• বিকাল ৫:১৮ মিনিট শুক্রবার
  • ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
টিকা নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জাদুঘরে খাবার ও জামদানী দোকানকে জরিমানা সনমান্দি ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুনামেন্টের উদ্ধোধন চাঁদাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করে যুবলীগ সভাপতির প্রতিবাদ সভা ১২ বছরের শিশুকে ফুসলিয়ে বিয়ে, পুলিশের হাতে ধরা ভ্যানচালক সোনারগাঁয়ে ইয়াবা ও ফেনসিডিলসহ আটক ২ সোনারগাঁয়ে নিখোঁজের ৩০ঘন্টা পর ঝোপ থেকে বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার মৎস্যজীবী দলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সোনারগাঁয়ে দোয়া মাহফিল ভাইকে সরিয়ে বারদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন চুম্মা বাবুল সোনারগাঁয়ে ভূমিদস্যুদের কান্ড: কৃষিবিদকে হত্যার চেষ্টায় থানায় অভিযোগ জিতলো রয়েল চেলেঞ্জার সনমান্দী, স্বস্তিতে চেয়ারম্যান জিন্নাহ সোনারগাঁয়ে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চ ভাষনের প্রস্তুতি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত জামপুর ইউনিয়নে জাতীয়পার্টির প্রার্থী ঘোষনা দিলেন এমপি খোকা সোনারগাঁয়ে হত্যার ৩ মাস পর বিল্লাল হোসেনের মাথা উদ্ধার সোনারগাঁও জাদুঘরের মাসব্যাপী লোকজ মেলা উদ্ধোধন সোনারগাঁয়ে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসা অধ্যক্ষ গ্রেফতার পুলিশের এএসআই’য়ের বিরুদ্ধে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ উপজেলা মৎসজীবী লীগের কমিটি গঠন আগামীকাল সোমবার থেকে শুরু মাসব্যাপী সোনারগাঁও লোকজ মেলা সোনারগাঁ বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুর্নামেন্টে বারদী বুলস ক্লাব বিজয়ী
লক ডাউন মানছেনা সোনারগাঁবাসী বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

লক ডাউন মানছেনা সোনারগাঁবাসী বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: দিন যত গড়াচ্ছে ঘর থেকে বের হয়ে যাচ্ছে সোনারগাঁবাসী। প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে ভীড় করছে উপজেলার গুরত্বপুর্ন স্থান ও হাট-বাজারগুলোতে। বর্তমানে প্রশাসনের নজরদারী না থাকার কারনে প্রশাসনের নিষেধ উপেক্ষা করে খুলতে শুরু করেছে মার্কেট ও ফুটপাতের দোকানপাট। ফলে দিন যত গড়াচ্ছে করোনা সংক্রমনের হার দিনে দিনে জ্যামিতিক হারে বাড়ছে। যে ভাবে করোনা মহামারি রূপ নিচ্ছে প্রশাসন যদি কঠোর নজরদারী না করেন তাহলে সোনারগাঁ যুক্তরাষ্ট্র ও ইটালীর মতো ভয়াবহ অবস্থা হতে পারে বলে মনে করছেন সচেতন নাগরিকরা।

জানা গেছে, বাংলাদেশের অন্যান্য জেলার তুলনায় করোনার আক্রান্তের হার নারায়ণগঞ্জে সবচেয়ে বেশী। এমতাবস্থায় সোনারগাঁকে করোনা মুক্ত রাখতে লক ডাউন চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহবান করেন সোনারগাঁয়ের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা। পরে গত ৭ এপ্রিল নারায়নগঞ্জ জেলাকে লক ডাউন করেন আইএসপিআর। লক ডাউনের কিছুদিন প্রশাসনের নজরদারী জোরদার করার কারণে মানুষ অকারণে ঘর থেকে বের হওয়া বন্ধ করে দেয়। সোনারগাঁ উপজেলা গুরুত্বপুর্ন স্থানগুলোতে সেনাবাহিনী ও পুলিশের অভিযানের কারণে করোনা সংক্রমনের হার নারায়ণগঞ্জের অন্যান্য উপজেলার ন্যায় শুন্য কোঠায় অবস্থান করে। সেই সাথে উপজেলা প্রশাসন সপ্তাহিক হাট বাজারগুলো বন্ধ করে দিয়ে গুরুত্বপুর্ন বাজারগুলোকে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করতে বিস্তৃত জায়গায় স্থানান্তর করে। লক ডাউনে সাধারণ মানুষকে ঘরে রাখতে উপজেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানা করা হয় বিভিন্ন স্থানে। এতে মানুষ ভয়ে জরুরী কাজ ছাড়া ঘরে থাকতে বাধ্য হয়।

এদিকে গত ২/৩ সপ্তাহ ধরে প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে ইজারাদাররা হাট-বাজারগুলো বসিয়ে লক ডাউন ভাঙ্গতে শুরু করে।
তবে দিন যত গড়াতে তাকে প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে রাস্তায় নামতে শুরু করে মানুষ। বর্তমানে সোনারগাঁয়ের প্রশাসনের নজরদারী না থাকায় কারণে অকারনে উপজেলার গুরুত্বপুর্ণ স্থানগুলোতে ভীড় করছে, খুলতে শুরু করেছে ফুটপাত ও মার্কেটগুলোর দোকানপাট। এদিকে সোনারগাঁয়ে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয় গত ১৩ এপ্রিল বৈদ্যেরবাজার এলাকায়। এরপর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মানুষ নিজেদের তাগিদে লক ডাউন মানতে শুরু করে। নিজ উদ্যোগে এলাকায় বাহিরে লোক প্রবেশের উপর নজরদারী বাড়ানোর পাশাপাশি মহল্লার রাস্তাঘাট বন্ধ করে দেয়। মাঝখান দিয়ে কয়েকদিন সংক্রমনের হার কিছুটা কম থাকায় মানুষ সে লক ডাউন অমান্য করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে শুরু করে। লক ডাউন অমান্য করে মানুষ ঘর থেকে বাহিরে আসার পর থেকে এ সপ্তাহে করোনা সংক্রমনের সংখ্যা জ্যামিতির হারে বাড়তে শুরু করেছে। গত ১৩ তারিখ থেকে আজ ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত সোনারগাঁয়ে করোনা আক্রান্তর সংখ্যা ৩০ জনে দাড়িয়েছে। এরমধ্যে ২ জন মারা গেছেন। তবে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হিসেব অনুযায়ী ৩০ জনের সংখ্যা গত ২৪ এপ্রিলের নমুনা দেয়া পর্যন্ত। বর্তমান হিসেব অনুয়ারী এর সংখ্যা আরো অনেক বাড়তে পারে বলে আশংকা করছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা জানান, সোনারগাঁবাসীকে লক ডাউন মেনে ঘরে রাখতে প্রশাসন অনেক আগে থেকেই কাজ করছে। কিন্তু সোনারগাঁয়ের কোথাও মানুষ লক ডাউন মানছেনা। আইন মানতে বিভিন্ন স্থানে মানুষকে অর্থদন্ডও দেয়া হয়। এরপর প্রশাসন একদিক দিয়ে অভিযান চালিয়ে চলে আসে আরেক দিন দিয়ে মানুষ আসে ভ্রাম্যমান আদালত দেখতে। এমতাবস্থায় তাদের বিরুদ্ধে কঠোরও হওয়া যাচ্ছেনা। এছাড়া গার্মেন্টগুলো খুলে দেয়ায় আরো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হচ্ছে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution