• বিকাল ৩:৫২ মিনিট বৃহস্পতিবার
  • ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : হেমন্তকাল
  • ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
কাচঁপুরে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ, নারীসহ আহত ১৫ সোনারগাঁ মেঘনা নদী থেকে ২০ হাজার মিটার জাল জব্দ বারদী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতির ইন্তেকাল মহানবী (সা.) কে ব্যঙ্গ করার প্রতিবাদে আগামীকাল সোনারগাঁয়ে বিক্ষোভ মিছিল স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতার মৃত্যুতে যুবদল নেতা আশরাফ ভুইয়ার শোক সোনারগাঁও পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে ! বিএনপি নেতা আবু সিদ্দিকের মৃত্যুতে মান্নানের শোক থানা বিএনপি’র স্বেচ্ছাসেবক নেতা আবু সিদ্দিক মোল্লার ইন্তেকাল যুবদলের প্রতিষ্টা বার্ষিকীতে খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া সোনারগাঁয়ে ১১ জনের নমুনায় ৪ জনের দেহে করোনা সনাক্ত সোনারগাঁয়ে মহাসড়কে দূর্ঘটনায় মহিলা নিহত সোনারগাঁয়ের মেঘনা নদী থেকে ৩ হাজার মিটার জাল জব্দ মেয়র প্রার্থী ডালিয়া লিয়াকত এর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সোনারগাঁয়ে সোয়াইব হত্যার মামলার রায় ৯ নভেম্বর প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাতিল চেয়ে সরকারকে লিগ্যাল নোটিশ মেয়র নির্বাচিত হলে মসজিদের পাশাপাশি মন্দির উন্নয়নে কাজ করবো.. নাসরিন ঝরা সোনারগাঁয়ে নতুন করে ২ জনের দেহে করোনা সনাক্ত মেয়র প্রার্থী ছগীর আহম্মেদের পূজা মন্ডব পরিদর্শন ও আর্থিক সহায়তা প্রদান জাতীয়পার্টির নেতাকে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার সোনারগাঁয়ে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট এর উদ্যোগে বস্ত্র বিতরণ
ফল বিপর্যয়ে তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়

ফল বিপর্যয়ে তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়

Logo


আশরাফুল আলম,

বর্তমান সরকারের বিশেষ তৎপরতায় দেশব্যাপী শিক্ষার ব্যাপক অগ্রগতি সাধিত হলেও শিক্ষার তেমন কোন অগ্রগতি লক্ষ করা যায়নি তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে। বিগত কয়েক বছর ধরে ধারাবাহিক ভাবে এসএসসি পরীক্ষায় ফল বিপর্যয়ের কারনে বিদ্যালয়টির শিক্ষার মান একেবারে নিম্নমূখী হয়ে পড়েছে। ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মোট ১৪৫ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করেছিল। এর মধ্যে ৯৫ জন শিক্ষার্থী কোন মতে পাশ করলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির ভাগ্যে কোন এপ্লাস মিলেনি।

স্থানীয় সচেতন মহলের মতে, সারাদেশে শিক্ষা প্রতিযোগীতা মূলক ও অনুকরনীয় বিষয় হলেও নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ৩২ বৎসরের শিক্ষা ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপিঠ তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার বেহালদশা।

এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের অভিযোগ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির অব্যবস্থাপনায় দীর্ঘদিন ধরে চলমান অনিয়ম ও দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা এবং প্রধান শিক্ষক নূরুল আহাদের এককছত্র আধিপত্য বিস্তারের কারনে ও বিদ্যালয় কমিটিতে এলাকার শিক্ষিত স্বজন, সুশীল সমাজের প্রকৃত অভিভাবক না থাকায়, পাশাপাশি অন্যান্য শিক্ষকদের সমন্বয়হীনতার কারনে দিনের পর দিন এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান নিম্নমূখী হয়ে পড়েছে। ১৯৮৭ সালে বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গৌরব উজ্জল সম্মান ছিল নারায়ণগঞ্জ জেলা পর্যায়ে। দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটিতে সভাপতির পদে এক ব্যক্তির কর্তৃত্বে বিদ্যালয়টি পরিচালিত হওয়ায় এবং কর্তৃপক্ষের নিরব ভূমিকা ও স্বেচ্ছাচারিতার কারনে শিক্ষা অবহেলার মূল কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হয়েছে তাহের পুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়। এবারের এসএসসিতে ফল বিপর্যয়ের কারনে ২০২০ সালে অনুষ্টিতব্য পরীক্ষায় পুনরায় ফল বিপর্যয়ের আশঙ্কায় রয়েছেন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। এবছর পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেছিল মোট ১৪৫ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে মাত্র ৯৫ জন শিক্ষার্থী কৃতকার্য হলেও বাকী ৫০ জন শিক্ষার্থী ফল বিপর্যয়ের মুখে পড়ে।

এঘটনায় অভিভাবক মহল ও সুশীল সমাজে তৈরি হয়েছে প্রচন্ড ক্ষোভ, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে দেখা দিয়েছে চরম হতাশা।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটিতে এক ব্যক্তির সভাপতি পদ দখল করে বিদ্যালয় পরিচালনা করা, নিরক্ষর লোকজনের হাতে বিশেষ ক্ষমতা, প্রকৃত অভিভাবক সদস্য নয় তবুও সপদে বহাল থেকে বিদ্যালয় পরিচালনা করা। উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা কমিটির কতিপয় সদস্যের, কিছু অসাধু শিক্ষকের এবং প্রভাবশালী দুষ্ট চক্রের স্বেচ্ছাচারিতার কারনে অযোগ্য প্রধান শিক্ষক দ্বারা বিদ্যালয়টি এখনও পরিচালনা করার ফলে শিক্ষারমান নিম্নমূখী ও পরিবেশগত ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছে। চলমান অনিয়ম ও দুর্নীতির কারনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি তার অতীত গৌরব উজ্জল সম্মান ধরে রাখতে পারেনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অভিভাবক সদস্য বলেন, প্রধান শিক্ষক নূরুল আহাদ ও জাকির হোসেন নামে একজন শিক্ষক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতিকে সমীহা করে বিভিন্ন সময় অনিয়ম, দূণীর্তি ও কোচিং বানিজ্যে লিপ্ত রয়েছেন। তার কারনে বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকরা কোনঠাসা হয়ে রয়েছেন। যার ফলে শিক্ষকরা শিক্ষাদানে অমনোযোগী হয়ে পড়েছেন।

এবিষয়ে মুঠোফোনে বিদ্যালয়ের সভাপতি আব্দুল হামিদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে জানা যায় তিনি ওমরা পালনে সৌদি আরব চলে গেছেন।

তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন সহকারী শিক্ষক বলেন, বিদ্যালয়ের কমিটি আমাদেরকে যেভাবে পরিচালনা করে তাদের মতামতের উপর ভিত্তি করেই আমাদের চলতে হয়। তাছাড়া প্রধান শিক্ষক নূরুল আহাদ সাহেব শিক্ষা বিষয়ে বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকদের মতামতের কোন তোয়াক্কা করেনা। শিক্ষা বিষয়ক যে কোন বিষয়ে তার দাম্ভিকতা ও একক সিদ্ধান্তের কারনে প্রতি বছরই ফল বিপর্যয়ে শিক্ষার মান নিম্নমূখী হয়ে পড়ছে। তার প্রতি অন্যান্য শিক্ষকদের অনাস্থা বিদ্যমান রয়েছে।

সোনারগাঁ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সাইফুল ইসলাম প্রধান জানান, তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কয়েক দফা পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। বিদ্যালয়টির শিক্ষার মান ও পরিবেশ সন্তোশজনক নয়। তার কারন নির্বাচনী পরীক্ষায় অনেক শিক্ষার্থী চার/পাঁচটি বিষয়ে অকৃতকার্য হলেও বিদ্যালয় কমিটির সদস্যরা প্রধান শিক্ষককে চাপে ফেলে বোর্ড পরীক্ষার ফরম পূরণে বাধ্য করেন। স্থানীয় শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরাও শিক্ষা বিষয়ে তেমন সচেতন নয়। যার ফলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি কয়েক বছর ধরে ফল বিপর্যয়ে পড়ছে। ভাল ফলাফলের জন্য আমি বিদ্যালয় কমিটির সঙ্গে বৈঠক করে ফল বিপর্যয়ের বিষটি তদন্ত করব।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution