• সন্ধ্যা ৬:১৮ মিনিট রবিবার
  • ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : গ্রীষ্মকাল
  • ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
ফেলা যাওয়া টাকা ও টুপির মালিককে খুঁজছে ফার্মেসী মালিক সোনারগাঁয়ে ভেজাল খাদ্য তৈরির দায়ে গ্রেফতার ১ রোজা রেখে চুল ও নখ কাটা যাবে? না.গঞ্জের সেই সিংহামের হাতে বন্দি হলেন মামুনুল রোযাও কমছেনা তরমুজ ও আনারসের দাম সোনারগাঁও পৌরসভার কাউন্সিলর তপন গ্রেফতার লক ডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশ সোনারগাঁয়ে করোনা আক্রান্ত ১৪, মৃত্যু ১ সুস্থ ৪০ সোনারগাঁয়ে করোনা আক্রান্ত ১৪, মৃত্যু ১ সুস্থ ৪০ চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহাগ রনি’র উদ্যোগে মাস্ক ও ইফতারি বিতরন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযুদ্ধা ওবায়দুল হকের দাফন সোনারগাঁয়ে একদিনে করোনায় মৃত্যু ৩, আক্রান্ত ১১ সনমান্দিতে দুই ডাকাত আটক বন্দরে চোরাই গার্মেন্ট পণ্য উদ্ধার, গ্রেপ্তার-২ আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ইঞ্জিনিয়ার মাসুমের আর্থিক সহায়তা প্রদান কঠোর লকডাউনের ২য় দিনের জনজীবন স্বাভাবিক পিরোজপুরে ৪টি বসত ঘরে আগুন মাহে রমজান উপলক্ষে সনমান্দী ইউনিয়নে অসহায়দের মাঝে ত্রান বিতরণ সোনারগাঁয়ে ট্রাক চাপায় মামা-ভাগ্নে নিহত মৃত শিশুকে কবর দেওয়াকে কেন্দ্র করে শিশুর স্বজনদের বাড়ীতে হামলা
প্যারালাইজড রোগী হয়েও নিয়মিত হাজিরা দেন থানা বিএনপি’র সহ-সভপতি রিয়াজুল

প্যারালাইজড রোগী হয়েও নিয়মিত হাজিরা দেন থানা বিএনপি’র সহ-সভপতি রিয়াজুল

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

রিয়াজুল ইসলাম। তিনি গত ৪ মাস যাবত প্যারালাইজড রোগে আক্রান্ত। করেন বিএনপির রাজনীতি। সোনারগাঁ থানা বিএনপির সহ-সভাপতি পদেও রয়েছেন তিনি। রাজপথের একজন সক্রিয় এই নেতার এক পা ও এক হাত অবস হয়ে গেছে। ঠিকমত কথাও বলতে পারেন না তিনি। কারন মুখেও হয়েছে সমস্যা। দীর্ঘ চার মাস যাবত তাকে নিয়মিত নিয়ে যাওয়া হয় ফিজিওথেরাপী সেন্টারে। চিকিৎসা শেষে আবার ডজন মামলার আসামি হওয়ায় নিয়মিত আদালতের কাঠগড়ায় এসে হাজিরাও দিতে হয় তাকে। ওয়ারেন্ট জারি হতে পারে এমন আংশকা থাকলেও প্যারালাইজড রোগী রিয়াজুল ইসলামও আদালতের কাঠগড়ায় এসে হাজিরা দেন।

নেতাকর্মীরা বলছেন, গত ২ মে বৃহস্পতিবার দুটি মামলায় তিনি জামিন নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে। কিন্তু তবুও বিএনপির রাজনীতি ছাড়তে নারাজ এই রিয়াজুল ইসলাম। কিন্তু তার নিজ এলাকা সেই সোনারগাঁয়ের বিএনপির বেশকজন নেতা দল পল্টি দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেছেন। কিন্তু রিয়াজুল ইসলাম ও রিয়াজুল ইসলামের মত নেতাকর্মীরা এখনও রয়েছে বিএনপির রাজনীতিতে। এর আগে প্যারালাইজড রোগে আক্রান্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় উপজেলা যুবদলের সেক্রেটারি আব্দুর রউফ নাশকতার মামলায় আসামি হলে হাসপাতাল থেকে ছুটে আসেন জামিন নিতে। তবুও তিনিও দল ছাড়েননি। কিন্তু দল ছেড়েছেন সংস্কারপন্থী রেজাউল করিমের লোকজন। এক রিয়াজুুল ইসলামদের মত ত্যাগীরা ত্যাগ স্বীকার করে কিন্তু দল ছাড়েনা। আর সুবিধাবাদীরা সুবিধা নেয়, আবার পল্টিও দেয়। আর এই রিয়াজুল ইসলাম রাজনীতি করেন আজহারুল ইসলাম মান্নানের সঙ্গে।
এ ব্যাপারে রিয়াজুল ইসলাম জানান, ধেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে ভালবেসে বিএনপির রাজনীতি করি। আমার নেত্রী অন্যায়ের কাছে কোন দিন মাথানত করেনি। আমরাও মত স্বীকার করতে শিখেনি। তাই এখন দলের হয়ে কাজ করছি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত বিএনপির রাজনীতি করেই মরতে চাই।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution