• সন্ধ্যা ৬:৪৫ মিনিট সোমবার
  • ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শীতকাল
  • ২৫শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
আহবায়ক পরিবারের তিন সদস্যের রুহের মাগফেরাতের কামনায় ছাত্রলীগের শোকসভা সোনারগাঁয়ে টানা তিনদিন পর ২ করোনা রোগী সনাক্ত আড়াইহাজার ফুটবল টুর্নামেন্টে সোনারগাঁ জামপুর জয়ী সাংবাদিক কন্যাকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ, বাবার গায়ে ফুটন্ত পানি সোনারগাঁয়ে ব্যক্তি উদ্যোগে ড্রেন পরিস্কারের উদ্যোগ সোনারগাঁয়ে ৮৮৩টি মোবাইল ফোনসহ আটক-১০ সোনারগাঁয়ে ৭ টি গৃহহীন পরিবার পেল নতুন ঘর সোনারগাঁয়ে ১৫ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক সোনারগাঁয়ে আজও কোন করোনা রোগী সনাক্ত তান্ডবের বিতর্কিত দৃশ্য ছেঁটে ক্ষমা চাইল অ্যামাজন, তবুও নতুন মামলা সোনারগাঁয়ে আজও কারো দেহে করোনা সনাক্ত হয়নি সোনারগাঁয়ে সাংবাদিকের বাড়িতে চুরি সোনারগাঁয়ে ১৪ কেজি গাঁজাসহ দুই মোটর আরোহী আটক আওয়ামী পরিবারের ৩ সদস্যের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া জামপুরে এমপি খোকার কম্বল বিতরন এমপি সেলিম ওসমানের সুস্থতা কামনায় দোয়া সোনারগাঁও পৌরসভা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে কম্বল বিতরন সোনারগাঁয়ে মহাসড়কের পাশ থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার সোনারগাঁয়ে ১৫ জনের নমুনায় কারো দেহে করোনা সনাক্ত হয়নি এম এ রশিদকে ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যানের শুভেচ্ছা
নব্য স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রনির মদদে চৈতীর বর্জ্য খালে ফেলার অভিযোগ

নব্য স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রনির মদদে চৈতীর বর্জ্য খালে ফেলার অভিযোগ

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

সোনারগাঁ উপজেলার পৌরসভার টিপরদী এলাকায় অবস্থিত চৈতী কম্পোজিট থেকে বিষাক্ত বর্জ্য নির্গমনে প্রত্যেক্ষ পরোক্ষ ভাবে পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোতালেব মিয়ার ভাগিনা নব্য স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রিয়াদ হোসেন রনি জড়িত বলে অভিযোগ করেছেন মেয়র সাদেকুর রহমান ভুইয়া ও স্থানীয়রা। রনি ও তার মামাদের প্রত্যেক্ষ মদদে চৈতী কম্পোজিট দীর্ঘদিন যাবৎ বিষাক্ত বর্জ্য টিপরদীর কয়েকটি খালে ফেলে। সেই বর্জ্য টিপরদী খাল দিয়ে প্রবাহিত হয়ে পৌরসভা, মোগরাপাড়া, পিরোজপুর, সনমান্দি ইউনিয়নের কয়েকটি খালে প্রবাহিত হয়ে মেনীখালি নদী, ব্রক্ষ্মপুত্র নদ ও মেঘনা নদীতে গিয়ে মিশে নদীর পানি কালো রং ধারন করে বিষাক্ত হয়ে পড়েছে।

এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, পৌরসভার টিপরদী এলাকার সেলিম মিয়া ছেলে রিয়াদ হোসেন রনি একসময় মামাদের সর্ম্পকের কারণে বিএনপির ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল। এরপর আওয়ামীলীগ ২বার ক্ষমতায় আসার পর সোনারগাঁয়ে জাতীয়পার্টির সাংসদ নির্বাচিত হওয়ার রনি জাতীয়পার্টিতে যোগ দিয়ে চৈতী কম্পোজিট, এসিআইসহ বিভিন্ন মিল-ফ্যাক্টরীতে ঠিকাদারী ব্যবসা নিয়ন্ত্রন শুরু করে। এরপর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সোহাগ রনির হাত ধরে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। সেখান থেকে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন রবিনের হাত ধরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের যোগদান করেন। এর পর থেকে আওয়ামীলীগের লোক হয়ে রনি একটি বাহিনী গড়ে তোলে। সে বাহিনীর নিয়ে পৌরসভার এলাকার একের পর এক মিল-ফ্যাক্টরী নিয়ন্ত্রনে নিতে থাকেন। তবে, এলাকাবাসী অভিযোগ রিয়াদ হোসেন রনি সরকার বদলের পর পর সেও তার অবস্থান বদল করে ক্ষমতায় শীর্ষ স্থানে থাকার চেষ্টা করেছেন। তার ক্ষমতার বদৌলতে তার মামা মোতালেব মিয়া, তার ভাই হুমায়ন আলমগীর বিএনপির একনিষ্ট কর্মী হয়েও আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে পুরো পৌরসভা নিয়ন্ত্রন করছেন। এমনকি রিয়াদ হোসেন রনি ও তার মামা মোতালেব মিয়া চৈতী কম্পোজিটের হয়ে গোপন সুয়ারেজের মাধ্যমে বিষাক্ত বর্জ্য বিভিন্ন খালে ফেরতে সাহায্য করেছেন। এজন্য কোম্পানীর কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ নেন। এছাড়া চৈতীর শ্রমিক অসন্তোষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন কর্মকান্ডে রয়েছে তার একচ্ছত্র অধিপত্য।

স্থানীয়রা জানান, চৈতী কম্পোজিটের বিষাক্ত বর্জ্যে যখন উপজেলা ১টি পৌরসভা ও ৩টি ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ভুগছেন এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সোনারগাঁয়ের সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা গত বৃহস্পতিবার বিকালে সরেজমিনে টিপরদী এলাকায় ঘুরে এর সত্যতা পেয়ে চৈতী কম্পোজটের বিষাক্ত পানি নির্গমনের পীটটি বালু দিয়ে ভরাট করে বন্ধ করে দেন। এর পরের দিন রনি, হুমায়ন, শাহজালাল, জাহাঙ্গীর ও আলমগীরের নেতৃত্বে দুই শতাধিক লোক সাংসদের বন্ধ করা বজ্যের পীটটি খুলে দেন। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে সাংসদ পরের দিন সিমেন্ট দিয়ে সেই পীটটি বন্ধ করে দেন। স্থানীয়রা আরো জানান, রিয়াদ হোসেন রনি ক্ষমতার পালা বদলের সাথে সাথে নিজেকে বিভিন্ন দলের লোক দাবি করে ক্ষমতার অপব্যবহার করে জোড়পূর্বক ভাবে চৈতী কম্পোজিটকে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে তার উপর চালানো হয় হামলা-মামলা। রনি ও তার মামাদের ভয়ে এলাকাবাসী মূখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা।

এ ব্যাপারে রিয়াদ আহম্মেদ রনির সাথে মোবাইল একাধিকবরা চেষ্টা করার পরও তিনি ফোনটি রিসিভ করেনি।

সোনারগাঁ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন রবিন জানান, সে পৌরসভা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিল।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ পৌরসভার মেয়র সাদেক হোসেন ভুইয়া জানান, পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও তার ভাগিনা রনি চৈতী কম্পোজিট থেকে বিশেষ সুবিধা নিয়ে চৈতীর বিষাক্ত তরল বর্জ্য খাল-বিল ও পুকুর জলাশয়ে ফেলে পরিবেশ দুষিত করছে। তারা একজন সাবেক চেয়ারম্যানের কথায় এমপির বন্ধ করা বর্জ্যের পীটের বালিও অপসারন করেছে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution