• সন্ধ্যা ৭:২০ মিনিট শনিবার
  • ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : গ্রীষ্মকাল
  • ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সাদিপুরে কনফিডেন্স এর উদ্যোগে ১ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা ইঞ্জিনিয়ার মাসুমের উদ্যোগে স্বজনদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ মোবারক হোসেন স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ যাত্রীবাহি প্রাইভেট উঠার আগে সাবধান. ওসি হাফিজুর ইসলাম সোনারগাঁয়ে ২ মহিলাসহ ৪ জনের দেহে করোনা সনাক্ত সোনারগাঁয়ে রূপায়ন কোম্পানির উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ পচা মাংস বিক্রির অপরাধে মদনপুরে কসাইকে জরিমানা সোনারগাঁয়ে যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা মানছেনা স্বাস্থ্যবিধি মামুনুল কান্ডে ভাংচুরের ঘটনায় হেফাজত কর্মী গ্রেফতার প্রতিবন্ধি যুবকের পাশে দাড়ালেন ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম ছুটির দিনে সোনারগাঁয়ে মার্কেটগুলোতে উপচে পড়া ভীড় সোনারগাঁয়ে ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত সোনারগাঁয়ের ব্যাংকগুলোতে লেনদেন করতে গ্রাহকদের উপচে পড়া ভীড় শেখ রাসেল স্টেডিয়াম প্রকল্প দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ এমপি খোকার বেগম খালেদা জিয়া ও মান্নানের সুস্থতা কামনা দোয়া ও কোরআন বিতরন প্রধানমন্ত্রীর সাইকেল উপহার পেল গ্রাম পুলিশের সদস্যরা সোনারগাঁ নতুন করে ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সক্রিয় ডাকাত দলের ৩ সদস্য গ্রেপ্তার ৫০০শত অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ দাইয়ান মেম্বারের করোনায় কর্মহীন মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ বিতরন
উপজেলা নির্বাচনে যে সব কারণে কালামের ঘোড়া প্রতিক এগিয়ে

উপজেলা নির্বাচনে যে সব কারণে কালামের ঘোড়া প্রতিক এগিয়ে

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:
আগামীকাল রবিবার সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। এ নির্বাচনকে ঘিরে ২জন চেয়ারম্যান প্রার্থী একই দলের হওয়ায় দলের নেতাকর্মীদের কাছে টানতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। প্রার্থীদের কাছে টানতে গিয়ে অনেক খড়কুটা পুড়াতে হয়েছে প্রার্থীদের। এবার নির্বাচনে সরকারী দলের সমর্থক মোশারফ হোসেন ও কালাম নিজেদের কর্মী ছাড়াও বিভিন্ন দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের কাছে টানতে ব্যস্ত সময় পার করেছেন। সেই হিসাব নিকাসে মোশারফ হোসেন দলের কয়েকজন হেভী ওয়েট নেতাকে কাছে টানতে পারলেও তার চেয়ে বেশী হেভীওয়েট নেতার সমর্থন নিতে অনেকটাই সফল হয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহফুজুর রহমান কালাম। তিনি দল ছাড়াও দলের বাহিরে হেভী ওয়েট নেতাদের কাছে টানতে পেরেছেন। ফলে আগামীকালের নির্বাচনে জয়ের পাল্লা অনেকটাই ভারী হয়ে রয়েছে মাহফুজুর রহমান কালামের দিকে।

জানাগেছে, আগামীকাল রবিবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সামনে রেখে সোনারগাঁ থেকে চেয়ারম্যান পদে ২জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন প্রার্থী প্রতিদ্ধন্ধিতা করছেন। এ নির্বাচনে বিএনপিসহ অন্য দল অংশ গ্রহন না করায় সরকারী দলের দু’প্রার্থীর মধ্যে চলছে প্রতিদ্ধিন্ধিতা। এ দু’জনের মধ্যে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন দলীয় প্রতিক নৌকা নিয়ে অপরদিকে, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দলীয় প্রতিক না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোড়া প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্ধন্ধিতা করছেন।

একই দলের দু’জন চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ায় নিজের দলের নেতাকর্মীদের কাছে টানতে অনেকটা খড়কুটো পড়াতে হচ্ছে এ দু’প্রার্থীকেই। নৌকা প্রতিক পাওয়ায় দলের কয়েকজন নৌকার মনোনয়ন প্রার্থী নেতাকে কাছে টানতে পেরেছেন মোশারফ হোসেন। এদের মধ্যে সাবেক এমপি কায়সার হাসনাত, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডাঃ আবু জাফর চৌধুরী বিরু, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক এএইচএম মাসুদ দুলাল, জেলা আওয়ামীলীগের শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক এসএম জাহাঙ্গীর, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের ত্রান ও সমাজ কল্যান উপকমিটির সদস্য ও কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন ঢাকার সাংগঠনিক সম্পাদক দীপক কুমার বনিক দীপু ও উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট সামসুল ইসলাম ভুইয়াকে। এছাড়া রয়েছেন মোগরাপাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ দুলাল, সনমান্দি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ ও সাদিপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান রশিদ মোল্লা। তাদের ছাড়াও রয়েছেন আরো কয়েকজন দলীয় কর্মি। এছাড়া তিনি নৌকা প্রতিক পাওয়ায় অন্য কোন দলের নেতকর্মীদের কাছে টানতে ব্যর্থ হয়েছেন মোশারফ হোসেন। যদিও নামে মাত্র কয়েকজন বিএনপি নেতা তার সাথে যোগাযোগ রাখলেও বিএনপির কোন নেতা নৌকা প্রতিকের ভোট দিবেন কিনা তা নিয়ে রয়েছে যতেষ্ট সন্দেহ।

অপরদিকে, মাহফুজুর কালাম এ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার তার পাশে রয়েছেন বর্তমান এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা। যিনি কালামের জয়ের জন্য নিজ ও নিজ দলের কর্মীদের নিয়ে মারনপণ লড়াই করছেন। নির্বাচনকে ঘিরে এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার সমর্থনে তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা এক প্রভাবশালী এমপিরও সমর্থন নিয়েছেন। সেই এমপি আর্শিবাদপুষ্ট কর্মীরা গত দুদিন ধরে নৌকা প্রতিক ছেড়ে ঘোড়া প্রতিকে যোগ দিচ্ছেন বলে সূত্র জানিয়েছে। এছাড়া কালামের সাথে রয়েছেন সোনারগাঁ জনপ্রতিনিধি ঐক্য ফোরাম। ফলে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য, মহিলা ইউপি সদস্য ও পৌরসভার মেয়র সাদেকুর রহমান ভুইয়া ও কাউন্সিলররা। তারা হলেন জনপ্রতিনিধি ঐক্য ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ও বারদী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জহিরুল হক, পিরোজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুদ, কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর, বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ডাঃ আঃ রউফ, সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুব সরকার, শম্ভুপুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আঃ রব, নোয়াগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ান ও সাবেক চেয়ারম্যান সামসু, জামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হামীম সিকদার সিপলু. সাবেক চেয়ারম্যানও বিএনপি নেতা টুলু, লিটন, হানিফ চেয়ারম্যান। এছাড়া সাদিপুর কাঁচপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে রয়েছে সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা। এছাড়া বিএনপির কোন প্রার্থী না থাকায় অবশেষে সোনারগাঁ থানা বিএনপির নেতাদের সমর্থন নিতে সামর্থ্য হয়েছেন মাহফুজুর রহমান কালাম। এছাড়া সরকারও যাচ্ছেন এ নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা বাড়াতে আর সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে বিএনপিকে ভোট কেন্দ্রে আনতে পারছেন এ নেতা। এ ছাড়া সোনারগাঁয়ে পলিসি মেকার খ্যাত ফারিয়া গ্রুপের মালিক ও কালামের আত্মীয় সিআইপি ফেরদৌস মামুন রয়েছেন তার সমর্থনে। ফলে আগামীকালের নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী মোশারফ হোসেন নেতাকর্মী যতটা না টানতে পেরেছেন তার চেয়ে বেশী নেতাকর্মী টানতে পেরেছেন মাহফুজুর রহমান কালাম।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution