• বিকাল ৪:১৯ মিনিট সোমবার
  • ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : শরৎকাল
  • ১৯শে আগস্ট, ২০১৯ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ের মেয়ে মুন্নিকে দেশে ফিরিয়ে আনতে বাবার আকুতি সোনারগাঁয়ে আলোঘর পাঠাগারে শোক দিবসের আলোচনা সোনারগাঁয়ে বিশ্ব মৌমাছি উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা পৌরসভায় ছিটানো ঔষধে মরছে না মশা দায় স্বীকার মেয়রের, নতুন ঔষধ কেনার আশ্বাস ইটভাটার মালিকের অবৈধ বিদ্যুৎতে প্রাণ গেল পাহারাদারের ডেঙ্গুজ্বর কাদের সবচেয়ে বেশি হয়? জেনে নিন করণীয় জাদুঘরে বৃক্ষরোপন ও পোনা মাছ অবমুক্তকরন ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে অলিপুরা ব্রিজে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড় আওয়ামীলীগে বিভক্তিতে হাইব্রিট নেতারা মাসিক বেতনে নেতাকর্মী টানছে. কালাম বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন সোনারগাঁ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরামের বন্দরে দুই সাপের লড়াই ঠেকাতে প্রাণ গেল স্যানিটারি মিস্ত্রীর যে কারণে ১৫ আগস্ট খালেদার জন্মদিন পালনে বিরত বিএনপি ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুমের উদ্যোগে মিলাদ মাহফিল ও কাঙ্গালী ভোজ উপজেলা আহবায়ক কমিটির শ্রদ্ধা নিবেদন মোশারফ হোসেন চেয়ারম্যানের উদ্যোগে মিলাদ মাহফিল ও কাঙ্গালী ভোজ জনপ্রতিনিধি ঐক্য ফোরামের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে শ্রদ্ধা নিবেদন কালো টাকার মালিক ও ব্যাংক লুটতরাজরা আওয়ামীলীগ নিয়ন্ত্রন করতে চায়. মাহফুজুর রহমান কালাম লিয়াকত হোসেন খোকার উদ্যোগে শোক দিবসে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন জাতির পিতার ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ শেখ মুজিবুর রহমানের নামে কোরবানী দিলেন মাহফুজুর রহমান কালাম
ললাটি বাসস্ট্যান্ডে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

ললাটি বাসস্ট্যান্ডে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম: সোনারগাঁয়ের এশিয়ান হাইওয়ে সড়কে রাস্তা পার হতে গিয়ে বেপরোয়া ট্রাক চাপায় নিহত মাসুমের মৃত্যুর জন্য ট্রাক চালককে দায়ী করে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে ললাটি গ্রামবাসী ও সামাজিক- সাংস্কৃতিক সংগঠন সুবর্ণগ্রামের আয়োজনে সোনারগাঁ প্রেস ক্লাবের সভাকক্ষে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ললাটি বাস স্ট্যান্ড এলাকায় একটি ফুটওভার ব্রীজ নির্মাণের দাবি করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, কবি ও মানবাধিকার কর্মী শাহেদ কায়েস। এসময় উপস্থিত ছিলেন, গজারিয়া কলিমউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ মোনতাজউদ্দিন মর্তুজা, কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত মাসুমের চাচা মো. হান্নান মিয়া, স্থানীয় সিরাজুল ইসলামসহ এলাকাবাসী।

লিখিত বক্তব্যে শাহেদ কায়েস বলেন, কাঁচপুর ইউনিয়নের ললাটি বাসস্ট্যান্ড থেকে বটতলা পর্যন্ত পাঁচশ মিটারের দূরত্বের মধ্যে রাস্তা পার হতে গিয়ে গত ১৫ বছরে এ গ্রামে ১২জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। এদের মধ্যে মো. দেলোয়ার, জাহিদুল আলম শামীম, মোসাম্মৎ তসিরুন বেগম, মোসাম্মৎ শিউলি আক্তার ও তার দাদা মো. জলিল, মো. মজিবুর রহমান, মো. সিরাজুল হক, মো. মাসুম। এছাড়াও এ গ্রামে বেড়াতে এসে আরও দু’নারী ও এ শিশু নিহত হয়।

তিনি মাসুমের সড়ক দূর্ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, ঘটনার দিন এশিয়ান হাইওয়ে সড়কের ললাটি এলাকায় উত্তর থেকে দক্ষিণের দিকে রাস্তা পার হচ্ছিলেন মো. মাসুম মিয়া। হঠ্যাৎ একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ন- ১৫-৭৮৬০) অন্য একটি গাড়িকে ওভারটেক করে রংসাইড দিয়ে এসে মাসুমকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই মাসুম মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। ২৬ বছরের একটি তাজা প্রাণ এভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। গাড়ির চালকের অবহেলা ও খামখেয়ালির কারণেই মৃত্যুকে আমরা দুর্ঘটনা না বলে হত্যাকান্ড বলতে চাই। এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ হচ্ছে রাস্তায় ফিটনেসবিহীন গাড়ি, এবং চালকদের বেপরোয়া গাড়ি চালানো। গাড়ির ফিটনেস আছে কি না তা পরীক্ষা করে রাস্তায় নামানো উচিৎ। কিন্তু ব্যাপক দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির কারনে ফিটনেসবিহীন গাড়ি রাস্তায় দেখা যায় অহরহ। ফলে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটে। রোড পারমিট আপটুডেট ছাড়া যদি রাস্তায় গাড়ি বের হয়। ধরা পড়ে তাহলে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত। এছাড়াও অতিরিক্ত দ্রুত গতিতে চালানো, প্রতিযোগিতামূলকভাবে গাড়ি চালানো, যখন তখন ওভারটেক করা, প্রশক্ষণ না থাকা, আইন কানুন না মানা সড়ক দুর্ঘটনার জন্য সবচেয়ে বেশী দায়ী।

শাহেদ কায়েস আরো বলেন, বর্তমান আইনে সড়ক দুর্ঘটনায় চালকের অবহেলায় কারো মৃত্যু হলে সর্বোচ্চ শাস্তি ৩ বছরের কারাদন্ড করা হয়েছে। মোবাইল ফোনে কথা বলা অবস্থায় গাড়ি চালালে শাস্তি ৫শ টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। এ আইনেরও সঠিক কোনও প্রয়োগ নেই। এ আইন দিয়ে সড়ক দুর্ঘটনা রোধ সম্ভব নয়। সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ক্ষতিপূরণের বিধান রেখে কঠোর আইন প্রণয়ন এবং আইনের সঠিক প্রয়োগের দাবি জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা বর্তমানে বাংলাদেশে মহামারী রূপ নিয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে কঠোর আইন ও শাস্তির বিধান রাখতে হবে। দোষী চালকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির উদাহরণ থাকলে চালকরা সাবধানে গাড়ি চালাতে বাধ্য হবেন। সড়ক দুর্ঘটনায় কেউ মারা গেলে সর্বোচ্চ মৃত্যুদন্ডের বিধান রেখে মামলা দায়েরের বিধানের ব্যবস্থা করা উচিৎ।

সংবাদ সম্মেলনে শাহেদ কায়েস বলেন, ললাটি বাসস্ট্যান্ডে একটি ফুটওভার ব্রীজ নির্মাণ করা অত্যন্ত জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ বিষয়ে প্রশাসন এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। ফুট ওভার ব্রীজের দাবী মানা না হলে জীবন বাঁচাতে ললাটি গ্রামবাসী অনির্দিষ্টকালের জন্য আন্দোলন করে এশিয়ান হাইওয়ে সড়ক বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষনা দেন।

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution