• সন্ধ্যা ৭:২৮ মিনিট শুক্রবার
  • ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ঋতু : বসন্তকাল
  • ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
এই মাত্র পাওয়া খবর :
সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস বোতলজাত করার সময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১ ব্যক্তির মৃত্যু হঠাৎ ওসমান শিবিরে ধাক্কা সোনারগাঁও পৌরসভায় বৃদ্ধ শ্বশুরকে কুপিয়ে জখম করলো ছেলের বউ আমার দেয়ার কিছু নেই কিন্তু আপনাদের নেয়ার অনেক কিছু আছে..এমপি কায়সার হাসনাত আদমপুর বাজারে হাটার রাস্তা সরু করে অবৈধ দোকান নির্মাণ আনন্দবাজার হাটের ইজারা পেলেন প্যানেল চেয়ারম্যান নবী হোসেন সোনারগাঁয়ে ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার কাঁচপুরে গ্রেপ্তার এড়াতে ৬ তলা থেকে লাফিয়ে পড়লেন যুবক জামপুরে মাহফুজুর রহমান কালামের উঠান বৈঠক সোনারগাঁয়ের কান্দারগাঁয়ে ১২ বছরে ৪ খুন, আহত-৫০ এলাকা ছাড়া ৫০ পরিবার পিরোজপুর কান্দারগাঁয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষে ১ জনকে কুপিয়ে হত্যা জনগণের দোয়া চেয়ে গণসংযোগ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ আলী হায়দার এসএসসি পরীক্ষার্থী অভিভাবকদের বসার জন্য সোহাগ রনি’র ছাউনী নির্মাণ এসএসসি পরীক্ষার্থী অভিভাবকদের বসার জন্য সোহাগ রনি’র ছাউনী নির্মাণ ১১ই মে তারিখে সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আহত যুবলীগ নেতা নাছিরের খোঁজ নেননি দলীয় নেতারা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আলী হায়দার এর গণসংযোগ সোনারগাঁয়ে ১০টি টিনশেট ও ১টি দোকান পুড়ে ছাই, ১০ লাখ টাকার ক্ষতি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস প্রস্তুতি মুলক সভা টুমোরো নেভার কামস❞ জামপুরে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে এমপি কায়সার
প্রথম রোজায় বাজারগুলো অরাজকতা, গরুর মাংস ৭০০, লেবুর হালি ১২০ টাকা

প্রথম রোজায় বাজারগুলো অরাজকতা, গরুর মাংস ৭০০, লেবুর হালি ১২০ টাকা

Logo


নিউজ সোনারগাঁ টুয়েন্টিফোর ডটকম: প্রথম রমজানে সোনারগাঁয়ের বাজারে ইফতারে ব্যবহৃত সব সবজির দাম দ্বিগুণ হয়ে গেছে। প্রতি হালি লেবু ৬০ থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

শুধু লেবু নয়, দাম বেড়েছে শসা, গাজর, পুদিনা ও ধনে পাতারও।

রোববার (৩ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলার বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে, বড় সাইজের প্রতিটি লেবুর প্রতি পিস ২০-২৫ টাকা, ছোট সাইজের লেবু ১২-১৫ টাকা পিস এবং মাঝারি সাইজের প্রতিটি লেবুর দাম ১৬-১৮ টাকায় বিক্রি করছেন বিক্রেতারা।

 

বড় সাইজের এক হালি লেবু কিনতে হলে ক্রেতাকে গুনতে হচ্ছে ১২০ টাকা।

 

ইফতারের আরেক উপাদান শসার দাম বেড়ে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়, যা সপ্তাহখানেক আগেও ছিল ৪০-৫০ টাকা কেজি।

ধনেপাতা ২৫০ গ্রামের দাম ৩০ টাকা, ২০০ গ্রাম পুদিনা পাতার দাম ৪০ টাকা, গাজর প্রতি কেজি ৬০ টাকা।

চড়া মাছ-মাংসের বাজারও। সোনালি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৩৮০ টাকায় এবং ব্রয়লার মুরগি ১৮০ টাকা কেজি দরে। বাজারে গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭০০ টাকা কেজি দরে। অন্যদিকে খাসির মাংস ৮৫০ থেকে ৯০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

ক্রেতারা বলছেন, রমজান এলেই একটি সিন্ডিকেট তৎপর হয়ে ওঠে। এমনিতেই নিত্যপণ্যের দামের ঊর্ধ্বগতি। তার ওপর ছোটখাট পণ্যগুলোর দাম বৃদ্ধি নতুন করে ভাবনার কারণ। মানুষ এতটাই অসহায়, চাইলেও ভালোভাবে ইফতার করতে পারবে না। সরকারের উচিত বাজারে মনিটরিং বাড়ানো।

মোগরাপাড়া বাজারের ক্রেতা ওসমান আলী বলেন, এটি নীরব দুর্ভিক্ষের মতো। এত দামে সাধারণ মানুষ কী কিনে খাবে? কোনো নজরদারি নেই! আমরা এখন পুরো অসহায়।বিক্রেতারা বলছেন, আমরা ইচ্ছে করলেই দাম বাড়াতে পারি না। অতিরিক্ত দামে কিনে আনতে হয় বলে বেশি দামে বিক্রি করি। আমাদের কিছু করার থাকে না।


Logo

Website Design & Developed By MD Fahim Haque - Web Solution