• বিকাল ৩:১০ মিনিট শুক্রবার
  • ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শরৎকাল
  • ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে অজ্ঞাত মহিলা লাশ উদ্ধার সােনারগাঁয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদি! সোনারগাঁয়ে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলা নগদ টাকা ও ক্যামেরা ছিনতাই কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশের ৪শত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান সোনারগাঁয়ে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু জামপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটর সাইকেল আরোহী আমির নিহত সোনারগাঁয়ে ফের নমুনা পরিক্ষায় শতভাগ পজেটিভ “জাতীয় পার্টিতে কোনো বিশৃঙ্খলাকারীদের স্থান হবেনা” এমপি খোকা ১লা জানুয়ারী থেকে বানিজ্য মেলা হবে রূপগঞ্জের পূূর্বাচলে সোনারগাঁয়ে নতুন করে ২ জনের দেহে করোনা সনাক্ত স্বামী সেজে গৃহবধূকে ধর্ষণ সোনারগাঁয়ে আওয়ামীলীগ নেতার উপর হামলায় ঘটনায় মামলা এড: সামসুল ইসলাম ভুইয়ার মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা দীর্ঘদিন পর নমুনায় করোনার রির্পোট শতভাগ নেগেটিভ মনোনয়ন জমা দেয়াকে কেন্দ্র করে উপজেলা চত্বরে জাপা সরব উপস্থিতি শামসুল ইসলাম ভূঁইয়া কারো ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়—– কায়সার হাসনাত আমি নেতা নই কর্মী… এডভোকেট শামসুল ইসলাম ভূঁইয়া আমি কখনো মিথ্যা কথা বলি না— শামীম ওসমান হাসনাত পরিবারের সদস্যদের কবর জিয়ারত করে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন এড: শামসুল ইসলাম ভূঁইয়া সোনারগাঁয়ে ৭ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত শিশু উদ্ধার
ঠাণ্ডায় থার্মোমিটার ভেঙে যায় যে গ্রামে

ঠাণ্ডায় থার্মোমিটার ভেঙে যায় যে গ্রামে

Logo


আমাদের দেশে শীতকালে প্রতিবছর যে পরিমাণ ঠাণ্ডা পড়ে, এবার তার চেয়ে অনেক বেশি পড়েছে। উত্তরাঞ্চলে ৩ ডিগ্রির নিচে রেকর্ড পরিমান ঠাণ্ডা ছিল গত সপ্তাহে। কিন্তু বিশ্বের এমন কিছু জায়গা আছে, যেখানকার ঠাণ্ডার তুলনায় এ ঠাণ্ডা একেবারেই কিছু না।

রাশিয়ার এমনই একটি গ্রামের নাম ওইমিয়াকন। এটি বিশ্বের শীতলতম গ্রাম। এখানে এত আবহাওয়া এত ঠাণ্ডা হয় যে পারদ নামতে নামতে থার্মোমিটার পর্যন্ত ভেঙে যায়।

মঙ্গলবার ইয়াকুশা অঞ্চলের ওই গ্রামে তাপমাত্রা নেমেছিল মাইনাস ৬৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। উত্তর-পূর্ব রাশিয়ায় সাইবেরিয়া অঞ্চলে গ্রামটির অবস্থাণ।

ইয়াকুশা মস্কো থেকে ৩ হাজার ৩শ’ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত। সেখানে মাইনাস ৪০ ডিগ্রিতেও স্কুল খোলা থাকে। রোববার সেখানে প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় জমে মারা গেছেন দুইজন। গাড়ি নষ্ট হওয়ায় রাস্তায় বের হওয়ার পর তারা ঠাণ্ডায় জমে যান।

ইয়াকুশার গ্রাম ওইমিয়াকনে মঙ্গলবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে মাইনাস ৬৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মানুষের বসতি আছে এমন স্থানের মধ্যে শীতলতম ওইমিয়াকন।

মাইনাস ৬৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস ডিজিটাল থার্মোমিটার ধারণ করতে পারে না, অর্থাৎ ভেঙে যায়। কেননা, এই থার্মোমিটারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দেয়া আছে মাইনাস ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এরকম প্রচণ্ড ঠাণ্ডা পড়লে স্থানীয়রা আশ্রয়শিবিরে চলে যান। স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। রাস্তায় হঠাৎ দু’ একজনকে চোখে পড়ে, তারা হয়তো সেলফি তোলার জন্য বের হন, অর্থাৎ চোখের পাতা জমে কেমন হয় সেটার ছবি তোলেন।

প্রত্যন্ত এই গ্রামটি সবসময়ই বরফে ঢাকা থাকে। কিন্তু শীতকালে ভয়াবহ ঠাণ্ডা পড়ে সেখানে। এই গ্রামে থাকেন প্রায় ৫০০ জন মানুষ। গ্রীষ্মের সময়ে আগে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকত ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি, ২০১০ সালে সেই তাপমাত্রা পৌঁছেছিল ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

এখানকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ডটটি ছিল ১৯৩৩ সালে, মাইনাস ৬৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মানুষের বসতি আছে এমন স্থানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড এটি। নাসা থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড অ্যান্টার্কটিকায়, মাইনাস ৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution