তের সংখ্যা ৬৬% সোনারগাঁয়ে মেম্বার পরাজিত প্রার্থীর বাড়িতে হামলা সোনারগাঁয়ে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ এনে যুবকের পুরুষাঙ্গ কাটলেন প্রতিবেশীরা সোনারগাঁয়ে বেদে, জেলে ও ঋষি সম্প্রদায়ের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ নির্বাচনটা ছিল অনেক গভীর ষড়যন্ত্রের: মেয়র আইভী ফুটপাতে চাঁদাবাজীর অভিযোগে গ্রেপ্তার ২ সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত পিপিএম সেবা পুরস্কার পেলেন সোনারগাঁ থানার ওসি সোনারগাঁয়ে আজও ৩৭ শতাংশ মানুষের দেহে করোনা সনাক্ত আইভীতে স্বস্থি উপজেলা আওয়ামীলীগে সোনারগাঁয়ে দুই এসআইয়ের মৃত্যু ও আসামী পালানোর ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন সনমান্দি ইউপির নব-নির্বাচিত সদস্য দেলোয়ারের শপথ গ্রহন এবারও হচ্ছে না সোনারগাঁও জাদুঘরের মাসব্যাপী লোকজ মেলা সোনারগাঁয়ে করোনা রোগীর সংখ্যা এক লাফে বেড়ে ৫১% সোনারগাঁয়ে কীটনাশক পানে কিশোরের আত্মহত্যা নব নির্বাচিত মেয়রকে কায়সারের শুভেচ্ছা ৩ দিনেও গ্রেফতার হয়নি ২ এস আই হত্যার আসামী আলমগীর ৪০ দেশের বুথ থেকে টাকা তুলে বাংলাদেশে এসে ধরা
উচ্চ শব্দে গান-বাজনা নিষিদ্ধ করলো চিলারবাগ পঞ্চায়েত কমিটি

উচ্চ শব্দে গান-বাজনা নিষিদ্ধ করলো চিলারবাগ পঞ্চায়েত কমিটি

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে উচ্চ শব্দে গান-বাজনা নিষিদ্ধ করেছেন সোনারগাঁও পৌরসভার চিলারবাগ জামে মসজিদের পঞ্চায়েত কমিটি।

আজ (৭ জানুয়ারী) শুক্রবার জুম্মার নামাযের আগে এক জরুরী ঘোষনায় চিলারবাগ জামে মসজিদ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি সভাপতি হুমায়ুন কবির প্রধান গান বাজনা নিষিদ্ধ ঘোষনা করেন। ফলে আজ থেকে চিলারবাগ জামে মসজিদ সমাজে কোন সামাজিক কিংবা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উচ্চ শব্দে গান-বাজনা বন্ধ থাকবে। তবে কেউ যদি গান বাজনা করতে চান তাহলে ব্যক্তিগত ভাবে তার ঘর এবং বাড়ির মধ্যে সীমাবদ্ধ থেকে করতে পারবেন বলেও তিনি জানান।

ঘোষনায় চিলারবাগ জামে মসজিদ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি হুমায়ুন কবির প্রধান বলেন, গান-বাজনা নাচ-গান আমাদের ইসলাম সমর্থন করে না। কিন্তু সাম্প্রতিক কালে দেখা যাচ্ছে কোন সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোতে আমরা মুসলমানরা গান-বাজনার নামে বেহাপনা শুরু করি। বিশেষ করে বিয়ের গায়ে হলুদ কিংবা সুন্নতে খতনা আসলে আমরা ইসলাম বিরোধী গান-বাজনা নাচগান শুরু করি। নাচ-গানের সময় এমন সব সাউন্ড সিষ্টেম ব্যবহার করা হয় যেটার শব্দে আশপাশের এলাকা ছেড়ে কয়েক গ্রাম ছড়িয়ে পড়ে। এরকম শব্দ দূষনের কারনে একদিকে যেমন পরিবেশের মারাত্মক শব্দ দুষণ হচ্ছে তেমনি আমরা ইসলামে বিরুদ্ধে গিয়ে বেহাপনা শুরু করিছি। অনেক সময় দেখা যায় যেখানে অনুষ্ঠান হচ্ছে তার আশপাশে বয়স্ক মানুষ, রোগী, শিশু ও শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া করছে। উচ্চ শব্দের কারণে তাদের অনেক সমস্যার সম্মূখিন হতে হচ্ছে। এছাড়া গান-বাজনা নাচানাচি মুসলমানদের জন্য গুনাহের কাজ। আমরা মুসলমান হয়ে জেনে শুনে দিনে দিনে এরকম বেহায়াপনাকে এমন ভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি যা আমাদের সমাজকে নীতি নৈতিকতার দিক অক্ষয়ের দিকে নিয়ে যাচ্ছে এবং আমাদের আগামী প্রজম্মকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। তাই আমরা সমাজবাসী বসে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আজ থেকে আমাদের সমাজে সকল ধরনের গায়ে হলুদ ও অন্য কোন সামাজিক অনুষ্ঠানে উচ্চ শব্দে গান-বাজনা করে আশপাশের লোকদের ক্ষতি করে এরকম বেহায়াপনা ও শব্দ দূষন বন্ধ থাকবে। আর যদি কেউ পঞ্চায়েত কমিটির নিষেধ অমান্য করে উচ্চ শব্দে গান-বাজনা করেন তাহলে আমরা সমাজবাসী তার অনুষ্ঠানকে বয়কট করবো। প্রয়োজন হলে আমরা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে তার বিরুদ্ধে শাস্তির ব্যবস্থা করবো।   


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution