• সকাল ৭:৫৬ মিনিট শুক্রবার
  • ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বর্ষাকাল
  • ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে একদিনে আক্রান্ত ২৯, সুস্থ ৩৬ লক ডাউনের ৭তম দিনে মোগরাপাড়া বেড়েছে গাড়ির সংখ্যা ম্যাজিকের মত মুখের তেলতেলে ভাব দূর করুন মাত্র ২ মিনিটে লক ডাউনে দোকান খোলা রাখার অপরাধে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও জেল সোনারগাঁয়ের করোনা রোগীদের জন্য এইচএম মাসুদ দুলালের ফ্রি অক্সিজেন সোনারগাঁ থানার মুল ফটকের সামনের দোকানে দূর্ধষ চুরি সোনারগাঁয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় এক ব্যক্তি নিহত সোনারগাঁয়ে ২২ জনের নমুনায় ২২ জন করোনা আক্রান্ত, সুস্থ ১৯ সোনারগাঁয়ে ডাকাত সন্দেহে অস্ত্রসহ ২ যুবক আটক মরহুম মোশারফ হোসেনের রুহের মাগফেরাতের কামনায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দোয়া ভারতের তরল অক্সিজেন নারায়ণগঞ্জে সজীব ওয়াজেদ জয়’র জম্মদিনে উপজেলা যুবলীগের দোয়া মাহফিল সোনারগাঁয়ে ৫৬ জনের নমুনায় ৪০ জনের দেহে করোনা ভাইরাস সনাক্ত মরহুম মোশারফ হোসেনের রূহের মাগফেরাত কামনা আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল সোনারগাঁয়ে ৩৫ জনের মধ্যে ৩৫ জনই পজেটিভ, আক্রান্ত শতভাগ উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেনের রূহের মাগফেরাত কামনা সোহাগ রনি’র দোয়া মাহফিল সোনারগাঁয়ে শিশু ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় যুবক গ্রেপ্তার সোনারগাঁয়ে ২৪ জনের মধ্যে ২৪ জনের করোনা পজেটিভ, মৃত্যু ১ করোনামুক্ত হয়েও ধকল বয়ে বেড়াচ্ছেন তারা ত্বকের যত্নে হলুদ কেন জরুরি?
ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের তালবাহানার কারণে মোগরাপাড়া টু শম্ভুপুরা সড়কের বেহাল দশা

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের তালবাহানার কারণে মোগরাপাড়া টু শম্ভুপুরা সড়কের বেহাল দশা

Logo


আশরাফুল আলম, নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর : কয়েক কোটি টাকার টেন্ডার হওয়ার পরও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের তালবাহানার কারণে সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া টু মঙ্গলেরগাঁও বটতলা বাজার থেকে পাঁচানী ও শম্ভুপুরাগামী সড়কটির অনেকাংশে বৃষ্টির কারনে পানি জমে খানা খন্দে, বেহাল দশায় মৃত্যু ফাঁদে পরিনত হয়েছে। এছাড়া পিরোজপুর ইউনিয়নের মঙ্গলেরগাঁও বাজার সংলগ্ন হাজী আব্দুল জলিল সুপার মার্কেটের সামনে পাঁচানীগামী সড়কটি একেবারই বেহাল দশা। সামান্য বৃষ্টি হলেই হাটু সমান পানিতে তলিয়ে যায়। এতে করে প্রতিদিন চরম ভোগান্তীর শিকার হচ্ছেন দুধঘাটা ও পাঁচানী এলাকার বাসিন্দারা। পাঁচানীগামী সড়কের পাশে রয়েছে তাহেরপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, তাহেরপুর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা, পিরোজপুর ইউনিয়ণ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

অপরদিকে, হোসেনপুর শম্ভুপুরাগামী সড়কের পাশে রয়েছে দূর্গাপ্রসাদ প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাজিরগাঁও হাজী তমিজ উদ্দিন মাদ্রাসা, একই অবস্থানে চৌধুরীগাঁও সরকারী প্রাথমিক ও চৌধুরীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়, হোসেনপুর এলাকায় হোসেনপুর কলেজ, হোসেনপুর এসপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, হোসেনপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র, হোসেনপুর ভূমি অফিস, শম্ভুপুরা ইউনিয়ণ পরিষদসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। প্রতিদিন এ সড়কে উপজেলা সদরে যাওয়া এবং মেঘনাঘাট এলাকায় অবস্থিত বিভিন্ন শিল্প-কারখানায় কর্মরত শ্রমিক, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, সরকারী চাকুরিজীবি ও ব্যবসায়ীসহ হাজার হাজার মানুষের চলাচল। এ সড়কে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, সরকারি চাকুরিজীবি ও কারখানায় কর্মরত শ্রমিক সহ সাধারন মানুষ আসা যাওয়ার সময় প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। এতে করে ওই এলাকার যাত্রীরা প্রতিদিন চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। বিগত সরকার আমলে মঙ্গলেরগাঁও, দূর্গাপ্রসাদ, কাজিরগাঁও, চৌধুরীগাঁও, রামগোবিন্দের গাঁও, মনাইয়েরকান্দি, মুগারচর, টেকপাড়া, ভিটিকান্দি, হোসেনপুর, চেলারচর, দশদোনা নয়াগাঁও, একরামপুরা, নবীনগর, এলাহীনগর, ইসলামপুর, ফরদি ও শম্ভুপুরাসহ স্থানীয় এলাকাবাসীর যাতায়াতের সুবিধার্থে এবং এলাকায় উৎপাদিত কৃষি পণ্যের বাজারজাত করা, রোগী নিয়ে সহজে উপজেলা সদর হাসপাতালে যাওয়া, মালবাহী বিভিন্ন পরিবহন ও ব্যবসায়ীদের দ্রুত বাজার হাটে পৌছানোর জন্য ও কারখানায় কর্মরত শ্রমিকেরা সহজে কর্মস্থলে যাওয়ার লক্ষে সড়কটি মোগরাপাড়া থেকে শুরু হয়ে ভায়া মঙ্গলেরগাঁও বটতলা বাজার থেকে শম্ভুপুরা পর্যন্ত একটি কাঁচা সড়ক নির্মাণ করা হয়। নির্মাণাধীন সড়কটি স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে বিগত কয়েক বছর পূর্বে পাকা করা হয়। এরপর খানা খন্দে ভরা বেহাল সড়কটি দীর্ঘদিন সংস্কারের আর কোন উদ্যোগ গ্রহন করেনি কোন সরকার। সম্প্রতি রাস্তাটি পুনরায় সংস্কার করার জন্য কয়েকটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রাস্তার দুরত্ব ভাগ ভাগ করে বিভিন্ন স্থানে খুড়াখুড়ি করে বেহাল অবস্থায় রেখে কাজ বন্ধ করে চলে যায়। এতে করে আগের তুলনায় শম্ভুপুরা ইউনিয়ণবাসীর ভোগান্তি আরো বেড়ে যায়। চরম ভোগান্তির শিকার স্থানীয় এলাকাবাসীর প্রশ্ন কোন অজ্ঞাত রহস্যজনক কারনে রাস্তাটির সংস্কার কাজ বন্ধ রয়েছে তা আমাদের বোধগম্য নয়। বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টির কারনে কয়েক বছরে রাস্তাটি ভেঙ্গে খানা খন্দে, বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। এখন সড়কটি ভেঙ্গে পুরোপুরি চলাচল অনুপযোগী হয়ে মৃত্যু ফাঁদে পরিনত হয়েছে। শম্ভুপুরা ইউনিয়নের এলাকাবাসী স্থানীয় সাংসদসহ এলজিইডির কর্তা ব্যক্তিদের কাছে এ ব্যাপারে বারবার আবেদন করে অবহিত করলেও তারা রাস্তাটি পুনরায় সংস্কারের কাজ চালু হচ্ছেনা।

এ পথে চলাচলরত যাত্রীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, চরম অবহেলিত এ সড়কটি দিয়ে চলাচলরত পথচারীদের দূর্ভোগ আজ চরমে পৌঁছেছে। বর্তমান নারায়ণগঞ্জ-৩ সোনারগাঁ আসনের সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকার কাছে স্থানীয় এলাকাবাসীর প্রাণের দাবি। হোসেনপুর ও শম্ভুপুরা ইউনিয়ণ বাসীর যাতায়াতের সুবিধার্থে তিনি যেন সড়কটি পুনঃরায় সংস্কার কাজ চালু করার জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গুলোর প্রতি তদারকি ব্যবস্থা গ্রহনসহ রাস্তা দুটি দ্রæত সংস্কার করার যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান এলাকাবাসী।

এ বাপারে সোনারগাঁ উপজেলা প্রকৌশলী আজলুরুর ইসলাম জানান, এ কাজটি ঢাকার একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান করছে। তাদের কাজের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরও কাজটি করছেনা। আমরা আমাদের পক্ষ থেকে একাধিকবার তাদের সাথে যোগাযোগ করেছি কাজটি শেষ করে মানুষের দূর্ভোগ লাগব করার জন্য এবং তারা কাজটি করবে কিনা সে ব্যাপারে জিঞ্জেসাবাদ করলেও তারা বিভিন্ন তালবাহানা করছে। সোনারগাঁয়ের সংসদ মহোদয় পর্যন্ত এ ব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানেরর সাথে যোগাযোগ করেছে তারপরও কাজটি তারা করছে না। এখন আমরা আগের প্রতিষ্ঠানটিকে বাদ দিয়ে নতুন করে ইজারার মাধ্যম্যে কাজটি করার জন্য চেষ্টা করছি। এ ব্যাপারে জেলা পরিষদকে কয়েকটি চিঠি দিয়েছি। আশা করছি শ্রীঘ্রই বিষয়টি সমাধান হবে।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution