• রাত ১:৩৭ মিনিট বুধবার
  • ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
কাঁচপুরে বিভিন্ন বে-সরকারী ক্লিনিকে ভ্রাম্যমান আদালতেরর অভিযান ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাঁচপুর যুবলীগের সভাপতি মাহবুব পারভেজের গণসংযোগ সোনারগাঁয়ে স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তির বিরুদ্ধে সনমান্দী তে কালামের জনসংযোগ ও মতবিনিময় সভায় নেতাকর্মীর ঢল এমপি’র হস্তক্ষেপে হকারমুক্ত হলো ফুটওভার ব্রিজ সোনারগাঁয়ে অটোচালক রজ্জব হত্যার প্রধান আসামী আটক সোনারগাঁয়ের কাপড় ব্যবসায়ীর লাশ বুড়িগঙ্গায় উদ্ধার মেঘনা সেতু ফুট ওভারব্রিজের রেলিংয়ের সাপোর্টিং খুটি কেটে নিলো সওজের কর্মীরা সোনারগাঁয়ে স্মার্ট লুকস জেন্টস পার্লার এন্ড স্পা সেন্টার উদ্বোধন সোনারগাঁ সরকারী ডিগ্রী কলেজের হিসাব রক্ষককে পিটিয়ে আহত সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস বোতলজাত করার সময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১ ব্যক্তির মৃত্যু হঠাৎ ওসমান শিবিরে ধাক্কা সোনারগাঁও পৌরসভায় বৃদ্ধ শ্বশুরকে কুপিয়ে জখম করলো ছেলের বউ আমার দেয়ার কিছু নেই কিন্তু আপনাদের নেয়ার অনেক কিছু আছে..এমপি কায়সার হাসনাত আদমপুর বাজারে হাটার রাস্তা সরু করে অবৈধ দোকান নির্মাণ আনন্দবাজার হাটের ইজারা পেলেন প্যানেল চেয়ারম্যান নবী হোসেন সোনারগাঁয়ে ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার কাঁচপুরে গ্রেপ্তার এড়াতে ৬ তলা থেকে লাফিয়ে পড়লেন যুবক জামপুরে মাহফুজুর রহমান কালামের উঠান বৈঠক সোনারগাঁয়ের কান্দারগাঁয়ে ১২ বছরে ৪ খুন, আহত-৫০ এলাকা ছাড়া ৫০ পরিবার
সোনারগাঁয়ে ড্রেজিংয়ের নামে ফসলি জমি লুট

সোনারগাঁয়ে ড্রেজিংয়ের নামে ফসলি জমি লুট

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: সোনারগাঁ উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের মুছারচর ও চরতালিমাবাদ গ্রাম এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদে অপরিকল্পিত ড্রেজিংয়ে নামে মাত্রাতিরিক্ত বালু উত্তোলন করায় কৃষকের কৃষি জমি ভেঙ্গে নদে চলে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত কয়েক মাস ধরে সেনাবাহিনীর নাম করে কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি মাত্রাতিরিক্ত বালু উত্তোলনের করায় ওই এলাকায় প্রায় অর্ধশতাধিক কৃষকের ফসলী জমি ভেঙ্গে নদে চলে গেছে। বর্তমানে আরো জমি নদে চলে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে।

ফসলী জমি রক্ষায় রোববার সকালে ওই এলাকার প্রায় ২ শতাধিক কৃষক গণ স্বাক্ষর দিয়ে সোনারগাঁও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে স্বারকলিপি প্রদান করেছেন।

কৃষকরা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ব্রহ্মপুত্র নদে দীর্ঘদিন ধরে সেনাবাহিনীর দেওয়া সীমানা অতিক্রম করে একই স্থানে থেকে বালু উত্তোলন করে আসছে লেদামদী গ্রামের আবুল হাসেম রতনের নেতৃত্বে ২০-৩০ জনের একটি সিন্ডিকেট। এ সিন্ডিকেটের বালু উত্তোলনের ফলে ওই এলাকার ২ একর ফসলী জমি নদে গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। এছাড়াও গাছপালা, বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙ্গে নদীতে চলে যায়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, এ সিন্ডিকেট সেনাবাহিনীর নাম করে বিভিন্ন কৃষককে মামলা ও হামলার হুমকি দিয়ে আসছে। এতে করে ওই এলাকার সাধারণ কৃষক নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন।

চরতালিমাবাদ গ্রামের কৃষক নুরু মিয়া জানান, নদী ড্রেজিংয়ের প্রয়োজন আছে। সেনাবাহিনী ১০-১৫ ফুট বালু উত্তোলনের অনুমতি দিয়েছেন। এ সিন্ডিকেট নির্দিষ্ট সীমানা অতিক্রম করে প্রায় ৬০-৬৫ ফুট গভীর করে বালু উত্তোলন করায় কৃষি জমি ভেঙ্গে নদীতে চলে যাচ্ছে। কৃষি জমি রক্ষায় উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

মুছারচর গ্রামের কৃষক ফিরোজ মিয়া জানান, নদী ড্রেজিংয়ে সব জায়গা থেকে মাটি কাটতে হবে। বালু উত্তোলনের সিন্ডিকেট ১৫-২০ দিন ধরে একই স্থান থেকে গভীর ভাবে বালু উত্তোলনের ফলে কৃষি জমি ভেঙ্গে যাচ্ছে। কৃষকদের জমি রক্ষায় প্রয়োজনে কঠোর আন্দোলন করা হবে।

অভিযুক্ত আবুল হাসেম রতন বলেন, বালু উত্তোলনের সঙ্গে আমি জড়িত না। তবে এলাকার লোকজন সিন্ডিকেট করে এ কাজ করছে। সেনাবাহিনীর সঙ্গে আমার সু-সম্পর্ক রয়েছে। তাই সেনাবাহিনীর কাছ থেকে কাজটি এনে দিয়েছি। কৃষি জমি ভাঙ্গনের বিষয়ে আমার সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা যোগাযোগ করেছেন। এগুলো বাঁশ ও বেড়া দিয়ে বালু ভরাট করে ঠিক করে দেওয়া হবে।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.আতিকুল ইসলাম বলেন, অপরিকল্পিত বালু উত্তোনের ফলে কৃষকের ক্ষতি হবে এমন কাজ করতে দেওয়া যাবে না। এ বিষয়ে উপজেলা পরিষদের মিটিংয়ে কথা বলেছি। বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেওয়া হবে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution