• রাত ১০:১৪ মিনিট রবিবার
  • ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : গ্রীষ্মকাল
  • ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
আগামী শুক্রবার সোনালী অতীত বনাম প্রেস ক্লাবের প্রীতি ফুটবল ম্যাচ সোনারগাঁয়ে র‍্যাবের অভিযানে ৫০ কেজি গাঁজা উদ্ধার মাদ্রাসার নতুন ভবন পরিদর্শনে এমপি খোকা বেঙ্গালুরুতে তরুণীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের দায়ে ১১ বাংলাদেশির কারাদণ্ড সোনারগাঁয়ে বিশ্ব মেডিটেশন দিবস পালন সাদিপুরে শ্রমিকলীগের পুর্ণমিলনী মোগরাপাড়া ইউপি নির্বাচনে ২ ইউপি সদস্যের মনোনয়নপত্র বাতিল জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে একই পরিবারের ৩জনকে পিটিয়ে জখম বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্ণামেন্ট ফাইনালে বৈদ্যেরবাজার ইউপি ১-০ গোলে জয়ী বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টে নোয়াগাঁওকে হারিয়ে বৈদ্যেরবাজার ফাইনালে সোনারগাঁও পৌরসভাকে হারিয়ে জামপুর ফাইনালে আলেমদের তালিকার প্রতিবাদে সোনারগাঁয়ে জামায়াতের বিক্ষোভ আলেমদের তালিকার প্রতিবাদে সোনারগাঁয়ে জামায়াতের বিক্ষোভ কাঁচপুরে মিরাজ নামের ১২ বছরের কিশোর নিখোঁজ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুনামেন্টে জামপুর ইউনিয়ন ৩ – ২ গোলে জয়ী যেতে_যেতে_পথে দরগাবাড়ি_নহবতখানা মনোনয়ন জমা দিয়ে জুতা পায়ে শহীদ মিনারে নৌকার পরিবার দাবি, নৌকা না পেলেই বিদ্রোহী, এড. সামসুল ইসলাম মোগরাপাড়া ইউপি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন যারা শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে আহবায়ক কমিটি, যুবলীগ ও শ্রমিক লীগের শ্রদ্ধা নিবেদন
নিজে না খেয়ে গবীরদের মুখে হাসি ফোটান গিয়াসউদ্দিন

নিজে না খেয়ে গবীরদের মুখে হাসি ফোটান গিয়াসউদ্দিন

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: গিয়াসউদ্দিন (৬৫) সোনারগাঁও  পৌরসভার বালুয়াদিঘিরপাড় এলাকার বাসিন্দা। পেশায় একজন ফুটপাতে সবজি বিক্রেতা। ১ মেয়ে ৩ ছেলে স্ত্রী নিয়ে তার বসবাস। ছেলে মেয়ে সবাইকে বিয়ে দিয়ে তিনি স্ত্রী নিয়ে ছেলেদের সঙ্গে বসবাস করেন। চার ছেলের যে যার সংসার নিয়ে ব্যস্ত হলেও গিয়াসউদ্দিন নিজেই নিজের ব্যবসা পরিচালনা করে সংসার চালান। সংসার চালিয়ে বছরে যা সঞ্চয় করে তা দিয়ে প্রতি ঈদুল ফিতরে এলাকার গরীব দু:খীদের মাঝে ঈদ সামগ্রী তুলে দেন। এতেই তার সুখ।

গিয়াসউদ্দিন জানান, তিনি পৌরসভার আদমপুর বাজারে কাঁচামালের ব্যবসা করেন। রাস্তার পাশে খোলা আকাশের নিচে তার ব্যবসা। সেখানে তিনি সকালে বেলা শাক সবজি বিক্রি করেন। এরপর সারাদিন মৌসুমী ফল বিক্রি করেন। সারাদিনে যা আয় হয় তা দিয়ে তার স্বামী স্ত্রী’র সংসার ভালো ভাবে চলে যায়। তিনি জানান, তার চারটি ছেলে এক মেয়েসহ স্ত্রী নিয়ে সংসার ছেলেরা সবাই বিবাহ করে যার যার সংসার নিয়ে ব্যস্ত। মেয়েটাকেও বিয়ে দিয়ে দিয়েছেন। ছেলেরা সবাই স্বল্প আয়ের কাজ করেন। সে জন্য গিয়াসউদ্দিন নিজে ব্যবসা করেই সংসার চালান। সাথে ছেলেদের দেখাশোনা করেন। তবে ছেলেরা তাকে কাজ করতে নিষেধ করলেও তিনি শুনেন না। তিনি বলেন আমি এখনও কর্ম করে খেতে পারি সে জন ব্যবসা করি। যখন পারবোনা তখন ছেলেদের সংসারে যাবো। ব্যবসা করে তিনি যা রোজগার করেন তার একটি অংশ রেখে দেন এলাকার গরীব অসহায়দের জন্য। প্রতি বছর ঈদ উল ফিতর আসলে সংসার চালিয়ে যে টাকা সঞ্চয় করেন সে টাকা দিয়ে তিনি এলাকার অসহায় পরিবারের লোকজনকে ঈদ সামগ্রী প্রদান করেন। এবারও তিনি এলাকার অসহায় ৫০জন অসহায় পরিবারের মাঝে চাল, চিনি সেমাই, তেল ও লবন বিতরন করে আসছেন। গিয়াসউদ্দিন জানান, গত বছর তিনেক আগে তার মা মারা যান। তার মা মারা যাওয়ার পর থেকেই তিনি তার ব্যবসা থেকে যে টাকা সঞ্চয় করেন সে টাকা দিয়ে এলাকার লোকদের সেবা করে আসছেন।

সরেজরিমনে বৃহস্পতিবার দুপুরে দেখা যায় গিয়াস উদ্দিনের বাড়ির অঙ্গিনায় একটি টেবিলে সাজানো রয়েছে ঈদ সামগ্রী। একটি দুচালা ঘরে বসবাস করেন গিয়াসউদ্দিন। সাথে থাকেন তার বৃদ্ধ স্ত্রী। তার অঙ্গিনায় কয়েকটি চেয়ারে বসে আছেন স্থানিয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মসজিদের ইমামরা। গিয়াসউদ্দিন তাদেরকে ডেকেছেন দোয়া মাহফিলের। দোয়া মাহফিল শেষে এলাকার অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন করেন গিয়াস উদ্দিন।

গিয়াসউদ্দিনে ছেলে সিরাজ জানান, তারা ৫ ভাই বোন। তার বাবা এখনও নিজে ব্যবসা করেন। তার বাবাকে তারা ব্যবসা ছেড়ে নামায রোজা আর এবাদত করে দিন পার করতে বলেছেন কিন্তু তারর বাবা বলেন যতদিন পারেন কাজ করে যাবেন সে জন্য পানাম বাজারে কাঁচামালের ব্যবসা করেন। ব্যবসা করে বছরে যে টাকা সঞ্চয় করেন সে টাকা দিয়ে গরীব দু:খি মানুষের পিছনে ব্যয় করেন। সেজন্য তিনি তার বাবার জন্য গর্ববোধ করেন।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution