• সন্ধ্যা ৬:০২ মিনিট শুক্রবার
  • ২৯শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ১২ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে মোটর সাইকেলে বেড়ানোর কথা বলে শিশুকে ধর্ষণ ঈদে গরীবের ভাগ্যেও জুটছেনা ছাডি মাংস ঈদে গবীরের মাংসের বদলে ভরসা ছাডি মাংস সোনারগাঁ উপজেলা কেন্দ্রীয় মসজিদে ঈদের জামাতের সময় সুচি সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে সোনারগাঁয়ের বাংলা বাজারে ঈদের জামাত আদায় সোনারগাঁয়ে গরুর মাংস কিনতে না পেরে মুরগী কিনতেও নাজেহার গরীর মানুষ সোনারগাঁয়ে গরুর মাংস ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া সোনারগাঁয়ে আলোর পথ সমাজ কল্যাণ সংস্থার খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ সোনারগাঁয়ে ইট ভাটায় হামলা গাড়ি ভাংচুর ও হামলায় আহত ৫। সোনারগাঁয়ে বেড়েছে গরুর মাংসের দাম সোনারগাঁয়ে সাংবাদিক ও সুধী জনের সন্মানে জাগো সোনারগাঁও২৪.কমের ইফতার সোনারগাঁ সাব রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখকদের নতুন কমিটির অনুমোদন ঈদের আগে ও পরে দূর্ঘটনা রোধে চালকের সচেতন হতে বললেন হাইওয়ে পুলিশের প্রধান ঈদে মেঘনা সেতু যানজটমুক্ত রাখতে ৬টি নতুন ইটিসি বুথ চালু অমর পোদ্দারের উদ্যোগে ১৫শত পরিবারকে ঈদ সামগ্রী বিতরন আওয়ামীলীগ নেতার টাকায় বিএনপির ইফতার, সমালোচনা ঝড় খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীর ইফতার পার্টিতে যোগদান ভীত সন্ত্রস্ত আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা ধর্ষণ মামলায় জামিন পেলেন মামুনুল হক কাঁচপুরে এসে শিল্প পুলিশের ডিআইজি ঈদ যাত্রা উপলক্ষে যা বললেন উপজেলা প্রশাসনের সুফল পাচ্ছে সোনারগাঁবাসীবাসী
সোনারগাঁয়ের কান্দারগাঁয়ে ১২ বছরে ৪ খুন, আহত-৫০ এলাকা ছাড়া ৫০ পরিবার

সোনারগাঁয়ের কান্দারগাঁয়ে ১২ বছরে ৪ খুন, আহত-৫০ এলাকা ছাড়া ৫০ পরিবার

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: আধিপত্য বিস্তার ও বালূ ভরাটকে কেন্দ্র করে সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের কান্দারগাঁও গ্রামে পক্ষ ও প্রতিপক্ষের হামলায় গত ১২ বছরে ৪টি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। তারা সবাই প্রতিপক্ষের হাতে খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন নিহত স্বজনদের পরিবার। এছাড়া  সংঘর্ষে অন্যত্র ৫০ জন আহত হয়ে এখনও ১০ জন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। এছাড়া পক্ষ ও প্রতিপক্ষের হামলায় বাড়িঘর ভাংচুরসহ ঘর ছাড়া হয়েছেন অন্তত ৫০টি পরিবার। ৪টি খুনের দুটি হত্যাকান্ডের বিচার সর্ম্পুন হলেও ১টি চলমান অপরটি গতকাল শুক্রবার দুপুরে সংঘঠিত হয়েছে।

সুত্র জানায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের কান্দারগাঁও গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পিরোজপুর যুবলীগের সভাপতি জাকির হোসেনের লোকদের হাতে ২০১২ সালের ৭জুন প্রথম খুন হোন যুবলীগ নেতা রিপন। নিহত রিপন কান্দারগাঁও গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মুজাফ্ফর আলীর ছেলে। রিপন হত্যাকান্ডের ঘটনায় রিপনের বাদি বাদি হয়ে জাকিরকে প্রধান আসামী করে ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘদিন স্বাক্ষী প্রমানের ভিত্তিতে রিপন হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও দুই জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়।

এরপর ২০১৪ সালে পিরোজপুর ইউনিয়নের কান্দারগাঁও গ্রামে সোনারগাঁ রির্সোট আবাসন প্রকল্পে গলা কেটে হত্যা করা হয় রিপন হত্যার অন্যতম আসামী সাধন (২২) কে। সাধন কান্দারগাঁও গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে। এ ঘটনায় সাধনের মা জয়েতুন্নেছা  বাদি হয়ে জাকিরের প্রতিপক্ষ বজলূল হক ও ফজলুল হককে আসামী করে একটি হত্যা মামলা করেন। সাধন যুবলীগ নেতা রিপর হত্যাকান্ডের অন্যতম এজাহানভুক্ত আসামী ছিলেন।

২০১৮ সালে সোনারগাঁও রির্সোট আবাসন প্রকল্পে বালু ভরাটকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লোকজন কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করে পিরোজপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জাকির হোসেনের ভাগিনা মোহাম্মদ আলীকে। নিহত মোহাম্মদ আলী উপজেলার সাহাপুর গ্রামের এলাকার মৃত আরজান আলীর ছেলে। তিনি মায়ের সাথে মামা জাকির হোসেনের সাথে বসবাস করতেন। তার মামা পিরোজপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি হওয়ার সুবাদে তিনি যুবলীগের রাজনীতি করতেন। তবে তার কোন পদ ছিল না। নিহত মোহাম্মদ আলী রিপন হত্যার অন্যতম আসামী ছিলেন। মোহাম্মদ আলী হত্যার ঘটনায় তার মা শিউলী বেগম বাদি হয়ে পিরোজপুর ইউপি সদস্য মোশারফ হোসেনকে প্রধান আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সর্বশেষ, গতকাল শুক্রবার জুম্মার নামাযের পর আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জাকির হোসেন ও জসিম বাহিনী সাথে দফায় দফায় সংর্ঘষে জাকির হোসেনের পক্ষের পারভেজ (৩০) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করে জসিম উদ্দিনের লোকজন। এ সময় উভয় পক্ষের সংর্ঘষে আরো ৮জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎকরা।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution