• সন্ধ্যা ৭:২৭ মিনিট বুধবার
  • ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
মানসম্মত শিক্ষার পাশাপাশি পারিবারিক ও সামাজিক শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে.. এমপি কায়সার সোনারগাঁয়ে পারভেজ হত্যার প্রধান আসামী পিতা-পুত্র গ্রেপ্তার কাঁচপুরে বিভিন্ন বে-সরকারী ক্লিনিকে ভ্রাম্যমান আদালতেরর অভিযান ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাঁচপুর যুবলীগের সভাপতি মাহবুব পারভেজের গণসংযোগ সোনারগাঁয়ে স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তির বিরুদ্ধে সনমান্দী তে কালামের জনসংযোগ ও মতবিনিময় সভায় নেতাকর্মীর ঢল এমপি’র হস্তক্ষেপে হকারমুক্ত হলো ফুটওভার ব্রিজ সোনারগাঁয়ে অটোচালক রজ্জব হত্যার প্রধান আসামী আটক সোনারগাঁয়ের কাপড় ব্যবসায়ীর লাশ বুড়িগঙ্গায় উদ্ধার মেঘনা সেতু ফুট ওভারব্রিজের রেলিংয়ের সাপোর্টিং খুটি কেটে নিলো সওজের কর্মীরা সোনারগাঁয়ে স্মার্ট লুকস জেন্টস পার্লার এন্ড স্পা সেন্টার উদ্বোধন সোনারগাঁ সরকারী ডিগ্রী কলেজের হিসাব রক্ষককে পিটিয়ে আহত সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস বোতলজাত করার সময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১ ব্যক্তির মৃত্যু হঠাৎ ওসমান শিবিরে ধাক্কা সোনারগাঁও পৌরসভায় বৃদ্ধ শ্বশুরকে কুপিয়ে জখম করলো ছেলের বউ আমার দেয়ার কিছু নেই কিন্তু আপনাদের নেয়ার অনেক কিছু আছে..এমপি কায়সার হাসনাত আদমপুর বাজারে হাটার রাস্তা সরু করে অবৈধ দোকান নির্মাণ আনন্দবাজার হাটের ইজারা পেলেন প্যানেল চেয়ারম্যান নবী হোসেন সোনারগাঁয়ে ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার কাঁচপুরে গ্রেপ্তার এড়াতে ৬ তলা থেকে লাফিয়ে পড়লেন যুবক
সোনারগাঁ উপজেলা প্রশাসনের আল্টিমেটাম ও নোটিশে দখল ছাড়ছেনা মেঘনা নদী দখলদাররা

সোনারগাঁ উপজেলা প্রশাসনের আল্টিমেটাম ও নোটিশে দখল ছাড়ছেনা মেঘনা নদী দখলদাররা

SAMSUNG CAMERA PICTURES
Logo


নিউজ সোনারগাঁ২৪ডটকম:

মেঘনা নদী থেকে সকল প্রকার অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নিতে দুই দিনের আল্টিমেটাম দেওয়া হয় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। আল্টিমেটামের পর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লিখিত ভাবে নোটিশ করা হয়ে দখলদারদের কিন্তু কোন আল্টিমেটাম ও নোটিশে কর্নপাত করছেনা মেঘনা দখলদাররা। বরং অভিযোগ উঠেছে দখল ছারাতো দুরের কথা অনেক দখলদার নতুন করে নদী ও খাস জমি দখলে মেতে উঠেছে।

জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন আইন-২০১৩-এর উদ্দেশ্য হিসেবে বলা হয়েছে- ‘নদীর অবৈধ দখল, পানি ও পরিবেশ দূষণ, শিল্প কারখানা কর্তৃক নদী দূষণ, অবৈধ কাঠামো নির্মাণ ও নানাবিধ অনিয়ম রোধকল্পে এবং নদীর স্বাভাবিক প্রবাহ পুনরুদ্ধার, নদীর যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ এবং নৌ পরিবহনযোগ্য হিসেবে গড়ে তোলাসহ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নদীর বহুমাত্রিক ব্যবহার নিশ্চিত করার প্রয়োজনে’ নদী কমিশন গঠন করা হয়। এ কমিটির তত্ত্বাবধানে দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি নদী রক্ষা কমিটি গঠন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়। সেখানে সদস্য করা হয় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগন ও সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ নিয়ে।

২০১৩ সালে (২৯) নং আইন অনুযায়ী সোনারগাঁ উপজেলায় একটি নদী রক্ষা কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির নিয়ম অনুযায়ী প্রতিমাসে একটি মাসিক সভা করার কথা থাকলেও নিয়ম মোতাবেক মাত্র ৩টি সভা করে বন্ধ করে দেয় সোনারগাঁ উপজেলা প্রশাসন। এদিকে,বাংলাদেশের যে কয়েকটি উপজেলা নদী দখল হয়েছে তার মধ্যে সোনারগাঁ উপজেলা অন্যতম। সোনারাগাঁ উপজেলাকে শিল্প এলাকা ঘোষনা করার আগেই এখানে কয়েকটি শিল্প-প্রতিষ্টান মেঘনা নদী দখল ও দূষন করার খেলায় মেতে উঠে। এসব কোম্পানীর বিরুদ্ধে যে কয়বার উচ্ছেদ চালানো হয়েছে তার প্রতিটিতে ব্যর্থ হয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

এদিকে, গত ২২ জুলাই বাংলাদেশ নদী রক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান ও সচিব ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার সরেজমিনে পরিদর্শনে মেঘনা নদী পরিদর্শনে আসেন। পরিদর্শন শেষে উপজেলা নদী রক্ষা কমিটির সদস্যদের সাথে মত বিনিময় করেন। মত বিনিময়ে রক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান জানান, মেঘনা নদী বেভাবে দখলদাররা দখল করে আছে তা ভয়াবহ। এভাবে চলতে থাকলে কয়েক বছরের মধ্যে মেঘনা নদী বিলিন হয়ে যাবে। যেভাবে সিমেন্ট কোম্পানীগুলো নদী দখল করে আছে তাতে মনে হচ্ছে তারাই নদীর মালিক। এসব দখলদাররা যতই ক্ষমতাশীল হোক না কেন আগামী দু দিনের মধ্যে তাদের স্থাপনা ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে নদী রক্ষা কমিশন থেকে অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এনে এ অভিযান চালানো হবে। এসময় তিনি প্রশাসনকে উদ্দেশ্য করে বলেন আপনারা কি করেন। এগুলো প্রতিষ্ঠান নদী দখল করে নিলো আপনারা কোন ব্যবস্থা গ্রহন করলেন না। আগামী দু দিনের মধ্যে মেঘনা নদী দখলদারদের ২ দিনের মধ্যে ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ প্রদান করেন তিনি। তার নির্দেশ দেওয়ার একদিন পর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৯টি প্রতিষ্ঠানকে নোটিশ প্রদান করে। নোটিশ প্রদানের ৬ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও এখনো কোন প্রতিষ্টান দখল ছাড়েনি কোন প্রতিষ্ঠান। বরং দখলতো ছাড়াতো দুরের কথা কয়েকটি প্রতিষ্ঠান উচ্চ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে নদী দখল ও দূষনে মেতে উঠেছে।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশ করার শর্তে উপজেলা প্রশাসনের এক কর্মকর্তা জানান, দখলদাররা এমন ক্ষমতাশীন যে তাদের পক্ষে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা সম্ভব না।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution