• সকাল ৯:৩৭ মিনিট রবিবার
  • ১০ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ২৪শে মার্চ, ২০১৯ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় মাছ… খায়রুল আলম খোকন পিতা-মাতার মতো শিক্ষকদের কোনদিন ভুলা যায় না.ইঞ্জি মাসুদুর রহমান মাসুম সোনারগাঁয়ে বাউল শুনে বাড়িতে ফেরার পথে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা সোনারগাঁয়ে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহার সোনারগাঁয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় মা-মেয়ের মৃত্যু, বাবা আহত সোনারগাঁয়ে চৈতি গামের্ন্টে শ্রমিদের মহাসড়ক অবরোধ, সংঘর্ষ, ভাংচুর, আহত-১০ তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা থাকছে না সোনারগাঁয়ে প্রার্থীরা সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি চাইলেন সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাচনে জয়ী হতে নানা কৌশলে এগুচ্ছে প্রার্থীরা রাতে সিলামারা ঠেকাতে ব্যালট যাবে সকালে : ইসি সচিব কবিতা থেকে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র (ভিডিও) জাল ভোট দিলে সেই হাত ভেঙ্গে গলায় ঝুলিয়ে দেওয়া হবে. ওসি সোনারগাঁ আগামীকাল পিরোজপুর ইউনিয়নের বিদ্যুৎ বন্ধ থাকবে সোনারগাঁয়ে ৩ বখাটের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড সোনারগাঁয়ে কালাম ও মোশারফ সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত-৫ সাদিপুর ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমানের ৯৯ তম জম্মদিন পালিত সোনারগাঁয়ে বিদ্যুৎপৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু সোনারগাঁয়ে সাংবাদিকের ভাইকে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা সোনারগাঁয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্ম পালিত কালামকে সাথে নিয়ে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানের গণসংযোগ
সোনারগাঁয়ে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা বাতিলের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন

সোনারগাঁয়ে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা বাতিলের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন

নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের ভূয়া মুক্তিযোদ্ধাদেরকে তালিকা থেকে বাদ দেয়ার দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন সোনারগাঁ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাদের একাংশ। গতকাল সোমবার দুপুরে সোনারগাঁ প্রেস ক্লাব কার্যালয়ে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দেশ স্বাধীনের পর সোনারগাঁয়ের ২শ’ ৯৩জন মুক্তিযোদ্ধা সরকারি গেজেটভূক্ত হন কিন্তু পরবর্তিতে যারা সোনারগাঁ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতৃত্ব দিয়েছেন পর্যায়ক্রমে তারা অর্থের বিনিময়ে অ-মুক্তিযোদ্ধাদেরকে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করেন। বর্তমানে সোনারগাঁয়ে সরকারি ভাতাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ৫শ’ ১৯জন।
বক্তব্যে আরো জানানো হয়, ভূয়া মুক্তিযোদ্ধাদ্ধের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা)’এ লিখিত অভিযোগ দেয়া হলেও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গণি মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর টেলিফোন অপারেটর মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের সহযোগিতায় সেই ফাইলটি গায়েব করার চেষ্টা করছেন। তাছাড়াও সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গণি যুদ্ধকালীন কোন গ্রুপেই কমান্ডার ছিলেন না কিন্তু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাদের বিজয় স্তম্ভের ফলকে তার নামের শেষে গ্রুপ কমান্ডার লেখা হয়েছে। (সেসময় ২নং সেক্টরের গ্রুপ কমান্ডার হিসেবে দ্বায়ীত্বে ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান) সাংবাদিক সম্মেলনে এর তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়।

তিনি আরো বলেন, সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গণি স্বাধীনতা বিরোধী ও চিহ্নিত রাজাকারদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা বানিয়েছেন। তিনি উপজেলার বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের নামে টাকা এনে আত্মসাত করেছেন। তাছাড়াও বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত রয়েছেন। এ ব্যাপারে সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গণির সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ মিথ্যা। আমাকে হেয় করার জন্যই একটি পক্ষ এসব মিথ্যা অভিযোগ করছে।

সাংবাদিক সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, সোনারগাঁ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রথম কমান্ডার ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুলতান আহম্মেদ মোল্লা বাদশা, মুক্তিযোদ্ধা শাহ আলম, আলতাফ হোসেন, শফিকুর রহমান, সৈয়দ হোসেন, মফিজ মিয়া প্রমূখ।

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution