• রাত ২:১০ মিনিট বুধবার
  • ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
কাঁচপুরে বিভিন্ন বে-সরকারী ক্লিনিকে ভ্রাম্যমান আদালতেরর অভিযান ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাঁচপুর যুবলীগের সভাপতি মাহবুব পারভেজের গণসংযোগ সোনারগাঁয়ে স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তির বিরুদ্ধে সনমান্দী তে কালামের জনসংযোগ ও মতবিনিময় সভায় নেতাকর্মীর ঢল এমপি’র হস্তক্ষেপে হকারমুক্ত হলো ফুটওভার ব্রিজ সোনারগাঁয়ে অটোচালক রজ্জব হত্যার প্রধান আসামী আটক সোনারগাঁয়ের কাপড় ব্যবসায়ীর লাশ বুড়িগঙ্গায় উদ্ধার মেঘনা সেতু ফুট ওভারব্রিজের রেলিংয়ের সাপোর্টিং খুটি কেটে নিলো সওজের কর্মীরা সোনারগাঁয়ে স্মার্ট লুকস জেন্টস পার্লার এন্ড স্পা সেন্টার উদ্বোধন সোনারগাঁ সরকারী ডিগ্রী কলেজের হিসাব রক্ষককে পিটিয়ে আহত সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস বোতলজাত করার সময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১ ব্যক্তির মৃত্যু হঠাৎ ওসমান শিবিরে ধাক্কা সোনারগাঁও পৌরসভায় বৃদ্ধ শ্বশুরকে কুপিয়ে জখম করলো ছেলের বউ আমার দেয়ার কিছু নেই কিন্তু আপনাদের নেয়ার অনেক কিছু আছে..এমপি কায়সার হাসনাত আদমপুর বাজারে হাটার রাস্তা সরু করে অবৈধ দোকান নির্মাণ আনন্দবাজার হাটের ইজারা পেলেন প্যানেল চেয়ারম্যান নবী হোসেন সোনারগাঁয়ে ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার কাঁচপুরে গ্রেপ্তার এড়াতে ৬ তলা থেকে লাফিয়ে পড়লেন যুবক জামপুরে মাহফুজুর রহমান কালামের উঠান বৈঠক সোনারগাঁয়ের কান্দারগাঁয়ে ১২ বছরে ৪ খুন, আহত-৫০ এলাকা ছাড়া ৫০ পরিবার
সোনারগাঁয়ে করোনার ঝুঁকি নিয়ে গাদাগাদি করে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন

সোনারগাঁয়ে করোনার ঝুঁকি নিয়ে গাদাগাদি করে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: করোনা ভাইরাসের মধ্যে সপ্তাহে ২ দিন ব্যাংক খোলা থাকার কারনে করোনার ঝুঁকি নিয়ে গাধাগাধি করে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করতে দেখা গেছে ব্যাংকের গ্রাহকদের। মাস শেষ হওয়ার একসাথে কয়েক হাজার শ্রমিকের বেতন উত্তোলন অপর দিকে ব্যাংক নিয়মিত না খোলায় এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

সরেজমিনে মোগরাপাড়া চৌরাস্তার কয়েকটি ব্যাংক ঘুরে দেখা যায়, প্রয়োজনে নিজেদের জমা রাখা টাকা উত্তোলন করতে ও কয়েকটি শিল্প প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকরা তাদের মাসিক বেতনের টাকা তুলতে সকাল থেকে ভীড় করতে থাকেন মোগরাপাড়া চৌরাস্তার একটি ব্যাংকে। ব্যাংকের কর্মকর্তা ব্যাংক খোলার আগেই তারা ব্যাংকের মেইন গেইটে জড়ো হতে থাকে। এদিকে, করোনা ঝুঁকির কারণে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ব্যাংকের ভেতর অতিরিক্ত লোক সমাগম করতে দিচ্ছেন না ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। সামাজিক দুরত্ব মেনে লাইনে দাড়িয়ে একের পর এক গ্রাহককে সেবা প্রদান করেছেন তারা। অতিরিক্ত গ্রাহকের চাপে হিমশিম খেতে হয়েছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকেও। অপরদিকে, সকাল থেকে ব্যাংকের সুরু বারান্দায় দাড়িয়ে থাকতে থাকতে অস্থির হয়ে পড়েন কয়েকশত নারী ও পুরুষ। সারা দিন রোজা রেখে সরু জায়গায গাধাগাধি করে লাইনে দাড়িয়ে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। করোনা ঝুঁকির মধ্যে অনেকে আবার একে অপরের গায়ের সাথে লেগে থাকতেও দেখা গেছে। অনেকে আবার লাইনে দাড়াতে দাড়াতে একে অপরের সাথে দ্বন্ধে জড়িয়ে পড়েছেন। এতে শুরু হয় বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতি। পরে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপের কারণে বড় ধরনের অপ্রতিকর ঘটনা থেকে রেহায় পায় গ্রাহকরা।

এ ব্যাপারে গ্রাহকরা জানান, সকাল থেকে বেতন উঠাতে এসে লাইনে দাড়িয়ে আছি। ব্যাংকের লোকদের স্লো কাজকর্মের কারণে দীর্ঘসময় লাইনে দাড়িয়ে সবাই ধর্য্য হারিয়ে ফেলেছে। সারা দিন রোজ রেখে ছোট একটি বারান্দায় দাড়িয়ে থেকে গরমে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তারপরও মহামারি করোনার ঝুঁকিতো রয়েছে।

এ ব্যাপারে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানান, একসাথে এত লোকের বেতন হওয়ায় তাদের সেবা দিতে আমরা হিমশিম খাচ্ছি। এ ছাড়া ব্যাংক যেহেতু সপ্তাহে দুদিন খোলা থাকে সেজন্য গ্রাহকের ভীড়টা একটু বেশী আমরা আমাদের সাধ্যমত চেষ্টা করে যাচ্ছি যাতে তাদের কষ্ট করতে না হয়।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution