• সন্ধ্যা ৭:৪৪ মিনিট বৃহস্পতিবার
  • ১৯শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ২রা এপ্রিল, ২০২০ ইং
এই মাত্র পাওয়া খবর :
করোনাতে জনগনের পাশে নেই জনগনের ভোটে কোটিপতি হওয়া রেজাউল করিম বাসমাহ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সুরক্ষা সামগ্রীসহ ২৫০টি পিপিই প্রদান সোনারগাঁয়ে ইউপি সদস্যের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ রাতের আধারে পৌরসভার ভট্টপুরে এমপি ও নির্বাহী কর্মকর্তার ত্রাণ বিতরণ ♦১ এপ্রিল: ইতিহাসের এক কালো অধ্যায়♦ হারিয়ে যাওয়া এক ইতিহাস ‘মুড়ির টিন’ সোনারগাঁয়ে বিচার সালিশকে কেন্দ্র করে ইউপি সদস্যসহ ৬জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করোনাভাইরাস: বাংলাদেশে সাধারণ ছুটি আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত সামাজিক দূরত্ব না বলে আসুন বলি শারীরিক দূরত্ব: রবিউল হুসাইন মান্নানের উদ্যোগে ২ শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে শ্রমিক দলের ত্রাণ বিতরন সাদিপুর ইউনিয়নে দুস্থ-অসহায় পরিবারে মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ সোনারগাঁয়ে কর্মহীন হত দারিদ্রের মাঝে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদকের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ রাতের আধারে এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত সামাজিক উদ্যোগে অসহায়দের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির দাফন ও সৎকারের দায়িত্ব নিতে চান কাউন্সিলর খোরশেদ সোনারগাঁয়ে মঙ্গলেরগাঁও আদর্শ জনসেবা সংগঠনের উদ্যোগে ত্রান বিতরন বুলবুল আহম্মেদের উদ্যোগে চিলারবাগ গ্রামে খাদ্য সামগ্রী বিতরন সোনারগাঁয়ে অসহায় পরিবারে মাঝে স্বেচ্ছাসেবক দলের ত্রাণ বিতরণ আড়াইহাজারে প্রতিপক্ষের হামলায় নারী টেটাবিদ্ধসহ আহত ১০
সোনারগাঁয়ে সন্ধ্যায় বাজার ও পাড়া মহল্লায় জমে উঠে মানুষের মেলা

সোনারগাঁয়ে সন্ধ্যায় বাজার ও পাড়া মহল্লায় জমে উঠে মানুষের মেলা

নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ করোনা ভাইরাস ঠেকাতে সরকারের পক্ষ থেকে গণসচেতনতা থেকে শুরু নানামূখি প্রদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। এরপরও কমাতে পারছেনা গণজমায়েত। মানুষ করোনার ভয় উপেক্ষা করে সন্ধ্যার পর উপজেলার বিভিন্ন পাড়া মহলায় জমে উঠে মানুষের মেলা। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে প্রত্যেক দোকানে যেন এক একটা মেলার দোকান। এতো সচেতনতার পরও যেন মানুষ সচেতন হচ্ছে না। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন জায়গায় মাইকিং লিফলেট বিতরন, প্রত্যেক এলাকার জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে কমিটি করে লোকজনকে ঘরের বাহিরে আসা নিষেধ করার পরও মানুষ শুনছেনা কারো কথা।

সুত্র জানান. করোনা ভাইরাস শুরু হওয়ার পর থেকে সরকারী বেসরকারী ও জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে গনসচেতনতা থেকে শুরু করে লিফলেট, করোনা প্রতিরোধক স্যানেটাইজার, মাস্কসহ অন্যান্য সমাগ্রী প্রদান করা হয়েছে সাধারণ জনগনের মাঝে। করোনা মোকাবেলায় গনজমায়েত বন্ধ করতে সরকারী বে সরকারী ও রাজনৈতিক সকল অনুষ্ঠান ব্যাংক বেসরকারী প্রতিষ্ঠান দোকানপাঠ ও গনপরিবহন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে প্রত্যেকে যে যার যার ঘরে অবস্থান নেন। কিন্তু এসব কিছু উপেক্ষা করে এক শ্রেনীর মানুষ প্রয়োজন ছাড়াই জমায়েত হচ্ছেন পাড়া মহল্লায়।

সরেজমিনে আমাদের প্রতিনিধিরা কাঁচপুর বাসষ্ঠ্যান্ড বাজার, নয়াপুর বাজার, বারদীবাজার, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নিচে, মজহমপুর বাজার, মেঘনা শিল্পাঞ্চল, বটতলা বাজার, হোসেনপুর বাজার ঘুরে দেখেছেন দিনের বেলা প্রশাসনের ভয়ে গণজমায়েত কম থাকলেও সন্ধ্যার পর থেকে শুরু হয় মানুষের আনাগোনা। প্রত্যেক দোকানদাররা তাদের দোকান খুলে বসেছে। চায়ের দোকানদার টেবিল চেয়ার বিছিয়ে মানুষ বসার জায়গা করে দিয়ে ধুমধাম ব্যবসা পরিচালনা করছেন। তাদের দেখে মনে হয় দীর্ঘদিন জেলখানায় বন্দি থেকে সন্ধ্যার পর শেষ স্বাস্থি ফেলতে বাজারে এসেছেন।

দুধঘাটা পাচাঁনি বাজারে চায়ের দোকানে বসা এক ব্যক্তিকে করোনার ভয়াবহতা সম্পকে জিঞ্জেস করলে তিনি জানান, আল্লাহ যে ভাবে মরন রেখেছে সে ভাবেই মরব। সারা দিনকি ঘরে বসে থাকা যায়। তাই বাজারে এসেছি এক কাপ চা খেতে।

পিরোজপুর বটতলা বাজারের এক দোকানদার জানান, ব্যবসা না করলে কি খামু। করোনার ভয়ে ঘরে বসে থাকলে খাবার দিবে কে। গণজমায়েতের কথা জিঞ্জেস করলে তিনি জানান লোক না আসলে কার কাছে বেচা বিক্রি করবো। লোককে তো আর দোকান থেকে বের করে দেয়া যায় না।

এ ব্যাপারে প্রশাসনের লোকজন জানান, করোনা ভাইরাস গণজমায়েতের মাধ্যমে ছড়িয়ে মহামারি রূপ নিতে পারে সেজন্য সরকার গণজমায়েত বন্ধ করার জন্য সকল ব্যাংক বীমা, সরকারী বেসরকারী অনুষ্টান অফিস আদালত শিক্ষা প্রতিষ্টান ও গণপরিবহন বন্ধ ঘোষনা করেছে। গণজমায়েত যাতে না হয় সেজন্য আমরা প্রয়োজনীয় গনসচেতনতা তৈরী করেছি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে গণজমায়েত বন্ধ করতে মাইকিং ও প্রত্যেকদিন অভিযান চালাচ্ছি। এরপরও যদি গণজমায়েত হয় তাহলে আইনের মাধ্যমে তাদের ঘরে থাকতে বাধ্য করা হবে।

এই নিউজটি শেয়ার করুন...

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution