• সকাল ৭:১৭ মিনিট বুধবার
  • ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : গ্রীষ্মকাল
  • ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁ রয়েল রির্সোট হামলায় ঘটনায় সানি গ্রেপ্তার সোনারগাঁয়ে ৭টি দোকানে ভূস্মিভূত, ২০ লাখ টাকার ক্ষতি থানা যুবলীগের ব্যানারে বৈদ্যেরবাজারে আল-আমিন সরকারের ঈদ সামগ্রী বিতরণ রোজা হবে ৩০টি: সৌদি আরব খালেদা জিয়া ও মান্নানের সুস্থতা কামনায় দোয়া ও ঈদ সামগ্রী বিতরন চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহাগ রনির উদ্যোগে ২৫০০ জনকে ঈদ সামগ্রী বিতরন সোনারগাঁয়ে ১১ জনের নমুনায় ৬ জনের দেহে করোনা সনাক্ত চেয়ারম্যান প্রার্থী আল-আমিন সরকারের উদ্যোগে ১৫শ পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন সোনারগাঁয়ে থানা ছাত্রদলের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সোনারগাঁয়ে চোরাই মোবাইল বেচাকেনার অভিযোগে ২জন আটক সোনারগাঁয়ে আরো ৬ জনের দেহে করোরা সনাক্ত রাস্তায় ঘুরে ঘুরে আওয়ামীলীগ নেত্রীর অসহায়দের ইফতার বিতরন কনকাপৈত ইউপি চেয়ারম্যান জাফর ইকবালের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ না:গঞ্জে মামুনুল হকের রিমান্ড শুনানী আবারও পেছালো সোনারগাঁয়ে বাড়ি মালিকের স্ত্রীকে হত্যা করে সর্বস্ব লুট সনমান্দিতে আবুল হাসেম রতনের ঈদ উপহার বিতরণ সাদিপুরে কনফিডেন্স এর উদ্যোগে ১ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা ইঞ্জিনিয়ার মাসুমের উদ্যোগে স্বজনদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ মোবারক হোসেন স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ যাত্রীবাহি প্রাইভেট উঠার আগে সাবধান. ওসি হাফিজুর ইসলাম
দাবি আদায়ে একজোট সোনারগাঁয়ের নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা

দাবি আদায়ে একজোট সোনারগাঁয়ের নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

দাবি আদায়ের জন্য মাঠ ছাড়াছেন না সোনারগাঁয়ে নৌকার প্রতিকের মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতারা। তাদের জাড়ালো দাবি আদায়ে টানা গণসংযোগসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। সোনারগাঁ থেকে লাঙ্গল নয় নৌকা চাই। সেই দাবীর প্রেক্ষিতে রোদ, মেঘ ও বৃষ্টি অতিক্রম করে তারা নৌকার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন। জেলা নেতারা তাদের সাথে সুর মিলিয়ে নৌকার প্রতিকের জন্য জোড় লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

সুত্র জানায়, গত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি জোট সরকারের ধানের শীষের প্রার্থী সাবেক প্রতিমন্ত্রী রেজাউল করিমকে ৮২ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছিলেন নৌকার প্রার্থী আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত। গত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সোনারগাঁ থেকে কায়সারকে মনোনয়ন বঞ্চিত করে মনোনয়ন দেওয়া হয় কায়সার হাসনাতের চাচা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেনকে। অপরদিকে জাতীয়পার্টি থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয় বর্তমান সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকাকে। সেই নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্ত অনুয়ায়ী মোশারফ হোসেন মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন। ফলে বিনা ভোটে সংসদ নির্বাচিত হন লিয়াকত হোসেন খোকা। সেই নির্বাচনে পর থেকে নেতা ও নেতৃত্বশুন্য হীন হয়ে পড়ে উপজেলা আওয়ামীলীগ। তখন একমাত্র মাহফুজুর রহমান কালাম ছাড়া কাউকে তেমন মাঠে দেখা যায়নি। এদিকে একাদশ জাতীয় নির্বাচন যতই ক্ষনিয়ে আসছে সোনারগাঁ থেকে ততই নৌকার মনোনয়নের জন্য উঠে পড়ে লেগেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতারা। তাদের সাথে একাত্তত্বা ঘোষনা করেছেন জেলা আওয়ামীলীগের নেতারা। তাদের দাবি জোটের জন্য যদি আসন ছেড়ে দিতে হয় সেটা দেওয়া হওক দেশের অন্য কোথাও থেকে কিন্তু সোনারগাঁয়ে আগামীতে নৌকার মনোনয়ন দিতে হবে। বিশেষ করে কাঁচপুর ওমর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে কায়সার হাসনাতের একটি জনসভায় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর হাই প্রথম মতিয়া চৌধুরীর কাছে এ দাবি জানান। তার দাবির সুত্র ধরে একাধিক জেলার নেতারাও একই দাবি জন্য জোড়ালো বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। তাদের এ দাবির মূখে সোনারগাঁ থেকে সাবেক এমপি কায়সার হাসনাত, তার চাচা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর চৌধুরী বিরু, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক এএইচএম মাসুদ দুলাল, ইঞ্চিনিয়ার শফিকুল ইসলাম, আনারুল কবির, ড. সেলিনা রহমান নৌকা প্রতিকের জন্য মাঠে কাছ করে যাচ্ছেন। সোনারগাঁয়ে প্রত্যেকটি মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতাদের দাবি মনোনয়ন যাকেই দেওয়া হওক না কেন। এখান থেকে নৌকার প্রতিকের প্রার্থী চাই। সেজন্য তারা মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন। তাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা মাঠ ছাড়বোনা। এদিকে, নৌকার মনোনয়ন পাওয়ার আশায় প্রার্থীদের মধ্যে শুরু হয়েছে প্রতিযোগিতা। সভা-সমাবেশ এমনকি জনসাধারনের সাথে চলছে তাদের মত বিনিময় সভা। একজন একটি সভা করলে আরেকজন আরেকটি সভা করে তার সাথে পাল্লা দিয়ে মাঠে রয়েছেন।

এছাড়া তৃনমুল নেতাদের দাবি গত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমার স্বাধীনতার তেইশ বছর পর নৌকার জয় ছিনিয়ে নিয়ে এসে ছিলাম। আমরা নৌকার কর্মীরা একসাথে হতে পেরেছিলাম বলেই ৮২ হাজার ভোটে ধানের শীষকে পরাজিত করতে পেরেছিলাম। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এখান থেকে জাতীয়পার্টির এমপি হওয়ায় আওয়ামীলীগ দীন্নদর্শায় পরিনত হয়েছে। এবছরও যদি একই পরিস্থিতি হয় তাহলে সোনারগাঁ থেকে আওয়ামীলীগের চিহৃ নিঃচিহৃ হয়ে যাবে। তাই নেত্রীর কাছে অনুরোধ দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে লাঙ্গলকে ছাড় দেন কিন্তু সোনারগাঁ থেকে নয়। আমাদের দাবি একটাই সোনারগাঁ থেকে নৌকা, নৌকাই চাই। সেজন্য আমাদের মনোনয়ন প্রার্থীরা আমাদের দাবি আদায়ের জন্য মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution