• দুপুর ২:৪২ মিনিট রবিবার
  • ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : হেমন্তকাল
  • ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার সোনারগাঁয়ে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার নৌকার প্রার্থীর চোখের পানি না শুকাতেই স্বতন্ত্র প্রার্থীকে আওয়ামীলীগে যোগদান ‘মা’ কম্পিউটার ইনষ্টিটিউট অব টেকনোলজি-এর সনদ বিতরণ সোনারগাঁয়ে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি দারিদ্র বিমোচনে কাজ করছে বসুন্ধরা. ইঞ্জি: মাসুম বন্দরে একসাথে তিন বান্ধবী নিখোঁজ কমপ্লেক্সে ঢুকে পড়া ছাগলে স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের ভুড়িভোজ, মামলা স্ত্রী’র অন্তরঙ্গ ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে যুবক গ্রেফতার আইভীকেই নৌকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী জাকেরপাটির চেয়ারম্যানের দোয়া নিলেন মেয়র আইভি যেসব খাবার খেলে নতুন চুল গজায় সাদিপুরে ভোট গণনায় কারচুপির অভিযোগ কাউন্সিলর হত্যার প্রধান আসামির জানাজা ছাড়াই দাফন সোনারগাঁয়ে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তিন বাড়িতে ডাকাতি সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের মনোনয়নপত্র বিতরন সোনারগাঁয়ে মাদকসহ আটক ২, পিকআপ জব্দ রূপগঞ্জ আ.লীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, গুলিবিদ্ধ ৬ ভোট পূর্ণগননার দাবি ইউপি সদস্যের নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন ১৬ জানুয়ারী
মামলা তুলে নিতে বাদিকে হত্যার হুমকি

মামলা তুলে নিতে বাদিকে হত্যার হুমকি

Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকমঃ  সোনারগাঁয়ে মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেওয়ায় কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করায়। মামলা তুলে নিতে মাদক ব্যবসায়ীরা মামলার বাদী ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি দিচ্ছে।

জানা যায়, সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া ও সনমান্দী ইউনিয়ন এবং সোনারগাঁও পৌর এলাকায় দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক ব্যবসা করে আসছিল মোগরাপাড়া ইউনিয়নের ছোট কাজীরগাঁও গ্রামের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ও তার সহযোগীরা।

একই গ্রামের নজরুল ইসলামের ভূঁইয়ার ছেলে নাজমুল ইসলাম বাপ্পী দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে আসছিল।

এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বিপুল পরিমাণ নিষিদ্ধ ঘোষিত ফেনসিডিলসহ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়। তখন তার বিরুদ্ধে ১৯১০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ১৯ (১) ৩ (খ) ধারায় সোনারগাঁও থানায় একটি মামলা দায়ের করে পুলিশ। যার মামলা নাম্বার ২৬ তারিখ ২২ -০২ – ২০১৭ ।

মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় ১ ডিসেম্বর এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ওরফে (ডিলার রুবেল) ও তার স্ত্রী লিপি, ছোট ভাই অপু, বড় ভাইয়ের ছেলে রবীন নাজমুল ইসলাম বাপ্পীকে রামদা দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে আহত করে।

এসময় বাপ্পীর ডাক চিৎকার শুনে তার স্ত্রী ফারিয়া আক্তার দৌড়ে রুবেলকে বাঁধা দিতে গেলে মাদক ব্যবসায়ীরা তাঁকেও এলোপাথাড়ি কিল – ঘুষি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা – ফুলা জখম করে।

এসময় মাদক ব্যবসায়ী রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ওরফে (ডিলার রুবেল) ও তার সহযোগী হামলাকারীরা নাজমুল ইসলাম বাপ্পীর ডান হাত ও ডান পা সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। পরে স্থানীয় লোকজন আহত স্বামী- স্ত্রীকে সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

ঘটনার দুদিন পর নাজমুল ইসলাম বাপ্পীর স্ত্রী ফারিয়া বাদী হয়ে হামলাকারী মাদক ব্যবসায়ী রুবেল (ওরফে কুত্তা) ওরফে (ডিলার রুবেল) রুবেল (৪০), তার স্ত্রী লিপি (৩২), ভাই অপু (২৮) ও মামুন মোল্লার ছেলে রবীন (২৬) এর বিরুদ্ধে ৩২৩ / ৩২৬ / ৫০৬ (২) ধারায় সোনারগাঁও থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলা করার পর থেকে, মামলা তুলে নিতে আসামিরা বাদী ফারিয়া আক্তার ও তার পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে। আসামিদের ভয়ে বাদী ফারিয়া আহত স্বামী নাজমুল ইসলাম বাপ্পী ও এক বছরের শিশু সন্তানকে নিয়ে বাড়ী ছেড়ে উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের ছোট সাদিপুর গ্রামে এক আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে।

এর মাঝে মামলার আসামি লিপি ও অপু আদালত থেকে জামিনে নিয়ে আসে।

গতকাল ১০ ডিসেম্বর মামলা বাদী ফারিয়া আক্তার তার আহত স্বামীর জন্য মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় ঔষধ কিনতে গেলে আসামি রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ওরফে (ডিলার রুবেল), রবীন, লিপি ও অপু মিলে মামলা তুলে নিতে চাপ দেয়। তারা দ্রুত মামলা তুলে না নিলে বাদী ফারিয়া তার স্বামী নাজমুল ইসলাম বাপ্পী ও একমাত্র শিশু সন্তানকে হত্যা করে লাশ গুম করে রাখবে বলে হুমকি প্রদান করে। হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকি পেয়ে বাদী ফারিয়া আক্তার গতকাল বুধবার আসামিদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন।

ফারিয়া আক্তার জানান, মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেওয়ায় আমার স্বামীকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে আহত করেছে । আমাকে মেরে আহত করেছে। আমি এখন জীবনের নিরাপত্তার অভাবে অন্যত্র আশ্রয় নিয়ে আছি ।

এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ওরফে (ডিলার রুবেল) ও তার সহযোগী নিজের স্ত্রী লিপি, বড় ভাইয়ের ছেলে রবীন এবং রুবেলের ছোট ভাই অপু মামলা তুলে নিতে আমি সহ আমার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকি দিচ্ছে।

আমি এখন নিজের ও পরিবারের জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আসামিরা তাদের নিজেদের যেকোনো ক্ষতিসাধন করে আমিসহ আমার পরিবারের সদস্যদের মিথ্যে মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেয়ার হুমকি দিচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছোট কাজীরগাঁও ও এর আশপাশের স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেওয়ায় এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ও তার সহযোগীরা ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিবাদী যুবক নাজমুল ইসলাম বাপ্পীকে কুপিয়ে ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা দায়ের করার পর থেকে বাদী ফারিয়া আহত স্বামী ও এক বছরের কন্যা শিশুকে নিয়ে নিরাপত্তার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ।

মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা তুলে না নেওয়ায় গত ১১ ডিসেম্বর রাতে মাদক ব্যবসায়ী রুবেল (কুত্তা রুবেল) ওরফে (ডিলার রুবেল) ও তার সহযোগীরা রুবেলের নিজের নষ্ট পুরাতন হয়ে পড়ে থাকা একটি মটর সাইকেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে বাদীদের ফাঁসানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে ।

স্থানীয়রা বলেন, মাদক ব্যবসায়ী রুবেল ওরফে (কুত্তা রুবেল) ওরফে (ডিলার রুবেল) ও তার সহযোগীরা এমন কোনো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নেই যা না করতে পারে।

মাদক ব্যবসায়ী রুবেলের নাম কুত্তা রুবেল ও ডিলার রুবেল হওয়ার কারন জানেন চাইলে তারা বলেন, রুবেল মাদকের ডিলার সে নিজের গ্রাম সহ আশপাশের এলাকায় খুচরা ও পাইকারী মাদকদ্রব্য সাপ্লাই দিয়ে আসছে । সে তার বাড়ীতে একটি জার্মানি পোষা কুকুর রেখেছে । সেই কুকুরের ভয়ে তার বাড়ীর আশপাশে পুলিশ সহ লোকজন যেতে পারে না, রুবেল যদি কুকুরকে থামতে বলে তবেই থামে । কুকুরটি রুবেল ও তার পরিবারের লোকজনের কথা শুনে। তাই এলাকার লোকজন রুবেলকে কুত্তা রুবেল ও ডিলার রুবেল নাম বেশী পরিচিত।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান মনির বলেন, পালাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। মামলার বাদী ও তার পরিবারের সদস্যদের হুমকির বিষয়টি আমলে নিয়ে সকল আসামির বিরুদ্ধে করা সাধারণ ডায়রি গ্রহণ করা হয়েছে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution