• সন্ধ্যা ৭:৪০ মিনিট শনিবার
  • ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : হেমন্তকাল
  • ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে জোড় পূর্বক অন্যের জমি দখলের চেষ্টা, থানায় অভিযোগ আজ থেকে লালপুরীর ৪৯তম তরিকত ওরশ মাহফিল চেয়ারম্যান সামসু’র সাথে মেম্বারদের সমঝোতা সোনারগাঁয়ে অসহায় আ.লীগ নেতাদের পাশে দাড়িয়েছেন এরফান হোসেন দীপ স্কুৃল ব্যাগ পেয়ে খুশি শিক্ষার্থীরা হুমকির ‘মুখে সোনারগাঁয়ের ঐতিহ্যবাহী.. লায়ন বাবুলকে শোকজ দিবে উপজেলা আওয়ামীলীগ শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ জামপুরে সিসি ঢালাই রাস্তার উদ্বোধন করেন চেয়ারম্যান হুমায়ূন সোনারগাঁয়ে বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রস্তুতিমুলক সভা সোনারগাঁয়ে অপহৃত ২ জনকে উদ্ধার, অপহরনকারী আটক… জামপুরে বৃদ্ধা মহিলার জমিতে সাইনবোর্ড টানিয়ে দখলের চেষ্টা সোনারগাঁ প্রেস ক্লাবে দুর্ধর্ষ চুরি এতিমদের নিয়ে সোনারগাঁয়ে অয়ন ওসমানের জন্মদিন পালন শীতে জুতোর সঙ্গে মোজা পরলেই পায়ে দুর্গন্ধ হচ্ছে? ঘরে বসেই সমাধান মিলবে কী ভাবে? আমরা আন্দোলন করতে জানি আবার আন্দোলন প্রতিহতও করতে পারি. সাবেক এমপি কায়সার আন্তর্জাতিক শিশু দিবস উপলক্ষে পথশিশুদের মাঝে শীত সামগ্রী বিতরন বঙ্গবন্ধুর সকল খুনিদের জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব কারুক. লায়ন বাবুল কাঁচপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় পথচারী নিহত কাঁচপুর সেতুর নামফলক পোড়ানোয় বিএনপি জড়িত
সোনারগাঁয়ে পিয়াজের সাথে আদা’র দামও দ্বিগুন

সোনারগাঁয়ে পিয়াজের সাথে আদা’র দামও দ্বিগুন

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডপকম: ভারত থেকে পিয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দেয়ার পর সারা দেশের ন্যায় সোনারগাঁ উপজেলার বিভিন্ন বাজারে বেড়েছে পিয়াজের দাম। আগে যেখানে পিয়াজের মুল্য ছিল (দেশী) ৪০ টাকা সেই পিয়াজ এখন বিক্রি হচ্ছে ৮৫ টাকায়। তবে একটু নিম্ন মানের পিয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬৫ টাকায়। তবে পিয়াজই নয় পিয়াজের সাথে পাল্লা দিয়ে দাম বেড়েছে আদারও। যেখানে আগে বিক্রি হতো ১৭০ টাকা সেখানে বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ২৮০ টাকায়। এছাড়া অন্য জিনিসপত্রের দাম সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে।

উপজেলার সবচেয়ে বড় কাঁচা বাজার মোগরাপাড়া, কাঁচপুর ও মেঘনা শিল্পাঞ্চলের নিত্য প্রয়োজনীয় দোকানগুলোতে গুলো ঘুরে দেখা গেছে, পিয়াজ ব্যবসায়ীরা আগের চেয়ে অনেক কম পিয়াজ দোকানে রেখে বিক্রি করছেন। এছাড়া আদার দাম হঠাৎ বেড়ে যাওয়ায় তারা দেশী আদা বিক্রি করেছেন। দোকানিরা জানান, হঠাৎ পিয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় তারা চাহিদার তুলনায় অনেক কম পিয়াজ মজুদ করছেন। এছাড়া প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার ভয়ে বেশী পিয়াজ কিনছেন না। যা দরকার তা প্রতিদিন এনে প্রতিদিন বিক্রি করে শেষ করে পরের দিন আবার কিনে আনেন। আদার ব্যাপারে তারা জানান হঠাৎ করে বিদেশী আদার দামও বেড়ে গেছে সেজন্য বিদেশী আদা তেমন দোকানে রাখছেন না। বিদেশী আদা সুন্দর হলেও এখন তারা কমদামে দেশী ও ক্যারেরার আদা বিক্রি করছেন।

পিয়াজ ও আদা কিনতে আসা ক্রেতা মুকুট জানান, হঠাৎ করে পিয়াজ ও আদার দাম বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছি। যেখানে আগে ৫ কেজি পিয়াজ কিনতাম সেখানে এখন ২ কেজি কিনছি। পিয়াজ ও আদার দাম সহনীয় পর্যায়ে আনার জন্য সরকারের নিকট অনুরোধ করেন।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution