• দুপুর ১:৫৮ মিনিট বুধবার
  • ১৮ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ৩রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চ ভাষনের প্রস্তুতি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত জামপুর ইউনিয়নে জাতীয়পার্টির প্রার্থী ঘোষনা দিলেন এমপি খোকা সোনারগাঁয়ে হত্যার ৩ মাস পর বিল্লাল হোসেনের মাথা উদ্ধার সোনারগাঁও জাদুঘরের মাসব্যাপী লোকজ মেলা উদ্ধোধন সোনারগাঁয়ে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসা অধ্যক্ষ গ্রেফতার পুলিশের এএসআই’য়ের বিরুদ্ধে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ উপজেলা মৎসজীবী লীগের কমিটি গঠন আগামীকাল সোমবার থেকে শুরু মাসব্যাপী সোনারগাঁও লোকজ মেলা সোনারগাঁ বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুর্নামেন্টে বারদী বুলস ক্লাব বিজয়ী ঢাকার ছাত্রদলের সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জে সোনারগাঁয়ের জনি আহত মোরগের ‘ছুরিকাঘাতে’ মালিকের মৃত্যু নাসিরকে নিয়ে এবার ঢালিউড নায়িকার ফেসবুক স্ট্যাটাস ভাইরাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার ঘোষণা স্বল্পদৈর্ঘ্য থ্রিলারে স্পর্শিয়া টিকা নিলেন প্রায় ৩০ লাখ মানুষ জাহানারা বললেন, ‘এখন আমরা ফিট’ রাস্তার কাজ সম্পন্ন করতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন এমপিএল ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্ধোধন সনমান্দিতে আমিনুল ইসলাম আমান ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সোনারগাঁয়ে আ.লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা
রাস্তায় ব্যারিকেট মানে কী লক ডাউন ? রবিউল হুসাইন

রাস্তায় ব্যারিকেট মানে কী লক ডাউন ? রবিউল হুসাইন

Logo


করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে নারায়ণগঞ্জ জেলাকে লক ডাউন ঘোষনা করার আগ থেকেই সোনারগাঁ উপজেলার বেশ কিছু এলাকার রাস্তা ঘাট ব্যারিকেট দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এলাকার অতি উৎসাহী কিছু মানুষ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের নামে সাধারণ মানুষের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিচ্ছেন। গত বুধবার নারায়ণগঞ্জকে লক ডাউন ঘোষনার পর রাস্তা বন্ধের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। যারা দল বেঁধে রাস্তা বন্ধ করে মুখে তৃপ্তির হাসি নিয়ে বাড়ি ফিরছেন, ভাবছেন যাক রাস্তা যেহেতু বন্ধ হয়েছে করোনা আর এ মহল্লায় ঢুকবে না। এ চিন্তায় বিভোর ব্যক্তিদের গুড়েবালি কারণ রাস্তায় এভাবে ব্যারিকেট দিয়ে কখনো করোনা প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। সোনারগাঁয়ের যেসব এলাকায় গাছের গুড়ি, বাঁশ ও কাঠ দিয়ে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়েছে সেসব এলাকায় গিয়ে বাস্তব চিত্র দেখে হতবাক হতে হয়েছে। একটি পাড়া মহল্লার প্রবেশ মুখে রাস্তায় বেড়া দেয়া হয়েছে ঠিকই ওই পাড়া মহল্লার ভেতরে চায়ের দোকানের আড্ডা কিংবা বৈকালিক আড্ডা থেমে নেই। তাছাড়া রাস্তা বন্ধ করার কারণে ওইসব এলাকায় যান চলাচল বন্ধ হয়েছে ঠিকই মানুষের চলাচল কিন্তু মোটেও বন্ধ হয়নি। আগে মানুষ যানবাহনে করে এলাকায় প্রবেশ করতো এখন প্রবেশ করে পায়ে হেঁটে পার্থক্য শুধু এটুকুই। তাহলে যারা রাস্তা বন্ধ করেছেন তাদের ধারনা কি যানবাহনে চড়ে এলাকায় করোনা ভাইরাস প্রবেশ করে মানুষের মাধ্যমে প্রবেশ করে না। অনেকে রাস্তায় ব্যারিকেট দিয়ে বীরবাহাদুরের মতো ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট করেছেন। কেউ কেউ আবার ছবির সাথে এধরনের স্ট্যাটাসও দিয়েছেন “অবশেষে আমাদের এলাকা লক ডাউন করে দিলাম” তাদের অবস্থা দেখে মনে হয় তারা বিশ্বজয় করে ফেলেছেন। করোনার বিরুদ্ধে তারাই আসল যোদ্ধা।
যারা রাস্তা বন্ধ করেছেন, করছেন এবং সামনে করবেন তাদের উদ্দেশ্যে বলছি লক ডাউন মানে রাস্তা বন্ধ করা নয় লক ডাউন হচ্ছে নিজেকে লক করে রাখা। মানে নিজেকে ঘরে বন্দি করা। সেটা কে কতটুকু করছেন তা নিজেদের বিবেককে প্রশ্ন করে দেখুন। এবার আলোচনা যাক নিজেদের মর্জি মতো রাস্তা বন্ধ করার কুফল নিয়ে।
১. হঠাৎ কেউ অসুস্থ হলে এলাকায় এম্বুলেন্স কিংবা গাড়ী প্রবেশ করতে পারবেনা।
২. গভীর রাতে গর্ভবতী মায়েদের ডেলিভারীর জন্য হাসপাতালে নেয়ার প্রয়োজন হলে পরতে হবে বিপদে।
৩. এলাকায় হঠাৎ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি প্রবেশে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হবে।
৪. এলাকায় ডাকাতি কিংবা আইনশৃঙ্খলার অবনতি হলে দ্রুত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন আসতে পারবে না।
৫. এলাকায় জরুরি ত্রাণ সরবরাহের প্রয়োজন হলে ত্রাণ নিয়ে গাড়ি প্রবেশ করতে পারবে না।
৬. সাধারণ মানুষের নিত্যপন্যের প্রয়োজন হলে রিক্সা কিংবা হালকা যানবাহনে সেগুলো পরিবহন করতে পারবে না।
সুতরাং যারা করোনা ভাইরাস থেকে নিজ এলাকাকে রক্ষার জন্য রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছেন তারা নিজেরাই ভেবে দেখুন এটা কতটা যৌক্তিক কাজ। এ রাস্তা বন্ধের সুযোগে হয়তো আপনার এলাকায় চুরি, ডাকাতি বৃদ্ধি পেতে পারে। এছাড়া মাদক ও জুয়ার আসর নিরাপদে বসতে পারে। অতএব রাস্তা বন্ধ করা কোন সমাধান নয়। এলাকাবাসীকে সচেতন করুন, নিজে সচেতন হোন, সরকারি নির্দেশনা মেনে চলুন, ঘরে অবস্থান করুন, জরুরি প্রয়োজনে বের হলে যথেষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে বের হোন। মনে রাখবেন নিজের সচেতনতাই পারে করোনা প্রতিরোধ করতে।
লেখকঃ সম্পাদক,চারদিক


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution