• রাত ২:০৩ মিনিট বুধবার
  • ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
কাঁচপুরে বিভিন্ন বে-সরকারী ক্লিনিকে ভ্রাম্যমান আদালতেরর অভিযান ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাঁচপুর যুবলীগের সভাপতি মাহবুব পারভেজের গণসংযোগ সোনারগাঁয়ে স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তির বিরুদ্ধে সনমান্দী তে কালামের জনসংযোগ ও মতবিনিময় সভায় নেতাকর্মীর ঢল এমপি’র হস্তক্ষেপে হকারমুক্ত হলো ফুটওভার ব্রিজ সোনারগাঁয়ে অটোচালক রজ্জব হত্যার প্রধান আসামী আটক সোনারগাঁয়ের কাপড় ব্যবসায়ীর লাশ বুড়িগঙ্গায় উদ্ধার মেঘনা সেতু ফুট ওভারব্রিজের রেলিংয়ের সাপোর্টিং খুটি কেটে নিলো সওজের কর্মীরা সোনারগাঁয়ে স্মার্ট লুকস জেন্টস পার্লার এন্ড স্পা সেন্টার উদ্বোধন সোনারগাঁ সরকারী ডিগ্রী কলেজের হিসাব রক্ষককে পিটিয়ে আহত সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস বোতলজাত করার সময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১ ব্যক্তির মৃত্যু হঠাৎ ওসমান শিবিরে ধাক্কা সোনারগাঁও পৌরসভায় বৃদ্ধ শ্বশুরকে কুপিয়ে জখম করলো ছেলের বউ আমার দেয়ার কিছু নেই কিন্তু আপনাদের নেয়ার অনেক কিছু আছে..এমপি কায়সার হাসনাত আদমপুর বাজারে হাটার রাস্তা সরু করে অবৈধ দোকান নির্মাণ আনন্দবাজার হাটের ইজারা পেলেন প্যানেল চেয়ারম্যান নবী হোসেন সোনারগাঁয়ে ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার কাঁচপুরে গ্রেপ্তার এড়াতে ৬ তলা থেকে লাফিয়ে পড়লেন যুবক জামপুরে মাহফুজুর রহমান কালামের উঠান বৈঠক সোনারগাঁয়ের কান্দারগাঁয়ে ১২ বছরে ৪ খুন, আহত-৫০ এলাকা ছাড়া ৫০ পরিবার
সোনারগাঁয়ে সরকারি স্কুলের জমি ব্যক্তি মালিকানা জমির সাথে রদবদল!

সোনারগাঁয়ে সরকারি স্কুলের জমি ব্যক্তি মালিকানা জমির সাথে রদবদল!

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টোয়েন্টিফোর ডটকম : সোনারগাঁ উপজেলায় শম্ভুপুরা ইউনিয়নের রামগোবিন্দেরগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্থানীয় পঞ্চায়েত ও প্রধান শিক্ষকের সিদ্ধান্তে সরকারি স্কুলের জমি ব্যক্তি মালিকানার জমির সাথে  রদবদলের অভিযোগ উঠেছে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ি ওই বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী জমির মালিক মফিজ সরকার নামে এক ব্যক্তি বিদ্যালয়ের এক শতাংশ ষোল পয়েন্ট জমি নিজের দখলে নিয়ে অন্যদিক দিয়ে সমপরিমান জমি বিদ্যালয়ের নামে প্রধান শিক্ষককে বুঝিয়ে দেন। সরকারি জমি এভাবে রদ বদল করা নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে বির্তকের সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কিছুই অবগত নন বলে জানান।

সরেজমিন গতকাল মঙ্গলবার ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, সম্প্রতি রামগোবিন্দেরগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চারদিকে বাউন্ডারির কাজ শুরু করা হয়েছে। বিদ্যালয়ের সীমানা ঘেঁষা রাস্তার পাশে মফিজ সরকার এক শতাংশ ষোল পয়েন্ট জমি নিজের দখলে নিয়ে নেন এবং অন্য পাশে সমপরিমান জমি বুঝিয়ে দেন। এনিয়ে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিরীনা আক্তার এর উপস্থিতিতে গত ২৮মে বিদ্যালয়ে পঞ্চায়েত কমিটির সভা হয়।

সভায় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি বজলুর রহমানসহ সাবেক ইউপি সদস্য আলী আহমেদ, আলাউদ্দিন প্রধান, নুর মোহাম্মদ, বাবুল, মফিজ উদ্দিন ও সার্বেয়ার আবুল কালামসহ স্থানীয় গনমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ি মফিজ সরকারকে  বিদ্যালয়ের এক শতাংশ ষোল পয়েন্ট জমি দিয়ে দেয়া হবে। বিনিময়ে তিনি সমপরিমান জমি স্কুলকে দিয়ে দিবেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকজন জানান, রাস্তার পাশের এ জমি মূল্যবান হওয়ায় মফিজ সরকার স্কুলের এ জমি নিজ দখলে নিয়েছেন। তবে এলাকাবাসীর চাপের মুখে অন্যত্র দিয়ে  তিনি সমপরিমান জমি স্কুলকে বুঝিয়ে দেওয়ার সম্মতি দিয়েছেন।

এব্যাপারে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিরিনা আক্তার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী জমির মালিক মফিজ সরকার তার সুবিধার জন্য স্কুলের এক শতাংশ ষোল পয়েন্ট জমি নিজ দখলে নিয়ে সমপরিমান জমি অন্য পাশ দিয়ে স্কুলকে দিয়ে দিবেন। তবে সরকারি জমি এভাবে রদবদল করা ঠিক হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি এলাকার মেয়ে ও গৃহবধূ হওয়ার মুরুব্বিদের চাপে পড়ে তাদের সিদ্ধান্তের বাইরে কিছুই বলতে পারছি না।

পঞ্চায়েত কমিটির সদস্য সাবেক ইউপি সদস্য আলী আহমেদ জানান, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি বজলুর রহমানের উপস্থিতিতে খসরা আলোচনা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে মফিজ সরকারকে স্কুলের এক শতাংশ ষোল পয়েন্ট জমি দিয়ে দেয়া হবে। বিনিময়ে তিনি সমপরিমান জমি স্কুলকে বুঝিয়ে দিবেন। তবে এ নিয়ে কোন লিখিত দলিল হয়নি।

দখলকারী মফিজ সরকার জানান, আমার জমিটি কিছুটা বাঁকা হওয়ায় এটি সোজা করার জন্য এলাকার পঞ্চায়েত কমিটিকে অবগত করেছি। তাদের সিদ্ধান্ত অনুয়ায়ী আমাকে এক শতাংশ ষোল পয়েন্ট জমি দেয়া হয়েছে বিনিময়ে আমি অন্য জায়গা দিয়ে সম পরিমান জমি স্কুলকে দিয়ে দিব বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে জমি রদ বদলের কোন লিখিত দলিল হয়নি।

পঞ্চায়েতের সভায় উপস্থিত থাকা সার্ভেয়ার আবুল কালাম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনিও সত্যতা স্বীকার করেছেন।

সোনারগাঁ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা দৌলতর রহমান জানান, সরকারী স্কুলের জমি এভাবে রদ বদলের কোন সুযোগ নেই। যদি ওই স্কুলে কেউ এমন কিছু করে থাকে তবে এ ব্যাপারে আইন অনুয়ায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution